টি-২০ সিরিজে বিরাট কোহলির না থাকা নিয়ে এই বড়ো বয়ান দিলেন বাংলাদেশের প্লেয়ার লিটন দাস

বাংলাদেশের বিরুদ্ধে টি-২০ সিরিজের জন্য বিরাট কোহলিকে বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে। বিরাট কোহলি গত কিছু সময় ধরে লাগাতার ক্রিকেট খেলছেন। আর এটা মাথায় রেখেই তাকে বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে। তিনি টেস্ট সিরিজের জন্য দলে যোগ দেবেন। তার অনুপস্থিতিতে দলের অধিনায়কত্ব রোহিত শর্মাকে দেওয়া হয়েছে। যা নিয়ে লিটন দাস একটি বয়ান দিয়েছেন।

বিরাট কোহলি থাকবেন না টি-২০ সিরিজে দলের অধিনায়ক

টি-২০ সিরিজে বিরাট কোহলির না থাকা নিয়ে এই বড়ো বয়ান দিলেন বাংলাদেশের প্লেয়ার লিটন দাস 1

ভারতকে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ৩ নভেম্বর থেকে তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজ খেলতে হবে। এই সীমিত ওভারের সিরিজে বিরাট কোহলির জায়গায় রোহিত শর্মাকে সুযোগ দেওয়া হয়েছে। নতুন দিল্লির অরুণ জেটলি ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টি-২০ সিরিজের ওপেনিং ম্যাচের আগে বিরাট কোহলির সিরিজে অনুপস্থিতি নিয়ে বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের মনে অন্য কথা ছিল। বাংলাদেশের ব্যাটসম্যান লিটন দাস বৃহস্পতিবার বাংলাদেশের প্রথম প্র্যাকটিস সেশনের পর বলেন, “এটা বাস্তবে কোনো গুরুত্ব রাখে না য কোহলি এই ম্যাচে খেলছেন কি না”।
কোহলিএ ই বছর নন স্টপ ক্রিকেট খেলছলেন যার মধ্যে একটি অস্ট্রেলিয়ার সফর, আইপিএল আর একদিনের বিশ্বকাপ শামিল ছিল। ভারতের অধিনায়ককে ওয়েস্টইন্ডিজ সফরের পরে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে সীমিত ওভারের ক্রিকেট থেকে বিশ্রাম নিতে হত, কিন্তু শেষ মুহূর্তে বিরাট নিজের সিদ্ধান্ত বদলান এবং দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে খেলেন। শেষপর্যন্ত বিরাট কোহলির ওয়ার্কলোড দেখে নির্বাচকরা সিদ্ধান্ত নেন আর বাংলাদেশের বিরুদ্ধে কোহলিকে বিশ্রাম দিয়ে রোহিত শর্মাকে অধিনায়ক করা হয়। যা নিয়ে লিটন দাস বলেন,

“যদি ও বিশ্রাম নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে তো এর একটা কারণ হওয়া উচিৎ, আমরা এই বিষয়ে চিন্তিত নই। প্রথেক খেলোয়াড়ের দেখভাল করার জন্য তার নিজের শরীর থাকে। আর এমনটা নয় যে ভারত ও অনুপস্থিতিতে কমজোর হয়ে গিয়েছে। ওদের দলে বেশকিছু ভালো খেলোয়াড় হয়েছে”।

লিটন দাস দিলেন নিজের প্রতিক্রিয়া

টি-২০ সিরিজে বিরাট কোহলির না থাকা নিয়ে এই বড়ো বয়ান দিলেন বাংলাদেশের প্লেয়ার লিটন দাস 2

বাংলাদেশে উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান লিটন দাসকে এটা বলতে গিয়ে বাস্তবে দুঃখী দেখিয়েছে যে তাদের দল প্রধান খেলোয়াড়দেরও স্মরণ করছে। যখন তাকে প্রশ্ন করা হয় যে কোহলির অনুপস্থিতিতে তাদের সুযোগ বেশি থাকবে কিনা তো এর জবাবে তিনি বলেন,

“আমরা এই সিরিজে অবশ্যই নামছি কিন্তু আমাদের দলের খেলোয়াড়দের কোথাও না কোথায় আমাদের অভিজ্ঞ খেলোয়াড়দের অভাব অনুভূত হবে। ম্যাচে এটা গুরুত্ব রাখে না যে বিরাট কোহলি খেলছেন কি না”।

প্রসঙ্গত বাংলাদেশ এই সিরিজে তামিম ইকবাল আর সাকিব আল হাসানকে ছাড়াই মাঠে নামছে। যদিও তামিম ইকবাল ব্যক্তিগত কারণে এই সিরিজ থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন কিন্তু সাকিবকে এসিইউ বুকিদের দ্বারা তাকে যোগাযোগের তথ্য না দেওয়ার কারণে ২ বছরের জন্য ব্যান করা হয়েছে।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *