মোহালিতে ভারত শ্রীলঙ্কা একদিনের ম্যাচের পরই অবসর নেবেন ধোনি 1

 

আসন্ন ভারত শ্রীলঙ্কা ওয়ান ডে ম্যাচ হয়ত কোনো ব্যাটসম্যানের দুর্দান্ত ইনিংস কিংবা কোনো বোলারের দুর্দান্ত স্পেলের জন্য স্মরণীয় হয়ে থাকতে পারে, কিন্তু এই ম্যাচটি অবশ্যই স্মরণীয় হয়ে থাকবে অন্য একটি কারণে। এই ম্যাচের পর ধোনি নিজে জুতো জোড়া তুলে রাখবেন।
গত ১০ বছর ধরে মোহালি ডিস্ট্রিক্ট পুলিশের সঙ্গে কাজ করা ধোনি একটি স্নিফার ডগ। ১৩ ডিসেম্বর ম্যাচ শেষে এই স্নিফার ডগ তার সার্ভিস শেষ করবে এবং এই কাজ থেকে অবসর নেবে। পুলিশের পক্ষ থেকে ধোনির পাশাপাশি অন্য দুটি কুকুর যথাক্রমে জন এবং প্রীতির জন্যও একটি ফেয়ারওয়েল সেরিমনি রাখা হয়েছে। ধোনির মতই জন এবং প্রীতিও ওই একই দিনে অবসর নেবে। ধোনি একটি সাদা ল্যাব্রাডর প্রজাতির কুকুর। অবসরের পর তাদের রক্ষণাবেক্ষণের জন্য আগ্রহী মানুষদের দত্তক দিয়ে দেওয়া হবে। এই দত্তক প্রক্রিয়া নিলামের মাধ্যমে দেওয়া হবে। এই তিন কুকুরের প্রত্যেকের জন্যই ৮০০ টাকার রিজার্ভ প্রাইস রাখা হয়েছে। ডগ স্কোয়াডের ইনচার্জ অমৃক সিংহ চন্ডীগড় নিউজ লাইনকে জানিয়েছেন ধোনি ডিস্ট্রিক্ট পুলিশে যোগ দেন ১০ ফেব্রুয়ারী ২০০৭ এ।

মোহালিতে ভারত শ্রীলঙ্কা একদিনের ম্যাচের পরই অবসর নেবেন ধোনি 2

তারপর থেকেই এই স্নিফার ডগ তাদের বহু হাই প্রোফাইল সিকিউরিটি অপারেশনে তাদের সাহায্য করেছে এবং পাশাপাশি বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ কেস সলভ এবং বেশ কিছু ড্রাগ পেডলারকে ধরতেও সাহায্য করেছে। পুলিশ ধোনিকে মাত্র ৩ মাস বয়েসে নিয়ে আসে আহমেদ নগর থেকে। ধোনিকে ফিলাউর পুলিশ অ্যাকাডেমিতে ট্রেনিং দেওয়া হয়। অমৃক সিংহ জানিয়েছেন, “ ধোনি আন্তর্জাতিক ম্যাচ চলাকালীন পিসিএ স্টেডিয়াম পরীক্ষা করতে আমাদের সাহায্য করত। ২০১১ বিশ্বকাপে ভারত পাকিস্থানের বিরুদ্ধে হওয়া সেমিফাইনালে যেখানে দু’দেশের প্রধানমন্ত্রী উপস্থিত ছিলেন তখনও ধোনি আমাদের সঙ্গে সেই ম্যাচে কাজ করেছে”। এসব ছাড়াও আগস্ট মাসে ধোনি একটি সিকিউরিটি অপারেশনে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করে যখন জিরাকপুরে ডেরা সাচ্চা সৌদার ভক্তদের মোহালি পর্যন্ত পাহারা দিয়ে নিয়ে যায় যখন জেলা পুলিশ পঞ্চকুলা থেকে তাদের পাঞ্জাব এবং হরিয়ানায় তাদের নিজেদের বাড়ী ফেরত পাঠায়। সেই সময় ধোনি ব্যাগের গন্ধ শুকে বিস্ফোটক পদার্থের পরীক্ষা করেছিল। অমৃক সিংহ জানিয়েছেন ধোনি ডিম এবং দুধ খেত। ৩ বারে তার খাওয়ার সময় ধোনি প্রতিদিন ৩ লিটার দুধ ও প্রায় ২০-৩০টি ডিম খেত। তিনি আরও জানিয়েছেন ধোনি রুটি খেতে পছন্দ করত না। অমৃক সিংহের কথায়, “ ধোনি দিনে ৬ থেকে ৭ ঘন্টা ঘুমোতে পছন্দ করত। ও দিনের বেলাতেই ঘুমোত। ও বিস্ফোরক শুঁকে বার করার বিশেষজ্ঞ ছিল। যে কোনো সার্চ অপারেশনে ও আমাদের কাছে থাকা কুকুরদের মধ্যে সবচেয়ে দ্রুততম ছিল। আমরা ওকে সত্যিই ভীষণ মিস করব।

মোহালিতে ভারত শ্রীলঙ্কা একদিনের ম্যাচের পরই অবসর নেবেন ধোনি 3

ও আমাদের কাছে বিরাট বড়ো সম্পদ ছিল। অন্য দুটি কুকুর জন এবং প্রীতিও ধোনির সঙ্গে অবসর নিচ্ছে। ওরা দুজনেই জেলা পুলিশের সঙ্গে তাদের দশ বছরের সার্ভিস পূর্ণ করে ফেলেছে। প্রীতি এবং জনকেও তাদের অবসরের জন্য ফর্মাল ফেয়ারওয়েল দেওয়া হবে। ধোনির মতই প্রীতিও বিস্ফোরক শুঁকে বের করায় বিশেষজ্ঞ ছিল অন্যদিকে জন মার্ডার এবং ক্রাইম স্পটে গন্ধ এবং সেন্ট শোকার স্পেশালিস্ট ছিল। ফেস ৩বি২ এ এবছরের সেপ্টেম্বরে সিনিয়র সাংবাদিক কে জে সিংহ এবং তার মায়ের খুনের পরই মোতায়েন করা হয়েছিল। এবং এই কেস সলভ করতে জনের অল্প সময়ই লাগে এবং সে ধরে ফেলে যে আততায়ী কে জের গাড়িতে করেই পালায়।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *