রাজস্থান রয়্যালসে আরও একবার হলো শেন ওয়ার্নের প্রত্যাবর্তন, পেলেন বড়ো ভূমিকা 1

ক্রিকেট জগতের সবচেয়ে দুর্দান্ত টি-২০ লীগ ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগের ইতিহাস ১২ বছরের পুরনো। ২০০৮ এ আইপিএল শুরু হয়েছিল। তখন এই লীগের প্রথম মরশুমের চ্যাম্পিয়ন এমন একটা দল হয়েছিল যারা সকলকেই অবাক করে দিয়েছিল। আইপিএল ২০০৮ এর প্রথম মরশুমে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার স্বাদ পেয়েছিল রাজস্থান রয়্যালসের দল।

রাজস্থান রয়্যালসকে প্রথমবার চ্যাম্পিয়ন করা শেন ওয়ার্ন আবারও যোগ দিলেন দলে

রাজস্থান রয়্যালসে আরও একবার হলো শেন ওয়ার্নের প্রত্যাবর্তন, পেলেন বড়ো ভূমিকা 2

রাজস্থান রয়্যালসকে প্রথমবার খেতাব জিতিয়েছিলেন অস্ট্রেলিয়ার মহান স্পিনার শেন ওয়ার্ন। দলের হয়ে অধিনায়ক আর কোচ থাকা শেন ওয়ার্ন দুর্দান্ত নেতৃত্বের ক্ষমতা দেখান আর নিজের দলকে প্রথমবার খেতাব জিতিয়েছিলেন। শেন ওয়ার্ন নিজের অধিনায়কত্বে প্রথমবার রাজস্থানকে চ্যাম্পিয়ন করার পর কিছু বছর অধিনায়ক ছিলেন আর এরপর তিনি আইপিএলকেই বিদায় জানান। কিন্তু শেন ওয়ার্ন কোনো না কোনোভাবে রাজস্থানের সঙ্গে জুড়ে ছিলেন।

শেন ওয়ার্নকে রাজস্থান রয়্যালস করল মেন্টর

রাজস্থান রয়্যালসে আরও একবার হলো শেন ওয়ার্নের প্রত্যাবর্তন, পেলেন বড়ো ভূমিকা 3

এইভাবে আইপিএলের ত্রয়োদশ মরশুমের কিছুদিন আগে আরও একবার শেন ওয়ার্ন রাজস্থান রয়্যালসের দলের একটি বিশেষ ভূমিকা পেয়েছেন। এখন আবারও তাকে রাজস্থানের দলের সঙ্গে দেখা যাবে। শেন ওয়ার্নকে এই মরশুমের জন্য রাজস্থান রয়্যালসের ফ্রেঞ্চাইজি নিজেদের মেন্টর করেছে। শেন ওয়ার্ন আগে থেকেই দলের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসডর ছিলেন আর সেই সঙ্গেই তিনি এখন মাঠে মেন্টর হিসেবে কাজ করবেন।

রয়্যালসের সঙ্গে যোগ দেওয়ার পর ওয়ার্ন বললেন এই কথা

রাজস্থান রয়্যালসে আরও একবার হলো শেন ওয়ার্নের প্রত্যাবর্তন, পেলেন বড়ো ভূমিকা 4

রাজস্থান রয়্যালসের প্রধান কোচ অ্যান্ড্রু ম্যাকডোনাল্ড। অ্যান্ড্রু ম্যাকডোনাল্ডের সঙ্গে এখন শেন ওয়ার্ন একসঙ্গে কাজ করবেন। আর দলকে ভালো প্রদর্শনের জন্য তৈরি করবেন। ম্যাকডোনাল্ড আর শেন ওয়ার্ন ভিক্টোরিয়া দলের হয়ে ২০০৩ থেকে ২০০৭ পর্যন্ত একসঙ্গে কাজ করেছেন। রাজস্থান রয়্যালস ফ্রেঞ্চাইজির ক্রিকেট প্রধান জুবিন ভরুচার সঙ্গে মিলে শেন ওয়ার্নকে কাজ করতে দেখা যাবে। শেন ওয়ার্ন রয়্যালসের মেন্টর হওয়ার পর নিজের প্রেস রিলিজের মাধ্যমে বলেছেন যে,

“নিজের দুই ভূমিকার ব্যাপারে আমি বললে রাজস্থানের সঙ্গে থাকা সবসময়ই ভালো অনুভব। আমার দল, আমার পরিবার, যে ফ্রেঞ্চাইজিকে আমি এতটা ভালোবাসি, তার সঙ্গে সমস্ত স্তরে কাজ করা রোমাঞ্চকর হবে”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *