মহেন্দ্র সিং ধোনির ২০১২ সালে করা রোটেশন পলিসি নিয়ে গৌতমগম্ভীর ৬ বছর বাদে খুললেন মুখ

ভারতীয় ক্রিকেট দলের প্রাক্তণ অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি নিজের অধিনায়কত্ব পুরো দুনিয়ার কাছে প্রমান করেছেন। মহেন্দ্র সিং ধোনি বিশ্বক্রিকেটের মহান অধিনায়কদের মধ্যে একজন। এমএস ধোনি নিজের অধিনায়কত্বে বেশ কয়েকবার সকলকে চমকে দিয়ে বড়ো অন্য ধরণের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

মহেন্দ্র সিং ধোনির অস্ট্রেলিয়া সফরে শুরু হয় রোটেশন পলিসি

মহেন্দ্র সিং ধোনির অধিনায়কত্বে ২০১২ সালে অস্ট্রেলিয়া সফরে বড়োই চমকে দেওয়ার মতো সিদ্ধান্ত ছিল রোটেশন পলিসি… এই সিদ্ধান্ত মহেন্দ্র সিং ধোনি অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে সিবি সিরিজ চলাকালীণ নিয়েছিলেন।
মহেন্দ্র সিং ধোনির ২০১২ সালে করা রোটেশন পলিসি নিয়ে গৌতমগম্ভীর ৬ বছর বাদে খুললেন মুখ 1
যেখানে শচীন তেন্ডুলকর, গৌতম গম্ভীর আর বীরেন্দ্র সেহবাগকে রোটেশন পদ্ধিতির মাধ্যমে সুযোগ দেওয়া হয়েছিল। যেখানে ধোনি এটা পরিস্কার করে দিয়েছিলেন যে এই তিন খেলোয়াড়কে এক সঙ্গে প্রথম একাদশে সুযোগ দেওয়া হবেনা।

গৌতম গম্ভীর রোটেশন পলিসি নিয়ে নিজের মুখ খুললেন

এই রোটেশন পদ্ধতির মাধ্যমে গৌতম গম্ভীর আর শচীন তেন্ডুলকর যেখানে ৭টি ম্যাচ খেলার সুযোগ পান, সেখানে বীরেন্দ্র সেহবাগ ৫টি ম্যাচে সুযোগ পান।এই সিরিজে গৌতম গম্ভীর ভারতের হয়ে দ্বিতীয় সবচেয়ে বেশি ৩০৮ রান করেন। অন্যদিকে শচীন ১৪৩ আর সেহবাগ ৬৫ রান করেছিলেন।
মহেন্দ্র সিং ধোনির ২০১২ সালে করা রোটেশন পলিসি নিয়ে গৌতমগম্ভীর ৬ বছর বাদে খুললেন মুখ 2
সম্প্রতি ক্রিকেট থেকে অবসর নেওয়া গম্ভীর এই কথার উল্লেখ করেন আর রোটেশন পলিসি নিয়ে বলেন যে, “২০১২ সালে অস্ট্রেলিয়া খেলা ত্রিকোণীয় সিরিজ চলাকালীণ ধোনির সিদ্ধান্ত নেয় যে ও আমাদের তিনজনকে একসঙ্গে বিশ্বকাপ ২০১৫কে মাথায় রেখে রাখতে পারবে না”।

অস্ট্রেলিয়ায় আমদের তিনজনকে ধোনি একসঙ্গে রাখতে চান না

গম্ভীর আরো বলেন, “ এটা ভীষণই বড়ো ধাক্কা ছিল। আমার মনে হয় যে এটা যে কোনো ক্রিকেটারের জন্যই বড়ো ধাক্কা হতে পারে। আমি ২০১২য় কোনো খেলোয়াড়কেই বলি নি যে ২০১৫ বিশ্বকাপএর দলে দলের অংশ হবেনা। আমি সবসময়ই নিজের সঙ্গে এই ধারণা রেখেছি যে যদি আপনি রান করেন তো বয়স খালি একটি সংখ্যা”।
মহেন্দ্র সিং ধোনির ২০১২ সালে করা রোটেশন পলিসি নিয়ে গৌতমগম্ভীর ৬ বছর বাদে খুললেন মুখ 3
গম্ভীর আগে বলেন যে, “যদি আপনি কৌশলের সঙ্গে রান করতে থাকেন তো আপনাকে মাঠে কারো দয়ার প্রয়োজনহয়না, আপনি যতক্ষন চান খেলতে পারেন। কিন্তু এটা আমাদের সবসময়ই বলা হয়েছিল এমনকী অস্ট্রেলিয়াতেও বলা হয়ে হয়েছিল যে আমরা তিনজন একসঙ্গে খেলতে পারবনা”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *