ধোনি টিম ইন্ডিয়ার এই ৫ খেলোয়াড়কে তখন সমর্থন করেন যখন তাদের কেরিয়ার শেষ হওয়র পথে ছিল

ভারতীয় ক্রিকেট দলের প্রাক্তন অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি ভারতের সবচেয়ে সফল অধিনায়ক। তিনি ভারতকে ৩টি আইসিসি ট্রফি জেতান আর এর সঙ্গেই তিনি ভারতেরই নন বরং বিশ্বের এক নম্বর অধিনায়ক হয়ে যান, যিনি তিন ফর্ম্যাটে নিজের দলকে ট্রফি জিতিয়েছেন। মাহী অধিনায়ক হিসেবে না শুধু দলকে খেতাবি জয় এনে দিয়েছেন বরং তিনি মুশকিল সময়ে খেলোয়াড়দের সমর্থনও করেছেন। এমএস ধোনি নিজের অধিনায়কত্বে এমন বেশকিছু খেলোয়াড়কে সমর্থন করেছেন যারা দলের হয়ে পরে প্রশংসাযোগ্য প্রদর্শন করেছেন। এই প্রতিবেদনে আমরা আপনাদের সেই ৫জন খেলোয়াড়দের ব্যাপারে জানাতে চলেছি যাদের এমএস ধোনি সমর্থন করেছেন। পরে এই খেলোয়াড়রাও অধিনায়কের ভরসা বজায় রেখে দলের হয়ে দুর্দান্ত প্রদর্শন করেছেন।

১- যোগীন্দর শর্মা

ধোনি টিম ইন্ডিয়ার এই ৫ খেলোয়াড়কে তখন সমর্থন করেন যখন তাদের কেরিয়ার শেষ হওয়র পথে ছিল 1

ভারতীয় ক্রিকেট দল ২০০৭ এ দক্ষিণ আফ্রিকার আয়োজনে খেলা হওয়া প্রথম টি-২০ বিশ্বকাপের খেতাবকে নিজেদের নামে করেছিলেন। এই খেতাবি জয়ে ভারতীয় দল আর মহেন্দ্র সিং ধোনির সঙ্গেই যদি কোনো খেলোয়াড়কে আলাদাভাবে স্মরণ করা হয় তো তিনি যোগীন্দর শর্মা। হরিয়াণার প্রাক্ত অলরাউন্ডার খেলোয়াড় যোগীন্দর শর্মাকে ফাইনাল ম্যাচে মহেন্দ্র সিং ধোনি শেষ ওভারে বল করিয়ে হিরো বানিয়ে দেন। এটা বলা ভুল হবে না যে যোগীন্দর শর্মার শেষ হওয়া কেরিয়ারে ধোনি নতুন প্রাণ সঞ্চার করেন। আসলে শেষ ওভারে কেউ ভাবেননি যে মাহি যোগীন্দরকে বল করতে দেবেন, কিন্তু মাহী নিজের ধীরস্থির বুদ্ধির ব্যাবহার করে যোগীন্দরের হাতে বল দেন আর এই খেলোয়াড় অধিনায়কের ভরসা বজায় রেখে উইকেট নিতে সফল হন। পরিণামস্বরূপ যোগীন্দর শর্মা এরপর আরও কিছু বছর ভারতীয় দলের হয়ে খেলার সুযোগ পান।

২—ঈশান্ত শর্মা

ধোনি টিম ইন্ডিয়ার এই ৫ খেলোয়াড়কে তখন সমর্থন করেন যখন তাদের কেরিয়ার শেষ হওয়র পথে ছিল 2

ভারতীয় ক্রিকেট দলের বর্তমান জোরে বোলার ঈশান্ত শর্মা যতই আজ ওয়ানডে আর টি-২০ দলের অংশ না হন কিন্তু তিনি ভারতীয় টেস্ট দলের বোলিংয়ের মজবুত স্তম্ভ। ঈশান্ত শর্মার কেরিয়ার অনিল কুম্বলের অধিনায়কত্বে শুরু হয় যেখানে তিনি নিজের দুর্দান্ত জোরে বোলিংয়ে সকলকে প্রভাবিত করেন। কিন্তু মহেন্দ্র সিং ধোনির অধিনায়কত্বে কিছু সময় পর ঈশান্ত শর্মা নিজের ছন্দ হারাতে থাকেন। কিন্তু ধোনি এই জোরে বোলারের উপর ভরসা বজায় রেখে দলে রাখেন তাকে আর সুযোগ দিতে থাকেন। মাহি খারাম সময়তেও ঈশান্ত শর্মাকে সমর্থন জানিয়ে তার কেরিয়ারকে বাঁচিয়ে নেন। জানিয়ে দিই যে বর্তমানে ঈশান্ত শর্মা ভারতের টেস্ট দলের সিনিয়র জোরে বোলার, যিনি বুমরাহ, ভুবনেশ্বর, শামির মতো জোরে বোলার থাকা ভারতীয় বোলিং ইউনিটকে নেতৃত্ব দেন।

৩—সুরেশ রায়না

ধোনি টিম ইন্ডিয়ার এই ৫ খেলোয়াড়কে তখন সমর্থন করেন যখন তাদের কেরিয়ার শেষ হওয়র পথে ছিল 3

ভারতীয় ক্রিকেট দলে কিছু সময় আগে পর্যন্ত সুরেশ রায়নাকে মিডল অর্ডারের সবচেয়ে মজবুত স্তম্ভ মনে করা হত। রায়না বহু বছর পর্যন্ত মহেন্দ্র সিং ধোনি আর যুবরাজ সিংয়ের সঙ্গে মিলে ভারতীয় দলের মিডল অর্ডারকে সামলেছেন। কিন্তু তার কেরিয়ারের মাঝপথে এমন সময়ও এসেছিল যখন তিনি নিয়মিত ব্যর্থ হচ্ছিলেন। রায়না নিজের ওয়ানডে কেরিয়ারে কিছু বছর আগে খুব ভালো প্রদর্শন করতে পারছিলেন না, কিন্তু মাহি তার যোগ্যতাকে চিনে তা সত্ত্বেও তাকে নিয়মিত দলে বজায় রেখেছেন। রায়নাকে ধোনি ধরে রাখেন আর তার কেরিয়ারকে বাঁচিয়ে রাখেন। কিন্তু বিরাট কোহলির অধিনায়ক হওয়ার পর এখন সুরেশ রায়নার কেরিয়ার শেষ হতে দেখা যাচ্ছে। ২০১৮র পর থেকে সুরেশ রায়নাকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলার সুযোগ দেওয়া হয়নি। প্রসঙ্গত জানিয়ে দিই যে একটি লাইভ চ্যাট চলাকালীন যুবরাজ সিং বলেছিলেন যে মাহি যেমন সাপোর্ট রায়নাকে দিয়েছিলেন তেমনটা মাহি তাকে দেননি।

৪—রবীন্দ্র জাদেজা

ধোনি টিম ইন্ডিয়ার এই ৫ খেলোয়াড়কে তখন সমর্থন করেন যখন তাদের কেরিয়ার শেষ হওয়র পথে ছিল 4

ভারতীয় ক্রিকেট দলের বর্তমান সময়ের অলরাউন্ডার রবীন্দ্র জাদেজা আবারও ওয়ানডে আর টি-২০ ক্রিকেটে নিজের জায়গা তৈরি করে ফেলেছেন। জাদেজা এমনিতে টেস্ট ক্রিকেটে নিয়মিত নিজের জায়গা ধরে রাখতে সফল থেকেছেন কিন্তু সীমিত ওভারের ক্রিকেটে ২০১৭র চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির পর থেকে তার প্রত্যাবর্তন দীর্ঘ সময় পর হয়। কিন্তু রবীন্দ্র জাদেজার কেরিয়ার শীর্ষে ওঠে ধোনির অধিনায়কত্বে। কিছু বছর আগে পর্যন্ত জাদেজা ভালো প্রদর্শন করেন কিন্তু তারপর তিনি ফ্লপ হতে থাকেন। প্রত্যেক খেলোয়াড় তার কেরিয়ারে চড়াই উৎরাই দেখে, সেই সময় তার অধিনায়কের সমর্থনের প্রয়োজন হয় যাতে আবারও তিনি ছন্দ হাসিল করতে পারেন। জাদেজার কেরিয়ারের মাঝে এমন একটা সময় এসেছিল যখন তিনি ফ্লপ হওয়ার কারণে দল থেকে বাদ পড়ার দোরগোড়ায় দাঁড়িয়েছিলেন, কিন্তু ধোনি সেই ব্যাপারটিকে উপেক্ষা করে জাদেজাকে দলে জায়গা দিয়ে তার কেরিয়ার বাঁচান। এখন জাদেজা ভারতের তিন ফর্ম্যাটেই বিরাট কোহলির প্রথম পছন্দ হয়ে দাঁড়িয়েছেন।

৫—রোহিত শর্মা

ধোনি টিম ইন্ডিয়ার এই ৫ খেলোয়াড়কে তখন সমর্থন করেন যখন তাদের কেরিয়ার শেষ হওয়র পথে ছিল 5

টিম ইন্ডিয়ার ওপেনিং ব্যাটসম্যান রোহিত শর্মা ২০০৭ এ ডেবিউ করেছিলেন। কিন্তু নিজের কেরিয়ারের শুরুতে দীর্ঘ সময় পর্যন্ত রোহিত মিডল অর্ডারে ব্যাটিং করতেন। তার মধ্যে সক্ষমতা দেখে অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি তাকে মিডল অর্ডারের জায়গায় ওপেনিং করার সুযোগ দেন। রোহিত শর্মা চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি ২০১৩য় শিখর ধবনের সঙ্গে মিলে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে প্রথমবার ওপেনিং করেন। কিন্তু তারপর তিনি পেছনে ফিরে তাকাননি। রোহিতের নামে আজ সীমিত ওভারের ক্রিকেটে সমস্ত বড়ো বড়ো রেকর্ড নথিভুক্ত রয়েছে। কিন্তু যদি অধিনায়ক ধোনি তার উপর ভরসা দেখিয়ে ওপেনিংয়ে সুযোগ না দিতেন তো সম্ভতই টিম ইন্ডিয়া হিটম্যানকে পেত না। রোহিতের এত বড়ো তারকা খেলোয়াড় হওয়ার পেছনে অধিনায়ক ধোনির অনেক বড়ো হাত রয়েছে।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *