ভারত পেয়ে গিয়েছে ধোনির উত্তরাধিকারী, ঘরোয়া ক্রিকেট করছেন রান বৃষ্টি, স্বয়ং মাহিও এর বুদ্ধিতে ঘায়েল

ভারতীয় ক্রিকেট দলের প্রাক্তন অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি বেশকিছু খেলোয়াড়দের ভবিষ্যত বলেছেন। ভারতীয় ক্রিকেটের বেশ কিছু খেলোয়াড়কে মহেন্দ্র সিং ধোনির মার্গদর্শনে বড়ো ফায়দা হয়েছে। ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়কত্ব করতে গিয়ে বা ফের আইপিএলে চেন্নাই সুপার কিংসের অধিনায়কত্ব করতে গিয়ে মহেন্দ্র সিং ধোনি অনেক খেলোয়াড়কে দিশা দেখিয়েছেন।

ঋতুরাজ গায়কোয়াড় সিএসকেতে পেলেন ধোনির সমর্থন

ভারত পেয়ে গিয়েছে ধোনির উত্তরাধিকারী, ঘরোয়া ক্রিকেট করছেন রান বৃষ্টি, স্বয়ং মাহিও এর বুদ্ধিতে ঘায়েল 1

এমনই খেলোয়াড়দের মধ্যে একজন হলেন মহারাষ্ট্রের তরুণ প্রতিভাবান ব্যাটসম্যান ঋতুরাজ গায়কোয়াড়। ভারতীয় অনুর্ধ্ব ১৯ দল থেকে বেরনোর পর আজ ঋতুরাজ ভারতের এ দলে নিজের দারুণ প্রদর্শের সৌজন্যে জায়গা করে নিয়েছেন। ঋতুরাজ গায়কোয়াড়ের ব্যাট ভারত এ আর ইন্ডিয়া এর হয়ে দারুণ কথা বলেছে কিন্তু তাকে আইপিএলে মহেন্দ্র সিং ধোনির সঙ্গে থাকার বড়ো ফায়দা দিয়েছে। গত আইপিএল মরশুমে ঋতুরাজ চেন্নাই সুপার কিংসের অংশ ছিলেন।

মহেন্দ্র সিং ধোনি দিয়েছেন ঋতুরাজকে আত্মবিশ্বাস

ভারত পেয়ে গিয়েছে ধোনির উত্তরাধিকারী, ঘরোয়া ক্রিকেট করছেন রান বৃষ্টি, স্বয়ং মাহিও এর বুদ্ধিতে ঘায়েল 2

মহারাষ্ট্রের এই ব্যাটসম্যানকে চেন্নাই সুপার কিংস নিজেদের দলে মাত্র ২০ লাখ টাকায় শামিল করেছিল আর তাকে কোনো ম্যাচ খেলারও সুযোগ দেয়নি কিন্তু মহেন্দ্র সিং ধোনি তাকে এমন আত্মবিশ্বাস দিয়েছেন যে আজ যেখানেই দেখা যায় তিনি রান বৃষ্টি করছেন। ঋতুরাজের দুর্দান্ত প্রতিভাকে দেখে তাকে এই বছর আইপিএলের পর ভারতের এ দলে জায়গা দেওয়া হয়েছে যার পর তাকে প্রথম ম্যাচেই নিরাশ হতে হয় কিন্তু তারপর তিনি পেছনে ফিরে দেখেন নি আর লাগাতার দুর্দান্ত প্রদর্শন করছেন। তিনি শ্রীলঙ্কা এ আর ওয়েস্টইন্ডিজ এ-র বিরুদ্ধে ১৮৭, ১২৫, ৯৪, ৮৪, ৭৪, ৩, ৮৫, ২০ আর ৯৯ রানের স্কোর করেন। তিনি এই ম্যাচে ১১২র দুর্দান্ত গড়ে আর ১১৬র স্ট্রাইকরেটে ৬৭৭ রান করেন।
ঋতুরাজের ব্যাটিং নিয়ে তার কোচ সুরেন্দ্র ভাবে বলেন যে, “আমি ওকে ৪ বছর আগে দেখেছিলাম আর আমি ওর মধ্যে দ্রুত একটা এক্স ফ্যাক্টরকে দেখে ফেলি। আমি অনুর্ধ্ব ১৯ ম্যাচে ওর ডবল সেঞ্চুরির ব্যাপারে শুনেছিলাম। যেখানে মহারাষ্ট্র দল ২৫০ রানে অলআউট হয়ে গিয়েছিল। এই কারণে আমি ওকে খেলতে দেখি আর আমি ওর দ্বারা প্রভাবিত হই”।

ধোনি ঋতুরাজের বুদ্ধিতে ছিলেন প্রভাবিত

ভারত পেয়ে গিয়েছে ধোনির উত্তরাধিকারী, ঘরোয়া ক্রিকেট করছেন রান বৃষ্টি, স্বয়ং মাহিও এর বুদ্ধিতে ঘায়েল 3

আইপিএলে সিএসকের হয়ে খেলার সময় ঋতুরাজ প্রথমবার ফিল্ডিং নিয়ে সাজেশন দিয়ে ধোনিকে ইম্প্রেস করেছিলেন। কেকেআরের বিরুদ্ধে ২০১৯ আইপিএলে ঋতুরাজ ধোনিকে ফিল্ডিংয়ের একটা পরামর্শ দিয়েছিলেন যা ধোনি ভীষণই পছন্দ করেছিলেন। ইএসপিএন ক্রিকইনফোর অনুসারে সেই সময় ঋতুরাজ ধোনিকে বলেছিলেন, “মাহি ভাই, অ্যান্দ্রে রাসেল স্কুল আর প্যাডেল খেলে না। শর্ট ফাইন লেগ সরিয়ে ডিপ স্কোয়ার লেগ লাগাতে পারেন”। যা নিয়ে ধোনি বলেন, “ তীক্ষ্ণ বিদ্ধি, সামান্য ছোটো করার প্ল্যা ছিল আর শর্ট ফাইন লেগ টপ এজের জন্য থেমে ছিল। এমনই শামিল হতে থাকো”।

মাকালামের ইনিংস দেখে নিয়েছিলেন ক্রিকেটার হওয়ার সিদ্ধান্ত

ভারত পেয়ে গিয়েছে ধোনির উত্তরাধিকারী, ঘরোয়া ক্রিকেট করছেন রান বৃষ্টি, স্বয়ং মাহিও এর বুদ্ধিতে ঘায়েল 4

এমনিতে ঋতুরাজ গায়কোয়াড়ের পড়াশুনায় বেশি ধ্যান ছিল কিন্তু ২০০৩ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের ব্রেন্ডন ম্যাকালাম জোরে বোলারদের বিরুদ্ধে স্কুল শট খেলেন যাতে ঋতুরাজ প্রভাবিত হন আর ক্রিকেটে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। সেই সময় তিনি ৬ বছরের ছিলেন আর তিনি বেঙ্গসরকার অ্যাকাডেমি জয়েন করেন। ঋতুরাজ কুচ বিহার ট্রফি ২০১৪-১৫য় মিডল অর্ডারে খেলে প্রচুর রান করেন যারপর তাকে ২০১৫-১৬য় মহারাষ্ট্রের দলে নির্বাচিত করা হয় আর তিনি ঝাড়খন্ডের বিরুদ্ধে রঞ্জি ডেবিউ করেন। যে দলের ধোনি মেন্টর ছিলেন।

ধোনি যখন গায়কোয়াড়কে দেন অটোগ্রাফ

ভারত পেয়ে গিয়েছে ধোনির উত্তরাধিকারী, ঘরোয়া ক্রিকেট করছেন রান বৃষ্টি, স্বয়ং মাহিও এর বুদ্ধিতে ঘায়েল 5

ঋতুরাজ ধোনিকে নিয়ে সেই সময়ের কথা স্মরণ করে বলেছেন যে,

“মাহি ভাই ঝাড়খন্ডের মেন্টর ছিলেন, আমি ওকে ইমপ্রেস করতে চাইতাম। কিন্তু বরুণ অ্যারণের বাউন্সারে আমার আঙুল ভেঙে যায়। আমি ড্রেসিং রুমে ফিরতে চাইছিলাম কিন্তু কেদার আমাকে খেলতে বলে। আমি যন্ত্রণা সহ্য করতে পারছিলাম না, এই কারণে আমি শট খেলতে চেয়েছিলাম আর আউট হয়ে গিয়েছিলাম। লাঞ্চ ব্রেকে মাহিভাই আমার কাছে আসেন আর ব্যাটে সই করে দেন। তিনি আমার প্ল্যাস্টারে গেট ওয়েল সুন লিখে দিয়েছিলেন”।

সিএসকেতে নির্বাচিত হওয়ার কথা এভাবে জেনেছিলেন

ভারত পেয়ে গিয়েছে ধোনির উত্তরাধিকারী, ঘরোয়া ক্রিকেট করছেন রান বৃষ্টি, স্বয়ং মাহিও এর বুদ্ধিতে ঘায়েল 6

আইপিএল নিলামকে স্মরণ করে ঋতুরাজ বলেন,

“আনক্যাপড খেলোয়াড়দের প্রথম রাউন্ডের পর আমি টিভি বন্ধ করে দিই আর প্লে স্টেশনে চলে যাই। আমার নম্বর ৮০ কাছাকাছি ছিল আর হঠাত করে ১১০ হয়ে যায়। এই কারণে আমি ভাবি যে আমার পালা গেছে। কিছু সময় পর আমার কাছে মেসেজ আসতে থাকে। এইভাবে আমি সিএসকেতে যাওয়ার খবর জানতে পারি। আমার মা-বাবা শহরের বাইরে ছিলেন আর রাতে আসেন। যখন একটা বন্ধু কেক নিয়ে বাড়িতে আসেন তখন তারা সত্যিই বিশ্বাস করেন”।

ধোনি ভাই বলেন, তুমি ট্যালেন্টেড রান করতে থাকো

“মাহি ভাইকে আমি প্রশ্ন করি আপনি মনে করতে পারছেন?” তিনি বলেন, “একদম, শুধু ওই সাইনই নয় কিন্তু তোমার শটও মনে আছে, তুমি টেলেন্টেড ডোমেস্টিকে রান করতে থাকো”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *