নির্বাচক প্রধান এমএসকে প্রসাদকে বোঝা মুশকিলই নয় অসম্ভব, তার এই সিদ্ধান্তগুলি দিচ্ছে প্রমান 1

ভারতীয় ক্রিকেট দলের নির্বাচক প্রধান এমএসকে প্রসাদ দল নির্বাচন নিয়ে লাগাতার বিতর্কে থাকেন। ভারতের হয়ে ৬টি টেস্ট আর ১৭টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলা এমএসকে প্রসাদকে সন্দীপ পাটিলের পর দলের প্রধান নির্বাচক করা হয়েছিল। তার আগে সন্দীপ পাটিল, দিলীপ ভেঙ্গসরকার, আর শ্রীকান্তের মত বিশ্বকাপ জয়ী দলের সদস্য প্রধান নির্বাচক ছিলেন।

সবসময়ই নেন অদ্ভুত সিদ্ধান্ত

নির্বাচক প্রধান এমএসকে প্রসাদকে বোঝা মুশকিলই নয় অসম্ভব, তার এই সিদ্ধান্তগুলি দিচ্ছে প্রমান 2

এমএসকে প্রসাদের দল নির্বাচনের ধরণ সকলেরই বোঝার বাইরে। এই বছরের শুরুতে অস্ট্রেলিয়া আর নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ওয়ানডে সিরিজের আগে কেএল রাহুলকে বিসিসিআই সাসপেণ্ড করে দিয়েছিল। এরপর নিউজিল্যান্ড সফরে শুভমান গিলকে তৃতীয় ওপেনার হিসেবে সুযোগ দেওয়া হয় আর তাকে দুটি ম্যাচেও খেলানো হয়। বিশ্বকাপে যখন দলে ওপেনিং ব্যাটসম্যানকে শামিল করার কথা সামনে আসে তো তিনি কোনো ওয়ানডে ম্যাচ না খেলা ময়ঙ্ক আগরওয়ালকে সুযোগ দিয়ে দেন।

অজিঙ্ক রাহানেকে শামিল করার কথা

নির্বাচক প্রধান এমএসকে প্রসাদকে বোঝা মুশকিলই নয় অসম্ভব, তার এই সিদ্ধান্তগুলি দিচ্ছে প্রমান 3

বিশ্বকাপের আগে ভারতের শেষ ওয়ানডে সিরিজ দেশের মাটিতে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে খেলতে হত। এই সিরিজের আগে এমএসকে প্রসাদ বয়ান দিয়েছিলেন যে তৃতীয় ওপেনার হিসেবে অজিঙ্ক রাহানে তাদের তালিকায় রয়েছেন। এরপর অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে দল বাছা হয় তাতে কেএল রাহুলকে তৃতীয় ওপেনিং ব্যাটসম্যান হিসেবে সুযোগ দিয়ে দেওয়া হয়। বিশ্বকাপে চতুর্থ ওপেনারকে জায়গা দেওয়া কথা হলে তিনি ময়ঙ্ক আগরওয়ালকে বাছেন।

বেশ কিছু খেলোয়াড় তুলেছেন আঙুল

নির্বাচক প্রধান এমএসকে প্রসাদকে বোঝা মুশকিলই নয় অসম্ভব, তার এই সিদ্ধান্তগুলি দিচ্ছে প্রমান 4

ভারতের হয়ে টেস্ট ম্যাচে ত্রিপল সেঞ্চুরি করা দ্বিতীয় ব্যাটসম্যান করুণ নায়ারকে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে সিরিজের জন্য দলে সুযোগ দেওয়া হয়। ৫টি ম্যাচ পর্যন্ত বেঞ্চে বসার পর আগামী সিরিজে তাকে বাদ দেওয়া হয়। করুণ নায়ার এরপর এমসকে প্রসাদের উপর বাদ দেওয়ার কারণ না জানানোর অভিযোগ করেন। ঠিক এমনই অভিযোগ ওপেনিং ব্যাটসম্যান মুরলী বিজয় আর জোরে বোলার শার্দূল ঠাকুরও করেছিলেন।

তরুণ খেলোয়াড়দের কেরিয়ার নিয়ে খেলা

নির্বাচক প্রধান এমএসকে প্রসাদকে বোঝা মুশকিলই নয় অসম্ভব, তার এই সিদ্ধান্তগুলি দিচ্ছে প্রমান 5

এমএসকে প্রসাদ বেশ কিছু তরুণ খেলোয়াড়দের দলে শামিল করেছেন কিন্তু কোনো সুযোগ না দিয়েই তাদের বাদ দেওয়া হয়েছে। ওয়েস্টইন্ডিজের বিরুদ্ধে গত বছর টি-২০ সিরিজের জন্য শাহবাজ নদীমকে দলে শামিল করা হয় কিন্তু তাকে কোনো সুযোগ না দিয়েই বাদ দেওয়া হয়েছিল। নদীপ ছাড়াও দীপক হুডা আর বেসিল থাম্পীর মত খেলোয়াদেরও দলে নির্বাচিত করা হয় কিন্তু কোনো সুযোগ না দিয়েই বাদ দেওয়া হয়। অক্ষর প্যাটেলও লাগাতার ওয়ানডে দলের অংশ ছিলেন আর এশিয়া কাপে তিনি আহত হয়ে যান। এরপর থেকে এখনো তাকে সুযোগ দেওয়া হয়নি।

আইয়ার-মারকাণ্ডে সম্পূর্ণ সুযোগ দেওয়া হয়নি

নির্বাচক প্রধান এমএসকে প্রসাদকে বোঝা মুশকিলই নয় অসম্ভব, তার এই সিদ্ধান্তগুলি দিচ্ছে প্রমান 6

ময়ঙ্ক মারকান্ডেকে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে টি-২০ সিরিজে সুযোগ দেওয়া হয়। এক ম্যাচে ময়ঙ্ক সুযোগ পান আর এখন তাকেও বাদ দিয়ে রাহুল চাহারকে টি-২০ দলে শামিল করা হয়। শ্রেয়স আইয়ার ভারতের হয়ে ৬টি ওয়ানডেতে ৪২ গড়ে রান করেছেন কিন্তু তাকেও দল থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। বিশ্বকাপের আগে আম্বাতি রায়ডুকে লাগাতার চার নম্বরে রান করছিলেন কিন্তু তাকে বিশ্বকাপে দলে জায়গা দেওয়া হয়নি।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *