ঋদ্ধিমান সাহা দ্রুত হতে পারেন ভারতীয় দল থেকে বাদ, এই তিন উইকেটকীপার ব্যাটসম্যান হতে পারেন ঋদ্ধির জায়গার প্রবল দাবীদার 1
ছবি সৌজন্যে বিসিসিআই

ভারতীয় টেস্ট দল থেকে মহেন্দ্র সিং ধোনি অবসর নেওয়ার পর, একজন স্থায়ী উইকেটকীপারের খোঁজ এখনও পর্যন্ত শেষ হয় নি। যদিও বর্তমানে ঋদ্ধিমান সাহা সেই ভূমিকা পালন করে চলেছেন। উইকেটকীপার হিসেবে ঋদ্ধি অসাধারণ হলেও ব্যাটসম্যান হিসেবে তিনি খুবই সাধারণ। ব্যাটসম্যান হিসেবে ঋদ্ধি এখনও তেমন কিছু করে উঠতে পারেন নি। যার ফলে ভারতীয় ব্যাটিং লাইনআপ খানিকটা কমজোরি হয়ে পড়েছে। এখন প্রশ্ন উঠে পড়ছে যে এই মুহুর্তে এমন কোন কোন তরুণ উইকেটকীপার আছেন যারা টেস্ট দলে ঋদ্ধির জায়গা নিতে পারেন। একবার দেখে নেওয়া যাক।

১—লোকেশ রাহুল

ঋদ্ধিমান সাহা দ্রুত হতে পারেন ভারতীয় দল থেকে বাদ, এই তিন উইকেটকীপার ব্যাটসম্যান হতে পারেন ঋদ্ধির জায়গার প্রবল দাবীদার 2
ছবি সৌজন্যে বিসিসিআই

ভারতীয় দলের হাতে লোকেশ রাহুলের মত যথেষ্ট ভাল বিকল্প রয়েছে। রাহুল কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের হয়ে সম্পুর্ণ মরশুম উইকেটকীপিং করেছেন। এর আগে রাহুলকে একজন পার্টটাইম উইকেটকীপার হিসেবে ধরা হত। কিন্তু আইপিএলে দুরন্ত কিপিং করে তিনি দেখিয়ে দিয়েছেন যে তিনি ভারতীয় টেস্ট দলের উইকেটকীপারের যোগ্য দাবীদার। অন্যদিকে রাহুলের ব্যাটিংয়ের কথা বলতে গেলে তার সক্ষমতা আমরা আইপিএলে দেখে নিয়েছি। এই মরশুমের আইপিএলে রাহুল অন্যতম একজন টপ স্কোরার। রাহুল টেস্টেও যথেষ্ট ভাল টেকনিকের সঙ্গে ব্যাট করেন। এই কারণেই ঋদ্ধির পরিবর্ত হিসেবে সকলের আগে রয়েছেন রাহুল।

২—ঋষভ পন্থ

ঋদ্ধিমান সাহা দ্রুত হতে পারেন ভারতীয় দল থেকে বাদ, এই তিন উইকেটকীপার ব্যাটসম্যান হতে পারেন ঋদ্ধির জায়গার প্রবল দাবীদার 3
ছবি সৌজন্যে বিসিসিআই

দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের হয়ে আইপিএলের একাদশ সংস্করণ খেলা ঋষভ পন্থ এবার যথেষ্ট ভাল ব্যাটিং করেছেন। তিনি এই মরশুমে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান স্কোরার। এছাড়াও তিনি উইকেটকীপিংয়েও দুর্দান্ত। উইকেটকীপিংয়ে ওয়ান ডে দলে ধোনির পর পন্থই সঠিক বিকল্প হিসেবে নজরে রয়েছে। এই অবস্থায় পন্থ টেস্ট দলেও ঋদ্ধির জায়গা নেওয়ার যোগ্য দাবীদার হতে পারেন।

৩—সঞ্জু স্যামসন

ঋদ্ধিমান সাহা দ্রুত হতে পারেন ভারতীয় দল থেকে বাদ, এই তিন উইকেটকীপার ব্যাটসম্যান হতে পারেন ঋদ্ধির জায়গার প্রবল দাবীদার 4
ছবি সৌজন্যে বিসিসিআই

টেস্ট দলে ঋদ্ধির জায়গা সঞ্জু স্যামসনও নিতে পারেন। সঞ্জু ঘরোয়া ক্রিকেটে কেরলের হয়ে খেলে থাকেন। এবং ফর্মের দিক থেকেও তিনি ধারাবাহিক। ক্রমাগত রান করেন তিনি। সেই সঙ্গে আইপিএলেও যথেষ্ট রান করে নিজের নাম কামিয়েছেন তিনি। আইপিএলেও তিনি যথেষ্ট ধারাবাহিকতা দেখিয়েছেন।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *