আইপিএলের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি নো বল করার লজ্জাজনক রেকর্ড এই ভারতীয়র নামে 1

বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ফ্রেঞ্চাইজি লীগের ত্রয়োদশ মরশুম করোনা ভাইরাসের কারণে অনিশ্চিতকালের জন্য স্থগিত করে দেওয়া হয়েছে। এখনো পর্যন্ত আইপিএলের ১২টি মরশুম খেলা হয়ে গিয়েছে। তো আপনারা কী জানেন যে আইপিএলে এখনো পর্যন্ত খেলা কোন বোলার সবচেয়ে বেশি নো বল করেছে? তো আসুন আমরা এই বিশেষ প্রতিবেদনে আপনাদের সেই বোলারের ব্যাপারে জানাই যিনি আইপিএলে সবচেয়ে বেশি নো বল করেছেন।

শ্রীসন্থ করেছেন সবচেয়ে বেশি নো বল

আইপিএলের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি নো বল করার লজ্জাজনক রেকর্ড এই ভারতীয়র নামে 2

আইপিএলে একদিকে ব্যাটসম্যানরা প্রতিটি বলেই বড়ো শট খেলার জন্য তৈরি থাকেন। তো অন্যদিকে বোলাররাও উইকেটের সন্ধানে থাকেন। কিন্তু কখনো কখনো চাপে পড়ে বোলার নো বল করে ফেলেন। এখনো পর্যন্ত আইপিএলের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি নো বল করা বোলার হলেন এস শ্রীসন্থ। হ্যাঁ, শ্রীসন্থ ২০০৮ থেকে ২০১৩ পর্যন্ত ৫টি আইপিএল মরশুম খেলেছেন আর এর মধ্যে তিনি ২৭টি নো বল করেছেন। শ্রীসন্থ নিজের কেরিয়ারের শুরু ২০০৮ এ কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব দলের হয়ে করেছিলেন। ২০০৮,২০০৯ আর ২০১০এ পাঞ্জাবের হয়ে খেলার পর এই জোরে বোলারকে ২০১১য় কোচি টক্কর্স কিনে নেয়। তারপর ২০১২-১৩য় শ্রীসন্থ রাজস্থান রয়্যালসের হয়ে খেলেন। কিন্তু ২০১৩য় ম্যাচ ফিক্সিংয়ে ফাঁসার পর থেকে এই জোরে বোলারের কেরিয়ারে বিরাম লেগে গিয়েছে।

বুমরাহ করেছেন আইপিএলে ২১টি নো বল

আইপিএলের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি নো বল করার লজ্জাজনক রেকর্ড এই ভারতীয়র নামে 3

আইপিএল ইতিহাসের সবচেয়ে সফল ফ্রেঞ্চাইজি মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের ম্যাচ উইনার বোলার জসপ্রীত বুমরাহও সেই খেলোয়াড় তালিকায় দ্বিতীয় নম্বরে রয়েছেন আরা আইপিএলে সবচেয়ে বেশি নো বল করেছেন। বুমরাহ ২০১৩ থেকে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে ডেবিউ করেন আর তিনি দলের একজন ম্যাচ উইনার খেলোয়াড়ও। বুমরাহ এখনো পর্যন্ত খেলা ৭টি মরশুমে মোট ২১টি নো বল করেছেন। এরপর এই লিস্টে ২০টি করে নো বল নিয়ে রয়েছেন অমিত মিশ্রা এবং লাসিথ মালিঙ্গা। লাসিথ মালিঙ্গা মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের ম্যাচ উইনার অলেয়ার। তো অন্যদিকে আইপিএল ২০২০র নিলামে তাকে চেন্নাই সুপার কিংস নিজেদের দলে শামিল করে নিয়েছে।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *