শুভমান গিল এই খেলোয়াড়কে বললেন নিজের আদর্শ, বললেন এই বড়ো কথা

দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ৩ ম্যাচের টেস্ট সিরিজের জন্য ভারতীয় দলে তরুণ ব্যাটসম্যান শুভমান গলকে জায়গা দেওয়া হয়েছে। প্রায় দু বছর ধরে লাগাতার ফর্ম নিয়ে সংঘর্ষ করা কেএল রাহুলকে দল থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। তার জায়গাতেই শুভমান গিলকে প্রথমবার ভারতীয় টেস্ট দলে শামিল করা হয়েছে। ৭ বছর বয়েসেই এই খেলোয়াড়ের ক্রিকেটের ভুত মাথায় চেপেছিল, এরপর থেকে তিনি বেশ কিছু খেলোয়াড়কে নিজের রোল মডেল বানিয়েছেন, কিন্তু কারও কপি করার চেষ্টা করেননি।

শুভমান গিল বিরাট আর শচীনের কাছ থেকে শিখেছেন এই কৌশল

শুভমান গিল এই খেলোয়াড়কে বললেন নিজের আদর্শ, বললেন এই বড়ো কথা 1

২০০৭ এর বিশ্বকাপ দেখে শুভমান গিল ক্রিকেটকেই নিজের প্যাশন বানিয়ে ফেলেছিলেন, এই ম্যাচের শচীনের স্ট্রেট শট তার জন্য প্রেরণা হয়ে যায়। শুভমান জানিয়েছেন যে সেই সময় তার অনেক কিছু মনে ছিল না, কিন্তু তিনি কখনোই শচীনের ওই শটটি ভোলেননি। সেখান থেকেই তিনি নিজের কেরিয়ারের শুরু করেছিলেন। অন্যদিকে দিকে যেমন যেমন শুভমান এগিয়েছেন আর তার ক্রিকেট সফর এগিয়েছে তেমনই তেমনই তার কভার ড্রাইভের স্টাইল বিরাট কোহলির মত হয়ে গিয়েছে। শুভমান আগে বলেন,

“আমার কাছে আমার রোল মডেলরা রয়েছে, আমি বিরাট ভাইয়ের কাছ থেকে তার স্কিলস শিখি, আমি জানি যে প্রত্যেক খেলোয়াড় আলাদা হন এই অবস্থায় আমি কাউকেই পুরো কপি করি না। আমি জানি যে আমিও প্রথম বলে এসেই বড়ো শট খেলতে পারি, কিন্তু আমি লম্বা ইনিংস খেলতেও জানি, এই সব শটস খেলা ম্যাচের পরিস্থিতির উপর নির্ভর করে”।

যুবরাজ সিং আর রাহুল দ্রাবিড়কে দেন শ্রেয়

শুভমান গিল এই খেলোয়াড়কে বললেন নিজের আদর্শ, বললেন এই বড়ো কথা 2

এরপর শুভমান জানিয়েছেন যে কিভাবে ১৭ বছর বয়েসে তার ভেতর ক্রিকেট নিয়ে পরিবর্তন এসেছে। যে সময় শুভমান পাঞ্জাবের দলের হয়ে খেলার সুযোগ পান সেই সময় তার সাক্ষাত ২০০৭ বিশ্বকাপের হিরো হরভজন সিং আর যুবরাজ সিংয়ের সঙ্গে হয়, যাদের কাছে গিল অনেক কিছু শিখতে পেয়েছেন। তিনি বলেন,

“ওদের সঙ্গে সাক্ষাতের পর, আমি বেশি উৎসুক হতে চাইতাম না, ওরা আমাকে অনেক সাহায্য করেছেন, যুবি পাজি আমার প্রেরণাস্রোত, ওনার ক্রিকেট কেরিয়ায়র, ওর রোগ থেকে সুস্থ হয়ে ওঠার প্যাশন, আর খেলার জন্য ওনার দৃষ্টিকোন এই সব আমার জন্য একজন দুর্দান্ত খেলোয়াড় হওয়ার জন্য প্রেরণাদায়ক”।

অন্যদিকে রাহুল দ্রাবিড় গত দু বছর ধরে শুভমান গিলের সঙ্গে রয়েছেন, গিলের পার্সোনালিটি ডেভলপমেন্ট থেকে শুরু ক্রএ তার ক্রিকেট ট্রিক্সের উন্নতির পুরো শ্রেয় রাহুল দ্রাবিড়ের। শুভমান আগে বলেন,

“রাহুল স্যার সবসময় আমাকে একজন ভাল মানুষ গড়ার চেষ্টা করেছেন। আমি এখনো পর্যন্ত নিজের ক্লাস ১২ এর পরীক্ষা দিতে পারিনি, কারণ আমি ক্রিকেটে ফেঁসে ছিলাম, কিন্তু আমি চাই যে আমি নিজের বেসিক শিক্ষা পূর্ণ করি”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *