NZ XI vs IND: ভারতীয় দলের বোলাররা এনে দিলেন লীড, দ্বিতীয় ইনিংসে ওপেনারদের বিস্ফোরক শুরু 1

নিউজিল্যান্ড ইলেভেন আর ভারতের মধ্যে তিনদিনের প্র্যাকটিস ম্যাচ খেলা হচ্ছে। হ্যামিল্টনে খেলা হওয়া এই ম্যাচের প্রথমদিন ভারতীয় দল ২৬৩ রান করে আউট হয়ে গিয়েছিল। হনুমা বিহারী ১০১ রানের ইনিংস খেলেছিলেন অন্যদিকে চেতেশ্বর পুজারাও ৯৩ রান করেছিলেন। এই দুই ব্যাটসম্যান ছাড়া আর কোনো ব্যাটসম্যানই বড়ো ইনিংস খেলতে পারেননি।

নিউজিল্যান্ডের ব্যাটসম্যানরাও টিকতে পারেননি

NZ XI vs IND: ভারতীয় দলের বোলাররা এনে দিলেন লীড, দ্বিতীয় ইনিংসে ওপেনারদের বিস্ফোরক শুরু 2

নিউজিল্যান্ড ইলেভেনের শুরুটাও খারাপ ছিল। ওপেনিং ব্যাটসম্যান ভিল ইয়ং ২ রান করে জসপ্রীত বুমরাহের বলে আউট হন। টিম সেফর্টের (৯) ব্যাটও চলেনি আর মহম্মদ শামির বলে উইকেটকিপার ঋষভ পন্থকে তিনি ক্যাচ দিয়ে বসেন। দ্বিতীয় ওপেনার রচিত রবীন্দ্র পিচে টেকেন আর তিনি ফিন অ্যালনের সহযোগীতা পান। ৭০ রানে তৃতীয় উইকেট পড়ার পর উইকেট পড়ার ধারা বজায় থাকে। কিউয়ি দলের কোনো ব্যাটসম্যানই পিচে বেশি সময়ের জন্য টিকতে পারেননি।

জোরে বোলারদের থেকেছে কর্তৃত্ব

NZ XI vs IND: ভারতীয় দলের বোলাররা এনে দিলেন লীড, দ্বিতীয় ইনিংসে ওপেনারদের বিস্ফোরক শুরু 3

নিউজিল্যনাড ইলেভেনের হয়ে হেনরি কুপরের ব্যাট থেকে সবচেয়ে বেশি ৪০ রানের ইনিংস বেরয়। টম ব্রুস (৩১ আর অধিনায়ক ড্যারেল মিচেল (৩২) পিচে টিকে থেকে বড়ো ইনিংস খেলতে ব্যর্থ হন। ঘরের দল ৭৪.২ ওভারে ২৩৫ রানে অলআউট হয়ে যায়। ভারতের হয়ে মহম্মদ শামি সবচেয়ে বেশি ৩উইকেট নেন। তিনি ১০ ওভার বোলিং করে ১৭ রান দেন। অন্যদিকে জসপ্রীত বুমরাহ ১১ ওভারে ১৮ রান দেন। বুমরাহ, উমেশ যাদব আর নভদীপ সাইনি ২টি করে উইকেট পান। একটি উইকেট নেন রবিচন্দ্রন অশ্বিন।

ভারতের বিস্ফোরক শুরু

NZ XI vs IND: ভারতীয় দলের বোলাররা এনে দিলেন লীড, দ্বিতীয় ইনিংসে ওপেনারদের বিস্ফোরক শুরু 4

প্রথম ইনিংসে ৫ রানে ৩ উইকেট হারানো ভারতীয় দলের দ্বিতীয় ইনিংসে বিস্ফোরক শুরু হয়। পৃথ্বী শ আর ময়ঙ্ক আগরওয়াল প্রথম ওভার থেকেই দ্রুত রান করা শুরু করেন। দিনের খেলা শেষ হওয়া পর্যন্ত ভারত ৭ ওভারে কোনো উইকেট না হারিয়ে ৫৯ রান তুলে ফেলেছে। শ ২৫ বলে ৩৫ আর ময়ঙ্ক ১৭ বলে ২৩ রান করে খেলছেন। দ্বিতীয় ইনিংসে ভারতের কাছে ৮৭ রানের লীড হয়ে গিয়েছে। ব্যাটসম্যানরা টেস্ট সিরিজের আগে নিজেদের এই পরিস্থিতিতে মানিয়ে নিতে চাইবেন। প্রথম টেস্ট ২১ ফেব্রুয়ারি থেকে খেলা হবে।

Leave a comment

Your email address will not be published.