রিপোর্ট: অধিনায়কের বয়ানের পর রোহিত আর বিরাটের মধ্যে কনফারেন্সে হয়েছে কথা, ছিলেন রবি শাস্ত্রীও

ভারতীয় ক্রিকেট দল অস্ট্রেলিয়ার গুরুত্বপূর্ণ সফরে রয়েছে। এই সফরে ভারতীয় দল নিজেদের ম্যাচ খেলাও শুরু করে দিয়েছে। কিন্তু এই সফরের জন্য দলের নির্বাচন হওয়ার পরই একটি বড়ো বিতর্ক সবচেয়ে বেশি শিরোনামে উঠে এসেছে। দলে রোহিত শর্মার নির্বাচন না হওয়া আর পরে রোহিতকে টেস্ট সিরিজের জন্য নির্বাচিত করা নিয়ে তার ফিটনেস সবকিছু সংশয়ের মধ্যে রয়েছে।

রোহিত শর্মার বিষয় নিয়ে বিরাট কোহলি দিয়েছিলেন বয়ান

রিপোর্ট: অধিনায়কের বয়ানের পর রোহিত আর বিরাটের মধ্যে কনফারেন্সে হয়েছে কথা, ছিলেন রবি শাস্ত্রীও 1

রোহিত শর্মা অস্ট্রেলিয়া সফরে যাননি। কিন্তু তাকে চার ম্যাচের টেস্ট সিরিজে দলে নির্বাচিত করা হয়েছে। রোহিত শর্মাকে টেস্ট দলে নির্বাচিত তো করা হয়েছে কিন্তু তার ফিটনেস নিয়ে এখনও সংশয় রয়েছে। তিনি কবে অস্ট্রেলিয়া সফরে যাবেন তা এখনও পরিষ্কার হয়নি। রোহিত শর্মার বিষয়টি নিয়ে ভারতীয় দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলির বয়ান এই মুহূর্তে দারুণ বিতর্কের জন্ম দিয়েছে। বিরাট কোহলি রোহিত শর্মার না খেলা নিয়ে চমকে দেওয়ার মতো বয়ান দিয়েছেন।

বিরাট কোহলি নিজের বয়ানে সকলকে করে দিয়েছেন অবাক

রিপোর্ট: অধিনায়কের বয়ানের পর রোহিত আর বিরাটের মধ্যে কনফারেন্সে হয়েছে কথা, ছিলেন রবি শাস্ত্রীও 2

কোহলি অস্ট্রেলিয়া থেকে ওয়ানডে সিরিজ শুরু হওয়ার আগে প্রেস কনফারেন্সে এই কথা বলেছিলেন যে তিনি রোহিত শর্মার ব্যাপারে কিছুই জানেন না আর ভ্রমের পরিস্থিতি তৈরি হয়ে রয়েছে। কোহলি বলেছিলেন যে, “ওর চোট নিয়ে ভ্রমের পরিস্থিতি রয়েছে। আমার কাছে সম্পূর্ণ সূচনা নেই। আমি জানি না যে বাকি দলের সঙ্গে রোহিত শর্মা কেনও অস্ট্রেলিয়ায় আসেনি। নির্বাচক কমিটির বৈঠকের আগে আমরা ইমেল পেয়েছিলাম যে রোহিত উপলব্ধ নয়। এতে বলা হয়েছিল যে ওর আইপিএল চলাকালীন চোট লেগেছিল। এতে এটাও বলা ছিল যে রোহিতের চোট সম্পর্কিত তথ্য দেওয়া হয়েছে আর ও অনুপলব্ধ থাকবে। কিন্তু এরপর রোহিত আইপিএলে খেলেন আর তখন আমরা সকলে ভেবেছিলাম যে ও অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার ফ্লাইটে আমাদের সঙ্গে থাকবে। আমাদের কাছে কোনো সূচনা ছিল না যে ও আমাদের সঙ্গে সফর কেনও করছে না”।

কোহলির বয়ানের পর রোহিত আর কোহলিকে যুক্ত করা হয়েছিল কলে

রিপোর্ট: অধিনায়কের বয়ানের পর রোহিত আর বিরাটের মধ্যে কনফারেন্সে হয়েছে কথা, ছিলেন রবি শাস্ত্রীও 3

এই বয়ানের পর বিষয়টি বেড়ে যেতে দেখা যাচ্ছিল। কিন্তু একটি বড়ো রিপোর্ট এসেছে, যার অনুযায়ী বিরাত কোহলির বয়ানের পর একটি ভিডিও কনফারেন্স হয়, যেখানে রোহিত শর্মা আর বিরাট কোহলি ছিলেন। সর্বভারতীয় সংবাদপত্র মুম্বাই মিররের রিপোর্টের কথা মানা হলে তাতে বলা হয়েছে যে বিরাট কোহলি আর রোহিত শর্মা ছাড়াও এই কলে কোচ রবি শাস্ত্রীর সঙ্গে জাতীয় দলের নির্বাচক প্রধান সুনীল যোশীও ছিলেন আর পুরো পরিস্থিতিকে পরিষ্কার করা হয়েছে। সেই সঙ্গেই রোহিত শর্মার উপর ১১ ডিসেম্বর শেষ সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথাও বলা হয়েছে।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *