হার্দিক-পোলার্ড-মালিঙ্গাকে নয় রোহিত শর্মা এই খেলোয়াড়কে দিলের জয়ের পুরো শ্রেয়

আজ আইপিএলের সবচেয়ে দুর্দান্ত ম্যাচ খেলা হল। দুই বড়ো দল মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স আর চেন্নাই সুপার কিংসের মধ্যে এই ম্যাচ হয়। মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স দুর্দান্ত প্রদর্শন করে ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে চেন্নাই সুপার কিংসকে মাত দিয়ে ৩৭রানে জয় তুলে নেয়। টস হেরে প্রথমে ব্যাট করে মুম্বাই ২০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৭০ রান করে আর চেন্নাইকে ১৭১ রানের লক্ষ্য দেয়। জবাবে চেন্নাই সুপার কিংস ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৩৩ রানই করতে পারে। চেন্নাই সুপার কিংসের শুরুটা ভীষণই খারাপ হয়, তাদের উপরের দিকে কোনো ব্যাটসম্যানই বিশেষ প্রদর্শন করতে পারেননি। চেন্নাইয়ের অধিনায়ক এমএস ধোনির ব্যাটও আজ সম্পুর্ণভাবে চুপ ছিল। কেদার জাধব যদিও দুর্দান্ত ব্যাটিং করে নিজের চতুর্থ আইপিএল হাফসেঞ্চুরি করেন।

ম্যাচের পর কি বললেন মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স অধিনায়ক রোহিত শর্মা

জয়ের পর মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের অধিনায়ক রোহিত শর্মা বলেন,

“আমার মনে হয় আইপিএলে যে ম্যাচই আমরা খেলি সেটাই গুরুত্বপূর্ণ। শুরুতে দুটি ম্যাচ হারার পর হঠাৎ করেই প্রত্যেক ম্যাচ গুরুত্বপূর্ণ হয়ে যায়। আমরা মরশুমের শেষে বেশ কিছু ম্যাচ জেতার জন্য মেহনত করতে চাইনা। এটা বাস্তবে মুশকিল। আমরা স্রেফ সেই ক্রিকেট খেলতে চাই যার জন্য মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স পরিচিত”।

হার্দিক-মালিঙ্গাকে নয় রোহিত শর্মা এই খেলোয়াড়কে দিলেন জয়ের পুরো শ্রেয় 1

“আমরা ব্যাস ম্যাচের মাধ্যমে নিজেদের খেলতে গিয়েছি। আর সেটা ভাল সংকেত। আমি ভেবেছিলাম যে ১৭০ এখানে একটা ভাল টোটাল ছিল কারণ আপনি কখনো জানেন না পিচ কি করবে। আমরা জানতাম যে পিচে কিছু আছে আর যদি আমরা দ্রুত উইকেট নিতে পারি তো সেটা কাজ করতে পারে”।

আমরা ব্যাটিংয়ে শুরুতে ভাল করিনি কিন্তু শেষে ভাল করেছি

এই ম্যাচে হার্দিক পাণ্ডিয়া শেষের ওভারে দুর্দান্ত ব্যাটিং করেন। তিনি বল হাতেও দুর্দান্ত প্রদর্শন করেন।
তিনি আগে বলেন,

“ঠিক এমনটাই হয়েছে। আমরা ব্যাটিংয়ে ভাল শুরু করিনি, কিন্তু আমরা বাস্তবে ভাল প্রদর্শন করেছি। বোলিংয়ে আমরা ভীষণই ক্লিন ছিলাম। ওয়াংখেড়েতে ১৭০ রানের স্কোর বাঁচানোর জন্য বাস্তবে আপনাকে বোলিংয়ে ভাল হওয়া উচিৎ আর আমরা ফিন্ডিংয়েও ভীষণই কুশল। এটাই কারণ যে আমি একটাও ম্যাচ বদলে দেওয়া ঘটনা নিয়ে কোনো একজন খেলোয়াড়ের ব্যাপারে বলতে পারিনা। এটা পুরো দলের মেহনত ছিল যা কাজে এসেছে”।

এই খেলোয়াড়ের রোহিত জমিয়ে প্রশংসা করলেন

“জেসন নতুন বলের সঙ্গে অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ভীষণই ভাল খেলেছে আর আমরা সকলেই জানি যে ও কি করতে সক্ষম। রাহুলও দুর্দান্ত ছিল, ও মাত্র দু ওভার করেছে, কিন্তু এটাও একটা কারণ ছিল যে এমএস আর কেদার ভালভাবে স্পিন খেলছিল। তাই আমি জোরে বোলারদের দিয়ে বোলিং করাই”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *