হারের পর পাকিস্তানের তারকা খেলোয়াড় এই খেলোয়াড়কে দল থেকে বাদ দিয়ে অবসর নেওয়ার পরামর্শ দিলেন

ভারত আর পাকিস্তানের মধ্যে হওয়া ম্যাচে পাকিস্তানের হারের পর দলের প্রাক্তন খেলোয়াড়রা হারের দায়ী করেছেন বেশ কিছু খেলোয়াড়কে। দলের প্রাক্তন খেলোয়াড় ইউসুফ শোয়েব মালিকের সমালোচনা করে বলেছেন যে এখন এই খেলোয়াড়ের মেনে নেওয়া উচিত যে তার কেরিয়ার শেষ হয়ে গিয়েছে। জানিয়ে দিই যে রবিবার ম্যাঞ্চেস্টারে হওয়া ম্যাচে শোয়েব মালিক প্রথম বলেই কোনো রান না করে আউট হয়ে যান।

প্রাক্তণ খেলোয়াড়রা করলেন দাবী, বললেন এক খেলোয়াড়কে দিতে বাদ

হারের পর পাকিস্তানের তারকা খেলোয়াড় এই খেলোয়াড়কে দল থেকে বাদ দিয়ে অবসর নেওয়ার পরামর্শ দিলেন 1

৩৭ বছর বয়েসী মালিক এই বছরের শুরুতে বলেছিলেন যে এই বিশ্বকাপের পর তিনি একদিনের ক্রিকেট থেকে অবসর নেবেন। আর এরপর অস্ট্রেলিয়ায় হতে চলা টি-২০ বিশ্বকাপে ধ্যান দেবেন। মালিক বিশ্বকাপের তিনটি ম্যাচে মাত্র ৮ রান করেছেন। ভারতের বিরুদ্ধে এই ম্যাচে তিনি কোনো রান না করেই আউট হওয়ার পর প্রাক্তন খেলোয়াড়রা মনে করছেন যে তিনি নিজের শেষ ম্যাচ খেলে ফেললেন। প্রাক্তন টেস্ট স্পিনার ইকবাল কাসিম বলেছেন যে তিনি স্বয়ংই বলেছিলেন যে তিনি এই বিশ্বকাপের পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নেবেন। কিন্তু টুর্নামেন্টের তার প্রদর্শন দেখে আমার মনে হয় না যে তাকে পরের ম্যাচে সুযোগ দেওয়া উচিত।

মহম্মদ ইউসুফ বললেন এই কথা

হারের পর পাকিস্তানের তারকা খেলোয়াড় এই খেলোয়াড়কে দল থেকে বাদ দিয়ে অবসর নেওয়ার পরামর্শ দিলেন 2

প্রাক্তন ব্যাটসম্যান মহম্মদ ইউসুফ বললেন এই কথা

প্রাক্তণ ব্যাটসম্যান মহম্মদ ইউসুফ বলেন,

“আমার মনে হয় যে ওর কেরিয়ার পাকিস্তানের জন্য সমাপ্ত হয়ে গেছে। বর্তমান পরিস্থিতি দেখে আমার মনে হয় না যে এখন ওকে খেলার সুযোগ দেওয়া হবে। ওকে আবারো দলে শামিল করা ভুল হবে”।

হারের পর পাকিস্তানের তারকা খেলোয়াড় এই খেলোয়াড়কে দল থেকে বাদ দিয়ে অবসর নেওয়ার পরামর্শ দিলেন 3

শোয়েব আমিল পাকিস্তানের দলের হয়ে খেলে ৩৫টি টেস্ট, ২৮৭টি একদিনের ম্যাচে প্রতিনিধিত্ব করেছেন। পাকিস্তান দলে ১৯৯৯ সালে অভিষেক হওয়া শোয়েব মালিল দলের হয়ে ৭৫৩৪ রান করেছেন। এছাড়াও তিনি ১৫৮টি উইকেট নিয়েছে।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *