সুরেশ রায়না চেয়েছিলেন বিসিসিআইয়ের কাছে খেলোয়াড়দের বিদেশী লীগে খেলার অনুমতি, বিসিসিআই দিল এই জবাব

টিম ইন্ডিয়ার বিস্ফোরক ব্যাটসম্যান সুরেশ রায়না প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার ইরফান পাঠানের সঙ্গে লাইভ চ্যাট চলাকালীন নিজের মতামত দিয়েছিলেন যে ভারতীয় ক্রিকেটারদেরও কম সে কম ২টি বিদেশী লীগ খেলার অনুমতি দেওয়া উচিত। যা নিয়ে ইরফান পাঠানও সহমতি জানিয়েছিলেন। এখন রায়নার এই বয়ানের পর বিসিসিআই অফিসিয়াল কড়া জবাব দিয়েছে।

সুরেশ রায়না তুলেছিলেন বিদেশী লীগে খেলার বিষয়টি

সুরেশ রায়না চেয়েছিলেন বিসিসিআইয়ের কাছে খেলোয়াড়দের বিদেশী লীগে খেলার অনুমতি, বিসিসিআই দিল এই জবাব 1

লকডাউন চলাকালীন একটি লাইভ চ্যাটে ২০১৮ থেকে টিম ইন্ডিয়ার বাইরে থাকা সুরেশ রায়না আর ইরফান পাঠা ভারতীয় খেলোয়াড়দের বিদেশী লীগে খেলা নিয়ে আলোচনা করেছিলেন। সেই সময় সুরেশ রায়না বলেছিলেন যে,

“আমার আশা যে বিসিসিআই আইসিসি আর ফ্রেঞ্চাইজিগুলির সঙ্গে মিলে এই বিষয়টি নিয়ে নিয়ে রণনীতি তৈরি করবে যে, যে খেলোয়াড়রা জাতীয় দলের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ নয় তাদের বাইরে খেলার অনুমতি দেওয়া হবে। কম সে কম আমাদের দুটি আলাদা আলাদা বিদেশী লীগে খেলার অনুমতি দেওয়াই যেতে পারে। যদি আমরা বিদেশী লীগে ভালো করতে পারি তো এটা আমাদের জন্য ভালো হবে। অনেক আন্তর্জাতিক খেলোয়াড়রা এই লীগগুলিতে খেলে প্রত্যাবর্তন করেছেন”।

বিসিসিআইয়ের কড়া জবাব

সুরেশ রায়না চেয়েছিলেন বিসিসিআইয়ের কাছে খেলোয়াড়দের বিদেশী লীগে খেলার অনুমতি, বিসিসিআই দিল এই জবাব 2

সুরেশ রায়না সেই ভারতীয় খেলোয়াড়দের বিদেশী লীগের খেলার দাবী করেছেন যাদের কাছে জাতীয় চুক্তি নেই। রায়নার দাবী বিসিসিআই পর্যন্ত পৌঁছে গেছে। এটা নিয়ে বিসিসিআইয়ের এক আধিকারিক আইএএনএসের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে নিজের বয়ানে বলেন,

“যে খেলোয়াড়দের কাছে জাতীয় চুক্তি নেই তারাও আইপিএলে বড়ো কন্ট্রাক্ট পেয়ে যান। অবসরের কাছে আসা খেলোয়াড়দের এই ধরণে ভাবনা রাখা স্বাভাবিক। কেরিয়ারের শেষ দিকে এসে খেলোয়াড় নিজেদের ভালো করার ইচ্ছা রাখেন তো এমন ভাবনা রাখা কোনো খারাপ নয়। বিসিসিআইয়ের দৃষ্টিভঙ্গি এটাই যে আমরা বোর্ডের ভালো চাইব। আমাদের ইচ্ছা এটাই যে যে খেলোয়ায়ড়দের কাছে কেন্দ্রীয় চুক্তি নেই তাদেরও আইপিএলে ভালো দাম দেওয়া হোক”।

বিসিসিআইয়ের নিয়ম কী?

সুরেশ রায়না চেয়েছিলেন বিসিসিআইয়ের কাছে খেলোয়াড়দের বিদেশী লীগে খেলার অনুমতি, বিসিসিআই দিল এই জবাব 3

ভারত ছাড়া বাকি দেশগুলির খেলোয়াড়রা অবসর না নিয়েও বিদেশী লীগে অংশ নিতে পারেন। কিন্তু বিসিসিআইয়ের নিয়মানুসারে কোনো ভারতীয় খেলোয়াড় যাদের কাছে সেন্ট্রাল বা আইপিএল চুক্তি রয়েছে ত্রা বিদেশী লীগে খেলার অনুমতি দেওয়া হবে না। জানিয়ে দিই তারাক যুবরাজ সিং অবসর নেওয়ার পর বিসিসিআইয়ের কাছে আবেদন করেছিলেন যে তিনি এখন বিদেশী লীগে অংশ নিতে চান। এরপর বিসিসিআই যুবী কে বিদেশী লীগে খেলার জন্য এনওসি দিয়ে দিয়েছিল। পরিণামস্বরূপ যুবী গ্লোবাল টি-২০ লীগ, আবু ধাবি টি-১০ লীগের মতো লীগগুলিতে অংশ নিয়েছেন।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *