ভারতের একমাত্র ক্রিকেটার, যিনি পুলিশ ইনস্পেকটর মেয়ের প্রেমে পড়ে তাকেই বিয়ে করে নেন

বর্তমান ভারতীয় দলে বেশ কিছু এমন ক্রিকেটার আছেন যারা বিয়ে করে নিজেদের বিবাহিত জীবনে সেটল করে গিয়েছেন। গত বছরেরই ১১ই ডিসেম্বর ভারতীয় দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলিবলিউড অভিনেত্রী অনুষ্কা শর্মাকে বিয়ে করেছিলেন। গত দু’তিন বছর বেশ কিছু ভারতীয় ক্রিকেটারই বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন। যার মধ্যে বিরাট কোহলি, রোহিত শর্মা এবং যুবরাজ সিংয়ের মত তারকারাও রয়েছেন।

এই ভারতীয় ক্রিকেটারের স্ত্রী পুলিশ ইনস্পেকটর
ভারতের একমাত্র ক্রিকেটার, যিনি পুলিশ ইনস্পেকটর মেয়ের প্রেমে পড়ে তাকেই বিয়ে করে নেন 1
আমাদের এই প্রতিবেদনে আজ আমরা আপনাদের এমন এক ভারতীয় ক্রিকেটারের নাম জানাব যিনি একজন পুলিশ অফিসারের প্রেমে পড়ে তাকেই বিয়ে করেন। ভারতীয় ক্রিকেটার পরবিন্দর আওয়ানা একজন পুলিশ ইনস্পেকটরকে বিয়ে করেছেন।
ভারতের একমাত্র ক্রিকেটার, যিনি পুলিশ ইনস্পেকটর মেয়ের প্রেমে পড়ে তাকেই বিয়ে করে নেন 2
প্রসঙ্গত পরবিন্দরের বিয়ে ২০১৮র ৬ই মার্চ অনুষ্ঠিত হয়েছে এবং তিনি দিল্লি পুলিশে কর্মরত এক মহিলা পুলিশ ইনস্পেকটরকে বিয়ে করেছেন। তার স্ত্রীর নাম সঙ্গীতা কাসানা।
ভারতের একমাত্র ক্রিকেটার, যিনি পুলিশ ইনস্পেকটর মেয়ের প্রেমে পড়ে তাকেই বিয়ে করে নেন 3
ভারতের হয়ে খেলেছেন মাত্র ২টি টি২০

আপনাদের জানিয়ে রাখা ভাল যে ভারতীয় দলের হয়ে পরবিন্দর আওয়ানার ক্রিকেট কেরিয়ার এমন কিছু বিশেষ ছিল না। তিনি ভারতীয় দলের হয়ে মাত্র ২টি টি২০ ম্যাচই খেলেছেন। ওই দুটি ম্যাচে তিনি ১১.৮৩ ইকোনমি রেটে রান দিয়েছেন। তিনি ভারতীয় দলের হয়ে খেলে একটিও উইকেট পান নি। যদিও আওয়ানার আইপিএল রেকর্ড দুর্দান্ত।
ভারতের একমাত্র ক্রিকেটার, যিনি পুলিশ ইনস্পেকটর মেয়ের প্রেমে পড়ে তাকেই বিয়ে করে নেন 4
তিনি আইপিএলে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের হয়ে খেলেছেন। তিনি মোট ৩৩টি আইপিএল ম্যাচ খেলেছেন। যার মধ্যে তিনি ৮.২৭ ইকোনমি রেটে ৩৯টি উইকেট নিয়েছেন। এছাড়াও পরবিন্দর আওয়ানা ঘরোয়া ক্রিকেটে দিল্লির হয়েও যথেষ্ট সফল হয়েছেন। তিনি দিল্লির হয়ে মোট ৬২টি প্রথম শ্রেনীর ম্যাচে ১৯১টি উইকেট নিয়েছেন। বর্তমানে নিজের ক্রিকেট কেরিয়ারকে বাঁচানোর জন্য তিনি যথেষ্ট সংঘর্ষ করে চলেছেন।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *