বিরাট কোহলির খোলসা, আইপিএল চলাকালীন ঋষভ পন্থ আর তার মধ্যে হয়েছিল এই কথা

ভারতীয় দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি আর উইকেটকিপার ঋষভ পন্থের মধ্যে এই আইপিএল চলাকালীন একটি ঘটনা ঘটতে দেখা যায়। রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু আর দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের ম্যাচে পন্থ বিরাট কোহলিকে আউট করার জন্য বোলারকে কিছু বলেন। এরপর ব্যাটিং করতে থাকা বিরাট পেছনে ফিরে পন্থকে জিজ্ঞাসা করেন। এরপর দুই খেলোয়াড়ই হাসতে থাকেন।

কোহলি করলেন খোলসা
বিরাট কোহলির খোলসা, আইপিএল চলাকালীন ঋষভ পন্থ আর তার মধ্যে হয়েছিল এই কথা 1
ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি স্টারস্পোর্টসে দেওয়া একটি ইন্টারভিউতে সেইদিনের ঘটনার খোলসা করেন। কোহলি জানিয়েছেন পন্থ বারবার তাকে আউট করার জন্য চিৎকার করছিলেন। তারপর কোহলি তাকে প্রশ্নই করে বসেন যে আউট তো বোলার করবে তুমি কেনও এত চেঁচাচ্ছ। এরপর পন্থ জবাব দেয় যে এটা আমার কাজ আর আমি তো করবই। এরপর দুই খেলোয়াড়ই হাসতে থাকে। এই ঘটনার ভিডিয়ো সেইসময় যথেষ্ট ভাইরাল হয়েছিল।

আজ দুজনে করলেন ১৩৩ রানের পার্টনারশিপ
বিরাট কোহলির খোলসা, আইপিএল চলাকালীন ঋষভ পন্থ আর তার মধ্যে হয়েছিল এই কথা 2
ওয়েস্টইন্ডিজের বিরুদ্ধে খেলা হওয়া প্রথম টেস্ট ম্যাচে পন্থ আর কোহলি ১৩৩ রানের পার্টনারশিপ গড়েন। এই পার্টনারশিপ ৯২ রান ছিল ঋষভ পন্থের। তিনি ৮৪ বলে ৮টি চার আর ৪টি ছক্কার সাহায্যে এই ইনিংস খেলেন। যদিও তিনি সেঞ্চুরি হাতছাড়া করেন। অন্যদিকে পন্থের ব্যাটিংয়ের সময় বিরাট কোহলি অন্যপ্রান্তে দাঁড়িয়ে ছিলেন। তিনি খালি সিংগল রান নিয়ে পন্থকে রান করার সুযোগ করে দেন।

আইপিএলের আগে কোহলি খেলোয়াড়দের বুঝিয়েছিলেন
বিরাট কোহলির খোলসা, আইপিএল চলাকালীন ঋষভ পন্থ আর তার মধ্যে হয়েছিল এই কথা 3
আইপিএলের আগে ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি খেলোয়াড়দের বুঝিয়েছিলেন যে কোনও খেলোয়াড় যেনো আইপিএল চলাকালীন একে অপরের সঙ্গে ঝামেলায় না জড়িয়ে পড়েন। এতে দলের ব্যাপারে ভালো ম্যাসেজ যাবে না। অন্যদিকে বিরাট কোহলিই কয়েক বছর আগে আইপিএল ম্যাচে নিজের সিনিয়র খেলোয়াড় গৌতম গম্ভীরের সঙ্গে ঝামেলায় জড়িয়ে পড়েন। এই দুজনকে আলাদা করার জন্য অন্য খেলোয়াড়দের মাঝখানে আসতে হয়।

দেখে নিন বিরাট কোহলি আর ঋষভ পন্থের ভিডিয়ো

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *