বিশ্বরেকর্ড করা ভারতীয় ক্রিকেটার গ্রেপ্তার, এই কারণে পুলিশ পাঠাল জেলে

ভারতে ক্রিকেটকে একটা ধর্মের মতই মনে করা হয় আর খেলোয়াড়দের ভগবানের মত পুজো করা হয়। ক্রিকেটকে ভারতীয়রা যতটা ভালবাসে ততটা সম্ভবত বিশ্বের আর কোনো দেশে ভালবাসা হয়না। ক্রিকেটকে জেন্টলম্যান গেম হিসেবেও মনে করা হয় কিন্তু আসলে কিছু ক্রিকেট খেলোয়ায়ড় ক্রিকেটের মত পরিস্কার ছবিওয়ালা খেলাকেও খারাপ করেন।
মাঠে অভদ্র ব্যবহার, খেলা চলাকালীন বল ট্যাম্পারিং হোক বা ম্যাচ ফিক্সিং বা মাঠের বাইরে সেক্স স্ক্যান্ড হোক এমন বেশ কিছু কারণে ক্রিকেট বিতর্কে চলে আসে। এমনই আরো একটা বিতর্কে ক্রিকেটের নামে কলঙ্ক লেগে গিয়েছে।

এমএসকে প্রসাদের নামে প্রতারণা করতে ধরা পড়লেন ভারতীয় ক্রিকেটার

বিশ্বরেকর্ড করা ভারতীয় ক্রিকেটার গ্রেপ্তার, এই কারণে পুলিশ পাঠাল জেলে 1

বিজয়ওয়ারা সিটি পুলিশ বৃহস্পতিবার একটি অভিযোগের ভিত্তিতে গভর্নম এয়ারপোর্টের কাছ থেকে রঞ্জি ক্রিকেটার বুডুমুর নাগরাজুকে গ্রেপ্তার করেছে। নাগরাজুর উপর অভিযোগ রয়েছে যে তিনি ভারতীয় দলের নির্বাচক প্রধান এমএসকে প্রসাদ সেজে লোকের সঙ্গে প্রতারণা করতেন। তিনি এমএসকে প্রসাদের নামে মানুষকে ফোন করতেন আর তাকে দলে জায়গা দেওয়ার লোভ দেখিয়ে কিছু টাকা হাসিল করতেন।

৮২ ঘন্টা নেট প্র্যাকটিস করার করেছিলেন বিশ্বরেকর্ড

বিশ্বরেকর্ড করা ভারতীয় ক্রিকেটার গ্রেপ্তার, এই কারণে পুলিশ পাঠাল জেলে 2

পুলিশের অনুসারে নাগরাজু শ্রীকাকুলামের পোলাকি মণ্ডলে ইওরভিপেটার বাসিন্দা। বর্তমানে তিনি বিশাখাপট্টনমের মধুরওয়ারাতে থাকেন।
জানিয়ে দিই যে নিউজ ১৮এর একটি রিপোর্টের মোতাবেক বুডুমুর নাগরাজু ২০১৪য় রঞ্জি ট্রফিতে অন্ধ্রপ্রদেশের দলের প্রতিনিধিত্ব করেছিলেন। তিনি সাউথ জোন (২০১১) আর সেন্ট্রালজোন (২০১৩)সহ বেশ কিছু রঞ্জি টুর্নামেন্ট খেলেছেন। এই রিপোর্টের মোতাবেক ২০১৬ সালে তিনি নেটে অবিশ্বসনীয় ৮২ ঘন্টা খেলার পর সবচেয়ে দীর্ঘসময় পর্যন্ত ব্যক্তিগত নেট প্র্যাকটিসের রেকর্ড গড়েছিলেন আর নিজের নাম গিনেশ বুকে তুলেছিলেন।

Leave a comment

Your email address will not be published.