দেশের পরোয়া না করেই মানুষের চাপে কী অবসর নিলেন মাহী?

গত এক বছর ধরে ক্রিকেটের অলিতে গলিতে এমএস ধোনির ভবিষ্যত নিয়ে আলোচনা হচ্ছিল। কিন্তু শনিবার স্বাধীনতা দিবসে মাহী অবসর ঘোষণা করে সকলের প্রশ্নের জবাব দিয়েছেন। এমএস এর অবসরের সিদ্ধান্ত নিশ্চিতভাবেই টিম ইন্ডিয়ার মুশকিল বাড়িয়ে দিয়েছে। কিন্তু এখন ক্রিকেট সমর্থকদের মধে একটি প্রশ্ন অবশ্যই উঠবে যে এমএস কী সত্যিই দেশের পরোয়া না করে চাপের মুখে পড়েই অবসর ঘোষণা করলেন?

দেশের হয়ে খেলা উচিৎ ছিল আরও ক্রিকেট?

দেশের পরোয়া না করেই মানুষের চাপে কী অবসর নিলেন মাহী? 1

ভারতীয় ক্রিকেট দলের সবচেয়ে সফল অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি শনিবার ৭.২৯মিনিটে নিজের অবসরের অফিসিয়াল ঘোষণা করে দিয়েছেন। এখন সমর্থকদের মনে প্রশ্ন উঠবে যে মাহী কী এই সিদ্ধান্ত চাপের মুখে পড়ে নিয়েছেন? আসলে গত এক বছর ধরে ক্রিকেটের জগতে লাগাতার মাহির ভবিষ্যত নিয়ে আলোচনা চলছিল। কারও বক্তব্য ছিল যে মাহির অবসর নিয়ে ফেলা উচিৎ, তো অন্যদিকে কিছু মানুষের মত ছিল যে এখনও টিম ইন্ডিয়ার মাহিকে প্রয়োজন। এমনিতে ধোনি কোনো বয়ান দেননি। কিন্তু ক্রিকেট পন্ডিতদের কথা মানা হলে মাহি এই সিদ্ধান্ত আইসিসি বিশ্বকাপ ২০২০র স্থগিত হওয়ার কারণেই নিয়েছেন।
কারণ এখন আইসিসি টি-২০ বিশ্বকাপ ২০২১ এ খেলা হবে। যদি মাহিকে বিশ্বকাপে অংশ নিতে হয় তো তাকে এক বছরের বেশি সময় অপেক্ষা করতে হবে। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতিতে সেটা সম্ভব দেখাচ্ছে না। এই কারণে মাহি স্বাধীনতা দিবসের দিন অবসরের ঘোষণা করে পরিস্কার করে দিয়েছেন যে এখন টিম ইন্ডিয়ার কাছে মাহির ফিরে আসার বিকল্প নেই।

আগেও মাহি হঠাত করে নিয়েছেন বড়ো সিদ্ধান্ত

ভিডিয়ো: চেন্নাইয়ের জন্য খেলোয়াড়দের সঙ্গে রওনা হলেন এমএস ধোনি, কাল থেকে শুরু করবেন প্র্যাকটিস

এমএস ধোনি নিজের খেলা ছাড়াও অনিশ্চয়তার কারণে জনপ্রিয়। কেউ বলতে পারেন না যে মাহী কী করবেন বা করতে পারেন। এর বেশকিছু উদাহরণ মাহি ক্রিকেট মাঠে দিয়েছেন। নিজের ক্রিকেট কেরিয়ারে তিনি হঠাত করেই বেশিকিছু সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। ২০১৪য় অস্ট্রেলিয়া সফরে খেলা হওয়া তৃতীয় টেস্ট ম্যাচের পর মাহি হঠাত করে অবসর নিয়ে সকলকে চমকে দিয়েছিলেন। এরপর ২০১৭য় মাহি অধিনায়কত্ব ছাড়ার সিদ্ধান্তও তাড়াতাড়ি নিয়েছিলেন, যারপর সকলেই অবাক হয়ে গিয়েছিলেন। এই কারণে এটা ভাবা ভুল হবে যে দেশের ব্যাপারে না ভেবেই তিনি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। বরং তিনি এই সময় অবসর ঘোষণা করে তার প্রত্যাবর্তনের আশা শেষ করে দিয়েছেন যাতে এখন টিম ম্যানেজমেন্ট আরও ভালোকরে দলের জন্য পরবর্তী উইকেটকিপার তৈরি করতে পারে আর এক্সপেরিমেন্ট করা কম করতে পারে।

ধোনি হঠাত করেই নিয়েছেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর

গত এক বছর ধরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে দূরে থাকা এমএস ধোনি শনিবার অবসর ঘোষণা করে দেন। এর জন্য মাহি নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে ৪ মিনিট ৭ সেকেন্ডের একটি ভিডিয়ো শেয়ার করেছেন, যে ভিডিয়োতে নিজের ক্রিকেট জীবনের নানা ছবি দিয়ে সাজিয়ে ব্যাকগ্রাউন্ডে ‘ম্যায় পল দো পল কা সাথি হু, পল দো পল মেরি হস্তি হ্যায়’ গানও রেখেছেন।
সেই সঙ্গে তিনি ক্যাপশনে লিখেছেন – আপনাদের সকলের ভালোবাসা আর সমর্থনের জন্য ধন্যবাদ। এখন ৭.২৯ মিনিট থেকে আমাকে রিটায়ার ধরে নিন”। মাহির সঙ্গে অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান সুরেশ রায়নাও ৩৩ বছর বয়সেই অবসর ঘোষণা করেছেন। যদিও তার এখনও দলে প্রত্যাবর্তনের সুযোগ থাকলেও থাকতে পারত।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *