বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে রোহিত শর্মার তিন দুর্দান্ত সেঞ্চুরি, যা স্মরণীয় হয়ে থাকবে 1

 

টেস্ট ক্রিকেটে মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান হিসাবে কেরিয়ার শুরু করার পরে, ওপেনার হিসাবে পদোন্নতি হওয়ার পর থেকে দলের প্রতিটি সুযোগ ছিনিয়ে নিচ্ছেন রোহিত শর্মা। টেস্টেও নিজেকে সেরা খেলোয়াড় হিসাবে প্রমাণ করেছেন। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে দলের হয়ে সবচেয়ে বেশি রান করেছিলেন রোহিত। রোহিত শর্মা বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে ১১ টেস্ট ম্যাচ খেলে ৬৪.৩৭ গড়ে ১০৩০ রান করেছেন। যার মধ্যে তার ৪ টি সেঞ্চুরি এবং দুটি হাফ-সেঞ্চুরি রয়েছে। নিজের প্রথম টেস্ট ম্যাচে ১৭৭ রান করা রোহিত শর্মা বারবার দল থেকে বাদ পড়েছিলেন। কিন্তু যখন তাকে ওপেনারের ভূমিকা দেওয়া হয়েছিল তারপরে তিনি ভালো ফল করেছিলেন। এখন তাঁর টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের তিন সেঞ্চুরির কথা বলব যা স্মরণীয় হয়ে থাকবে।

रोहित
দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ১৭৬ রান (২০১৯): টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ শুরু হয়েছিল ২০১৯ সালে এবং ভারতীয় দলকে শুরুতেই দক্ষিণ আফ্রিকার মুখোমুখি হতে হয়েছিল। দ: আফ্রিকার দল ভারতে খেলতে এসেছিল। দুই দলের মধ্যে প্রথম ম্যাচ হয়েছিল বিশাখাপত্তনমে। এতে ভারত টস জিতে প্রথমে ব্যাট করে। ওপেনার হিসাবে এই ম্যাচ দিয়ে রোহিত শর্মাও শুরু করেছিলেন। ম্যাচে রোহিত শর্মা মায়াঙ্ক আগরওয়ালের সাথে প্রথম উইকেটে ৩১৭ রানের পার্টনারশিপ গড়েন। যার মধ্যে তাঁর নামে ১৭৬ রান নিজে করেন। রোহিত মাত্র ২৪৪ বলে ১৭৬ রান করেছিলেন। যার মধ্যে ২৩ টি চার এবং ৬ টি ছক্কা অন্তর্ভুক্ত ছিল। শুধু তাই নয়, দ্বিতীয় ইনিংসেও তিনি একই ফর্ম দেখিয়েছিলেন, যেখানে রোহিত ১৪৯ বলে ১১ টি চার এবং সাতটি ছক্কার সাহায্যে ১২৭ রান করেছিলেন।

 

rohit sharma

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ২১২ রান (২০১৯): দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ২০১৯ সালে তিন টেস্টের সিরিজে রোহিত শর্মাকে নতুন ব্যাটসম্যান হিসাবে দেখা গিয়েছে। তৃতীয় এবং ফলাফল নির্ণায়ক ম্যাচেও রোহিতের আলাদা স্টাইল দেখা গেল। টস জিতে ব্যাটিংয়ের সময় ভারতীয় দলের তিন উইকেট পড়েছিল মাত্র ৩৯ রানে। এরপরে রোহিত শর্মা (২১২) এবং অজিঙ্ক রাহানে (১১৫) এর মধ্যে চতুর্থ উইকেটের জন্য ২৬৭ রানের পার্টনারশিপ গড়েছিল। ডাবল সেঞ্চুরির জন্য রোহিত শর্মা মাত্র ২৫৫ বল নিয়েছিলেন। যার মধ্যে তাঁর নামে ২৮ টি বাউন্ডারি এবং ছয়টি ছক্কা রয়েছে। শুধু এটিই নয়, তার স্ট্রাইক রেটও ছিল ৮৩.১৪। তার ব্যাটিংয়ের কারণে দক্ষিণ আফ্রিকার বোলাররা ধরাশায়ী। তাঁর ইনিংসের ভিত্তিতেই ভারত আফ্রিকাকে এক ইনিংস এবং ২০২ রানে পরাজিত করেছিল।

rohit sharma

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ১৬১ রান (২০২১): ইংল্যান্ড এবং ভারতীয় দল ২০২১ সালের গোড়ার দিকে মুখোমুখি হয়েছিল। এখানে চার টেস্টের সিরিজে ভারতের বিপক্ষে ৩-১ ব্যবধানে জয় পেয়ে ভারত টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে প্রবেশ করেছিল। রোহিত শর্মাও চেন্নাইয়ের টার্নিং পিচে দুর্দান্ত এক সেঞ্চুরি করেছিলেন। পিচ পুরোপুরি স্পিনারদের সহায়ক ছিল। তবুও শর্মা জি ২৩১ বলে ১৬১ রানের ইনিংস খেলেন। রোহিত শর্মা এই ইনিংসের জন্য ১৮ টি চার এবং দুটি ছক্কা অন্তর্ভুক্ত করেছিলেন। শুধু তাই নয় অজিঙ্ক্যা রাহানে (৬৭) এর সাথে ১৬২ রানের পার্টনারশিপ গড়েন তিনি। প্রথম টেস্ট ম্যাচটি হেরে ভারতীয় দল এই দ্বিতীয় টেস্ট ম্যাচটি জিতে সিরিজে ফিরল।

Leave a comment

Your email address will not be published.