মাইক হেনসের পর ইনিও ছাড়লেন কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের দল

কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের প্রধান কোচ মাইক হেনস কিছুদিন আগেই নিজের পদ থেকে ইস্তফা দিয়ে দিয়েছিলেন। পাঞ্জাব আইপিএল ২০১৯এ বিশেষ কিছু প্রদর্শন করতে অসফল থেকেছে আর পয়েন্ট টেবিলে তারা ষষ্ঠ স্থান পেয়েছিল। আইপিএল ২০১৪র ফাইনালে হারার পর থেকে আর কখনো তারা প্লে অফে জায়গা করতে পারেনি।

সাপোর্ট স্টাফদেরও ইস্তফা

মাইক হেনসের পর ইনিও ছাড়লেন কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের দল 1

প্রধান কোচ মাইক হেনসের ইস্তাফার পর সাপোর্ট স্টাফদেরও কিছু সদস্য ইস্তাফা দিয়ে দিয়েছেন। মুম্বাই মিররের রিপোর্টের কথা মানা হলে ফিল্ডিং কোচ, বোলিং কোচ আর সহায়ক কোচও ইস্তফা দিয়ে দিয়েছে। দলের ফিল্ডিং কোচ নিউজিল্যান্ডের প্রাক্তন ব্যাটসম্যান ক্রেগ ম্যাকমিলান ছিলেন অন্যদিকে বোলিং কোচের দায়িত্ব অস্ট্রেলিয়ার জোরে বোলার রেয়ান হ্যারিসের কাছে ছিল। আর দলের সহায়ক কোচ ছিলেন ভারতের প্রাক্তন ব্যাটসম্যান শ্রীধরণ শ্রীরাম।

এখনো পর্যন্ত পুষ্টি হয়নি

মাইক হেনসের পর ইনিও ছাড়লেন কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের দল 2

মাইক হেনসের পদ ছাড়ার পর দ্রুত পরেই সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ব্যাপারে তথ্য শেয়ার করা হয়েছিল, কিন্তু অন্য সাপোর্ট স্টাফদের তরফে এখনো পর্যন্ত কোনো খবর আসেনি। অন্যদিকে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের তরফ থেকেও এখনো কিছু বলা হয়নি। মাইক হেনসের ব্যাপারে এটাও বলা হচ্ছিল যে তিনি বাংলাদেশের কোচ হতে চলেছেন। এই কারণে তিনি পাঞ্জাবের কোচিং ছেড়ে দিয়েছেন। তাকে আইপিএল ২০১৯ এর আগেই কোচ করা হয়েছিল আর তার চুক্তি দু বছরের জন্য জানানো হয়েছিল।

দল করছেন না ভাল প্রদর্শন

মাইক হেনসের পর ইনিও ছাড়লেন কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের দল 3

কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব আইপিএলের ১২টি মরশুমের সবকটি খেলা সত্ত্বেও একবারও খেতাব জিততে পারেনি। প্রথম মরশুমে তারা সেমিফাইনাল পর্যন্ত পৌঁছেছিল। কিন্তু সেখানে তাদের রাজস্থান রয়্যালসের হাতে হারতে হয়েছিল। আইপিএল ২০০৯ থেকে ২০১৩ পর্যন্ত তারা একবারও প্লে অফে জায়গা করে নিতে পারেনি। আইপিলে ২০১৪য় দল দুর্দান্ত প্রদর্শন করে ফাইনাল পর্যন্ত গিয়েছিল কিন্তু সেখানে তারা কেকেআরের কাছে হেরে যায়। তারপর থেকে পাঁচটি আইপিএল মরশুম খেলা হয়েছে কিন্তু এই দল একবারও শেষ চারে যেতে পারেনি।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *