৩ জন ভারতীয় খেলোয়াড়, যারা ক্রিকেট ছাড়াও অন্য খেলাতেও করেছেন ভারতের প্রতিনিধিত্ব

ক্রিকেট ইতিহাসে আমরা দেখতে পেয়েছি একজন খেলোয়াড় একের বেশি দেশের প্রতিনিধিত্ব করেছেন। ক্রিকেট ইতিহাসে এখনো পর্যন্ত কিছু এমন খেলোয়াড় থেকেছেন যারা দুটি দেশের হয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচ খেলেছেন। এর সঙ্গেই এমন কিছু ক্রিকেটারও থেকেছেন যারা ক্রিকেটের সঙ্গে অন্য খেলাতেও আন্তর্জাতিক লেভেলে নিজের দেশের প্রতিনিধিত্ব করেছেন।

ভারতের তিনজন এমন ক্রিকেটার যারা অন্য খেলাতেও করেছেন আন্তর্জাতিক লেভেলে প্রতিনিধিত্ব

৩ জন ভারতীয় খেলোয়াড়, যারা ক্রিকেট ছাড়াও অন্য খেলাতেও করেছেন ভারতের প্রতিনিধিত্ব 1

বর্তমান সময়ে অস্ট্রেলিয়া মহিলা ক্রিকেট দলের অলরাউন্ডার খেলোয়াড় এলিসা প্যারি ক্রিকেট তো খেলেনই সেই সঙ্গে তিনি নিজেদের দেশের হয়ে ফুটবলেও প্রতিনিধিত্ব করেছেন। অন্যদিকে ভারতীয় ক্রিকেটের কথা যদি বলা হয় ভারত থেকেও ২জন ক্রিকেটার এমনটা করেছেন। ভারতীয় ক্রিকেটের ইতিহাস ভীষণই ভালো থেকেছে। ভারতীয় ক্রিকেটে এমন দুজন খেলোয়াড়ও রয়েছেন যারা ক্রিকেট খেলার সঙ্গেই আন্তর্জাতিক স্তরেও অন্য কোনো খেলার প্রতিনিধিত্ব করেছেন। তো আসুন আপনাদের জানানো যাক সেই দুই ভারতীয় খেলোয়াড়ের ব্যাপারে যারা অন্য খেলাতেও করেছেন দেশের প্রতিনিধিত্ব।

কোটর রামাস্বামী

তামিলনাড়ুর তারকা ক্রিকেটা থাকা কোটর রামাস্বামী ভারতীয় ক্রিকেটের হয়ে ২টি টেস্ট প্রতিনিধিত্ব করেছেন। কোটর রামাস্বামী ভারতের হয়ে ২টি টেস্ট খেলেছেন যার মধ্যে তিনি ১৭০ রান করেছেন। ১৯৩৬ সালে ইংল্যান্ড সফরে তিনি ভারতীয় দলের হয়ে খেলেছেন। তিনি প্রথম টেস্ট ম্যাচই ৪০ বছরের বয়সে খেলেন। তাকে ভারতের দক্ষিণের ক্রিকেটের জনক বলা হয়ে থাকে। প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে তিনি ৫৩টি ম্যাচে ২৪০০ রান করতেও সফল হয়েছিলেন। রামাস্বামী প্রথম টেস্ট ম্যাচেই ৪০ আর ৬০ রানের ইনিংস খেলেন। এই ইনিংসের সৌজন্যেই ভারত ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে টেস্ট ম্যাচ ড্র করতে সফলতা হাসিল করেছিল। এমনিতে কোটর রামাস্বামী ক্রিকেট খেলার আগে ১৯২২ সালে ভারতের ডেভিস কাপেও প্রতিনিধিত্ব করেছেন। কোটোরের জন্ম ১৮৯৬ সালে হয়েছিল, যারপর তার ১৯৯০ সালে মৃত্যু হয়।

এমজে গোপালন

ভারতের প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে ৭৮টি ম্যাচের অভিজ্ঞতা সম্মন্ন প্রাক্তন ক্রিকেটার এমজে গোপালন ভারতের হয়ে ১টি টেস্ট ম্যাচ খেলেছিলেন। এমজে গোপালন ১৯৩৪ এ ভারতের হয়ে টেস্ট ক্রিকেটে ডেবিউ করার সুযোগ দেওয়া হয়। কলকাতায় ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ডেবিউ ম্যাচে তিনি ১৮ রান করা ছাড়াও ১টি উইকেট হাসিল করেন। কিন্তু এরপর তাকে ভারতের হয়ে খেলার সুযোগ দেওয়া হয়নি। এমনিতে গোপালন একজন ভালো হকি খেলোয়াড় ছিলেন, যিনি আন্তর্জাতিক স্তরে ভারতের হয়ে হকি খেলেছেন। টেস্টে ডেবিউর আগে তিনি ভারতের হয়ে হকি খেলেছেন। তিনি হকি দলে সেন্টার হাফ পজিশনে খেলেছেন। ১৯৩৬ এ বার্লিনে অলিম্পিক হয় আর সেই বছর সেই সময় ভারতীয় ক্রিকেট দল ইংল্যান্ড সফরে যায়। গোপালন ভাগ্যবান ছিলেন যে তিনি ভারতের টেস্ট ক্রিকেট আর বার্লিন হকি দুটির জন্যই নির্বাচিত হন, যার পর তিনি ক্রিকেট দলের সঙ্গে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন কিন্তু তাকে ইংল্যান্ডে প্রথম একাদশে সুযোগ দেওয়া হয়নি।

চুনি গোস্বামী

ভারতীয় ক্রিকেট দল থেকে আরো একজন খেলোয়াড় ছিলেন যিনি দুটি খেলায় অংশ নিয়েছিলেন। তিনি হলেন চুনি গোস্বামী। চুনি গোস্বামী প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে যথেষ্ট খেলেছেন কিন্তু তাকে ভারতের হয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলার সুযোগ দেওয়া হয়নি। চুনি গোস্বামী ভারতের ফুটবল দলের হয়ে আন্তর্জাতিক স্তরে প্রতিনিধিত্ব করেন।

Leave a comment

Your email address will not be published.