পার্থিব প্যাটেলের অবসর নিয়ে কথা বললেন তার প্রথম অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলী

২০০২ এ ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ভারতীয় দলের হয়ে ১৭ বছর বয়সেই ডেবিউ করা উইকেটকিপার ব্যাটসমান পার্থিব প্যাটেল ক্রিকেটের সমস্ত ফর্ম্যাট থেকে অবসর ঘোষণা করে দিয়েছেন। পার্থিব ভারতের হয়ে নিজের কেরিয়ারে মোট ২৫টি টেস্ট, ৩৮টি ওয়ানডে, আর ২টি টি-২০ ম্যাচ খেলেছেন। তার নামে টেস্ট ক্রিকেটে ৬টি হাফসেঞ্চুরি রয়েছে, যার মধ্যে রাওয়ালপিন্ডিতে ওপেনিং করে ৬৯ রানের ইনিংসও শামিল রয়েছে। তার অবসর নিয়ে প্রাক্তন ভারতীয় অধিনায়ক তথা বর্তমান বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলীও নিজের প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন।

শুরু থেকেই পার্থিব একজন টিম ম্যান ছিলেন—সৌরভ গাঙ্গুলী

পার্থিব প্যাটেলের অবসর নিয়ে কথা বললেন তার প্রথম অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলী 1

সৌরভ গাঙ্গুলী ওপেনিং ব্যাটসম্যান পার্থিব প্যাটেলের অবসরের পর নিজের প্রতিক্রিয়া দিতে গিয়ে পার্থিব প্যাটেলের ভূমিকার ব্যাপারে বলেন যে, “পার্থিব ভারতীয় ক্রিকেটের জন্য একজন দুর্দান্ত অ্যাম্বাসডর থেকেছেন। ও সবসময়ই একজন টিমম্যান ছিলেন, আমি খুশি য ১৭ বছর বয়সী পার্থিবের ডেবিউর সময় আমি অধিনায়ক হিসেবে ওর সঙ্গে খেলেছি। ও নিজের অধ্যাবসায় আর মেহনতের সৌজন্যে আন্তর্জাতিক আর ঘরোয়া ক্রিকেটে দারুণ খ্যাতি অর্জন করেছে। পার্থিবকে তার দুর্দান্ত ক্রিকেট কেরিয়ারের জন্য শুভেচ্ছা জানাচ্ছি আর ওর উন্নত ভবিষ্যতের কামনা করছি। রঞ্জি ট্রফি ফাইনালে গুজরাতের জয়ে পার্থিব যে দুর্দান্ত প্রদর্শন করেছে সেটা গুজরাত ক্রিকেটের ইতিহাসে সবসময় মনে রাখা হবে”।

দুর্দান্ত থেকেছে পার্থিবের ফার্স্ট-ক্লাস কেরিয়ার

পার্থিব প্যাটেলের অবসর নিয়ে কথা বললেন তার প্রথম অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলী 2

৩৫ বছর বয়সী পার্থিব প্যাটেল নিজের কেরিয়ারে ১৯৪টি ফার্স্ট-ক্লাস খেলেছেন। যার মধ্যে তিনি ২৭টি সেঞ্চুরি আর ৬২টি হাফসেঞ্চুরির সঙ্গে মোট ১১,২৪০ রান করেছে। এছাড়াও উইকেটকিপিংয়েও পার্থিব ৪৮৬টি ক্যাচ আর ৭৭টি স্ট্যাম্পিং করেছেন। পার্থিব ঘরোয়া ক্রিকেটে গুজরাতের হয়ে দুর্দান্ত ক্রিকেট খেলেছেন। এর মদহ্যে তিনি একটি রঞ্জি ট্রফি ফাইনাল চলাকালীন তার দুর্দান্ত নেতৃত্ব এবং ব্যাটিং ক্ষমতার সৌজন্য গুজরাতকে রঞ্জি ট্রফি জিতিয়েছিলেন।

জয় শাহ আর অরুণ ধুমলও দিলেন শুভেচ্ছা

পার্থিব প্যাটেলের অবসর নিয়ে কথা বললেন তার প্রথম অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলী 3

গাঙ্গুলী ছাড়াও বিসিসিআই সচিব জয় শাহও পার্থিব প্যাটেলের প্রশংসা করে বলেছেন যে, “পার্থিক ক্রিকেটকে সবসময়ই প্যাশনের সঙ্গে খেলেছে। এছাড়াও ও ভারতীয় ক্রিকেট দলের হয়ে যথেষ্ট উন্নত ধরণের ক্রিকেট খেলেছে। ঘরোয়া ক্রিকেট ওর প্রদর্শন নতুন প্রজন্মের ক্রিকেটারদেরও যথেষ্ট প্রেরণা দেবে। গুজরাতকে ২০১৬-১৭য় তার প্রথম রঞ্জি ট্রফি এনে দেওয়ায় পার্থিবের যগদানকে একদমই উপেক্ষা করা যাবে না। বিসিসিআই পার্থিবকে তার দুর্দান্ত কেরিয়ার আর ভারতীয় ক্রিকেটে তার যোগদানের জন্য শুভেচ্ছা জানাচ্ছে”।

সচিব আর সভাপতি ছাড়াও বিসিসিআই কোষাধক্ষ্য অরুণ ধুমিলও পার্থিবের ক্রিকেট কেরিয়ারের ব্যাপারে নিজের কথা বলতে গিয়ে বলেন যে, “একজন তরুণ হিসেবে ডেবিউ করা থেকে শুরু করে নতুন প্রজন্মকে ক্রিকেট শেখানো পর্যন্ত পার্থিব একটা দীর্ঘ সফর করেছে। আমি পার্থিবকে ভারতীয় দল, গুজরাতের ঘরোয়া দল আর আইপিএলে দুর্দান্ত কেরিয়ারের জন্য শুভেচ্ছা জানাচ্ছি আর ওর উন্নত ভবিষ্যতের কামনা করছি”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *