রোহিত শর্মাকে টেস্ট দলে ওপেনার হিসেবে জায়গা দেওয়ায় প্রাক্তন এই ভারতীয় তুললেন প্রশ্ন

ওয়ানডে আর টি-২০তে ভারতীয় দলের হয়ে ওপেনিং করা রোহিত শর্মাকে টেস্ট দলে ওপেনার হিসেবে সুযোগ দেওয়া হয়েছে। কেএল রাহুলের লাগাতার ফ্লপ হওয়ার পর রোহিত এই সুযোগ পেয়েছেন। ওয়েস্টইন্ডিজের বিরুদ্ধে সিরিজে রোহিত দলের অংশ ছিলেন কিন্তু তাকে একটিও ম্যাচ খেলার সুযোগ দেওয়া হয়নি। একদিনে যেখানে সমস্ত খেলোয়াড় রোহিতকে টেস্ট ওপেনার হিসেবে সমর্থন করছেন অন্যদিকে এই প্রাক্তন খেলোয়াড়ের রায় সকলের চেয়ে আলাদা।

রোহিত শর্মার উপর দেখানো হয়েছে ভরসা

রোহিত শর্মাকে টেস্ট দলে ওপেনার হিসেবে জায়গা দেওয়ায় প্রাক্তন এই ভারতীয় তুললেন প্রশ্ন 1

যখন দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজের জন্য ভারতীয় দলের ঘোষণা করা হয়েছিল, তো নির্বাচক প্রধান এমএসকে প্রসাদ স্পষ্ট করে দিয়েছিলেন যে তিনি রোহিত শর্মাকে টেস্ট ক্রিকেটে একজন বিশেষজ্ঞ ওপেনিং ব্যাটসম্যান হিসেবে দেখছেন আর তিনি রোহিতকে একটা লম্বা ইনিংস দেওয়ার জন্য তৈরি ছিলেন। কেএল রাহুলের এই ক্রমে শীর্ষে ব্যাট করতে যথেষ্ট সমস্যা হচ্ছিল যার কারণে নির্বাচকরা এখন রোহিত শর্মাকে টেস্ট ক্রিকেটে ওপেনিং ব্যাটসম্যানদের দীর্ঘ সময় ধরে চলে আসা সমস্যার সমাধান করার জন্য সুযোগ দিয়েছেন। ভারতকে ৩ ম্যাচের টেস্ট সিরিজের দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে মুখোমুখি হতে হবে। বর্তমানে ভারতীয় দল বিশ্বটেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে ১২০ পয়েন্ট নিতে এক নম্বরে রয়েছে।

নয়ন মোঙ্গিয়া মানতে পারছেন না এই সিদ্ধান্ত

রোহিত শর্মাকে টেস্ট দলে ওপেনার হিসেবে জায়গা দেওয়ায় প্রাক্তন এই ভারতীয় তুললেন প্রশ্ন 2

একদিকে যেখানে রোহিত শর্মা সৌরভ গাঙ্গুলী আর ভিভিএস লক্ষ্মণের সমর্থন পেয়েছেন যেখেন প্রাক্তন ভারতীয় উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান নয়ন মোঙ্গিয়ার মতে এই নতুন সিদ্ধান্ত একদমই সফল হবে না। নয়ন মোঙ্গিয়ার মনে হয়ছে যে প্রিয়াঙ্ক পাঞ্চাল আর অভিমন্যু ঈশ্বরণকে দলে সুযোগ দেওয়া উচিৎ ছিল কারণ গত কিছুদিন ধরে এই দুজন প্লেয়ার লাগাতার ঘরোয়া ক্রিকেটে দুর্দান্ত প্রদর্শন করছেন।
নয়ন মোঙ্গিয়া নির্বাচকদের প্রশ্ন করেছেন,

“আপনারা ওপেনার হিসেবে এক সেশনে ১০০০-৮০০ রানকারীদের কেন সুযোগ দেননি? পাঞ্চাল আর ঈশ্বরণের ঘরোয়ার ক্রিকেটে গড় ৫০-৬০। ওরা কবে সুযোগ পাবে?”

রোহিতের জন্য নয়ন মোঙ্গিয়া বলেছেন,

“উইকেটকিপিংয়ের মতই ওপেনিং একটা বিশেষ কাজ। ও সীমিত ওভারের ক্রিকেটে ওপেনিং করছে, কিন্তু টেস্ট ক্রিকেটে ওকে নিজের মানসিকতায় যথেষ্ট পরিবর্তন করতে হবে, সীমিত ওভারের ক্রিকেটে ও যা কিছুই করে, তেমনটাই ওকে টেস্ট ক্রিকেটেও করতে হবে। ওকে টেস্ট ক্রিকেটের অনুসারে নিজের খেলাকে বদলানোর পরিবর্তে নিজের মজবুতির উপর ধ্যান দিতে হবে। যদি ও টেস্টের জন্য নিজের খেলায় পরিবর্তন করে তো তার প্রভাব ওর সীমিত ওভারের খেলাতেও দেখতে পাওয়া যাবে”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *