বুধবার রোহিত শর্মার জীবনের এক স্মরণীয় রাত ছিল। এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান না শুধু টি২০ আন্তর্জাতিকে নিজের অধিনায়কত্বের অভিষেক করেছেন বরং ভারতকে নেতৃত্ব দিয়ে ৯৩ রানের রেকর্ড জয়ও দিয়েছেন। ভারত সিরিজের প্রথম টি২০তে শ্রীলঙ্কাকে ৯৩ রানে হারিয়ে দেয় যা ক্রিকেটের ক্ষুদ্রতম এই সংস্করণে রানের হিসেবে ভারতের সবচেয়ে বড়ো জয়। প্রথমে ব্যাট করতে পাঠানোর ভারত ৩ উইকেটে ১৮০ রানের বিশাল স্কোর করে। ব্যাট হাতে এই ম্যাচে রোহিত তেমন কিছুই করতে পারেন নি, তিনি মাত্র ১৭ রানেই আউট হয়ে যান। কিন্তু তার সতীর্থরা বোলারদের ডিফেন্ড করার জন্য ভালো অঙ্কের স্কোর দাঁড় করায়। রোহিতের আউটের পরই কেএল রাহুল এবং এবং শ্রেয়স আইয়ার ৬৩ রানের পার্টনারশিপ খেলেন। এই দুজনের পরপর দ্রুত আউট হওয়ার আগে ভারতকে ওই পার্টনারশিপ গড়ে ভরসা যোগান। তারপরই ধোনি এবং মনীশ পান্ডে মিলে শেষ পাঁচ ওভারে বড় শটের ফুলঝুড়ি ছোটান। তাদের জুটিতে করা ৬৬ রান ভারতকে বড়ো স্কোর গড়টে সাহায্য করে। ৬১ রান করে ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের মধ্যে শীর্ষে থাকেন রাহুল, অন্যদিকে ২২ বলে ৩৯ রান করেন ধোনি এবং মনীষ করেন ১৮ বলে ২২ রান।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে শ্রীলঙ্কা মাত্র ৮৭ রানেই অলআউট হয়ে যায়। যদিও প্রথম পাঁচ ওভারে এক উইকেটের বিনিময়ে ৩৯ রান করা শ্রীলঙ্কাকে দেখে মনে হচ্ছিল তারা যথেষ্ট বেগ দেবে ভারতকে। কিন্তু তাদের ইনিংসে ধস নামে যখন যযুবেন্দ্র চহেল বল করতে এসে ফর্মে থাকা উপুল থরঙ্গার উইকেট তুলে নেন। প্রাক্তণ শ্রীলঙ্কান অধিনায়কের উইকেট পড়ার পরই যেন শ্রীলঙ্কা দলের লকগেট খুলে যায় এবং ৮৭ রানে অলআউট হওয়ার আগে তারা নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে। বল হাতে অতিথি দলের জন্য ত্রাস হয়ে ওঠেন চহেল।মাত্র ২৩ রান দিয়ে তিনি চার উইকেট নেন। তাকে যোগ্য সহযোগিতা করেন হার্দিক পান্ডিয়া এবং কুলদীপ যাদব। এই দুই বোলার মিলে যথাক্রমে ৩ এবং ২ উইকেট নেন।

এই রাত রোহিতের টুপিতে নতুন পালক যোগ করে। বিরাট কোহলির পর দ্বিতীয় ভারতীয় হিসেবে ক্রিকেটের এই ক্ষুদ্র সংস্করণে ১৫০০ রান পূর্ণ করেন রোহিত। এবং এই ম্যাচ তার জন্য আরও স্মরণীয় হয়ে ওঠে কারণ দলকে নেতৃত্ব দিয়ে তিনি অধিনায়ক হিসেবে দ্রুততম ৫০টি জয় পাওয়া অধিনায়ক হন। ৮১টি ম্যাচে অধিনায়কত্ব করে এই কৃতিত্ব অর্জন করেন রোহিত। এই কৃতিত্ব অর্জন করার পথে তিনি এমএস ধোনি এবং গৌতম গম্ভীরকে পেছনে ফেলে দেন। আগে এই রেকর্ডের অধিকারী ছিলেন মহেন্দ্র সিং ধোনি, যিনি অধিনায়ক হিসেবে ৫০টি জয় পেতে নিয়েছিলেন ৮৬টি ম্যাচ। ওভারঅল রোহিত অধিনায়ক হিসেবে দ্রুততম ৫০টি জয় পাওয়ার তালিকায় ৩ নম্বরে রয়েছেন। মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সকে নেতৃত্ব দিয়ে তিনি ৪৯টি জয় পান। ৩০ বছর বয়েসী এই ব্যাটসম্যান একমাত্র অধিনায়ক হিসেবে তিন বার আইপিএলের খেতাব জেতেন। তিনি মুম্বাই ইন্ডিয়ানসের অধিনায়ক হিসেবে আইপিএলে ৪৫ টি জয় এবং বর্তমানে বন্ধ হয়ে যাওয়া চ্যাম্পিয়ন্স লিগ টি২০তে চারটি জয় হাসিল করেন।

SHARE
সাংবাদিক, আদ্যন্ত ক্রীড়াপ্রেমী। ব্রায়ান লারা সচিনের ভক্ত। ক্রিকেটের বাইরে ব্রাজিলের সমর্থক এবং নেইমার ও মেসির অন্ধ ভক্ত।

আরও পড়ুন

স্টেইনের আহত হওয়ার পর এই জোরে বোলারকে দলে শামিল করতে পারে আরসিবি

স্টেইনের আহত হওয়ার পর এই জোরে বোলারকে দলে শামিল করতে পারে আরসিবি
ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগে প্রত্যেকেই খেলতে চান। এই পয়সাবহুল টি-২০ লীগে বেশ কিছু দক্ষিণ আফ্রিকান প্লেয়ার নিজেদের জৌলুস...

আহত সত্ত্বেও এই অবাক করা কারণে হল রাসেলের বিশ্বকাপ দলে প্রত্যাবর্তন

আহত সত্ত্বেও এই অবাক করা কারণে হল রাসেলের বিশ্বকাপ দলে প্রত্যাবর্তন
ইংল্যান্ড আর ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডের আতিথেয়তায় খেলা হতে চলা আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯ এর জন্য বুধবার ওয়েস্টইন্ডিজের...

এই খেলোয়াড়কে “লম্বা রেসের ঘোড়া” মনে করেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়

সম্প্রতি জয়পুরে রাজস্থান কে ঘরের মাঠে হারিয়ে দিয়েছিল দিল্লি ক‍্যাপিটালস।সেই ম‍্যাচে দলকে জয় এনে দেওয়ার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ...

ভিডিও : ক‍্যাচ নিয়ে অভদ্র ব্যবহার করলেন বিরাট, মেজাজ হারালেন অশ্বিন!

বুধবার চিন্নস্বামী স্টেডিয়ামে রয়‍্যাল চ‍্যালেন্জার্স ব‍্যাঙ্গালোরের মুখোমুখি হয়েছিল কিংস ইলেভেন পান্জাব।জমজমাট এই ম‍্যাচে ফের আরেকবার এক অভিনব...

আরসিবির দলের আরো এক বড়ো ধাক্কা, এই তারকা ছিটকে গেলেন চোট পেয়ে

আরসিবির দলের আরো এক বড়ো ধাক্কা, এই তারকা ছিটকে গেলেন চোট পেয়ে
ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগের দ্বাদশ মরশুমে জারি রয়েছে। কিন্তু এই সফরের মধ্যেই একের পর এক খেলোয়াড়দের আহত হওয়ার...