৪ জন খেলোয়াড়, যারা শ্রেয়স আইয়ারের অনুপস্থিতিতে সামলাতে পারেন দিল্লি ক্যাপিটালসের অধিনায়কত্ব 1

আইপিএল ২০২০র জন্য সমস্ত দলগুলি নিজেদের প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে। নিলাম থেকেই এই মরশুমের রোমাঞ্চের আন্দাজ পাওয়া গিয়েছিল। যারপর থেকে টিম ম্যানেজমেন্টে পরিবর্তন আর মাঠে নির্বাচিত খেলোয়াড়দের প্রদর্শন দেখার পর রোমাঞ্চ আরো বেশি বেড়ে গিয়েছে যা দেখাও যাচ্ছে। দিল্লি ক্যাপিটালসের দল গত মরশুমে ভীষণই ভালো প্রদর্শন করেছে, যে কারণে তারা সেমিফাইনাল পর্যন্ত সফর করেছিল। শ্রেয়স আইয়ার নিজের অধিনায়কত্বে সকলকে অনেক বেশি প্রভাবিত করেছলেন। যদিও তার অনুপস্থিতি দিল্লির দলে পূর্ণ করা যাবে না। তাও যদি অধিনায়ক বাছতে হয় তো ৪ জন খেলোয়াড়কে নিজের দাবী পেশ করতে দেখা যাবে। তাদের কাছে ভালো ভালো ভারতীয় খেলোয়াড় রয়েছেন, যারা ভালো ফল করতে পারে। যে কারণে অভিজ্ঞতার অভাব এই দলে দেখতে পাওয়া যাবে না।

১. শিখর ধবন

৪ জন খেলোয়াড়, যারা শ্রেয়স আইয়ারের অনুপস্থিতিতে সামলাতে পারেন দিল্লি ক্যাপিটালসের অধিনায়কত্ব 2

নিজের আগের ফ্রেঞ্চাইজি সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের দলের জন্য যখনই প্রয়োজন পড়েছে তো শিখর ধবন দলের অধিনায়কত্ব সামলেছেন। গত মরশুমেও ধবন দিল্লি ক্যাপিটালস দলে ছিলেন, যেখানে তিনি ভীষণই ভালো প্রদর্শনও করেছিলেন। শিখর ধবনের আইপিএলে অধিনায়ক হিসেবে রেকর্ড ঠিকঠাকই থেকেছে। যে কারণে তিনি টিম ম্যানেজমেন্টের প্রথম পছন্দ হতে পারেন। তবে তিনি গতকিছু সময় ধরে নিয়মিত বারবার আহত হচ্ছে। বর্তমানে তিনি ভারতীয় দলে দ্রুতই ফিরে আসার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন। ধবন আইপিএলে ১৫৯টি ম্যাচ খেলেছেন। যেখানে তিনি ৩৩.১৭র গড়ে ৪৫৭৮ রান করেছেন। যার মধ্যে ৩৭টি হাফসেঞ্চুরিও রয়েছে। অন্যদিকে শিখর ধবনের স্ট্রাইকরেট থেকেছে ১২৪.৭৮। যা এই মরশুমে তিনি আরো উন্নত করার চেষ্টা করবেন। অন্যদিকে তিনি সেঞ্চুরিও করতে চাইবেন এই মরশুমে।

২. অজিঙ্ক রাহানে

৪ জন খেলোয়াড়, যারা শ্রেয়স আইয়ারের অনুপস্থিতিতে সামলাতে পারেন দিল্লি ক্যাপিটালসের অধিনায়কত্ব 3

সম্প্রতিই দলে শামিল হওয়া অজিঙ্ক রাহানে নিজের আগের ফ্রেঞ্চাজি রাজস্থান রয়্যালসের হয়ে যখনই দরকার পড়েছে দলের নেতৃত্ব সামলেছেন। এই মরশুমে তিনি ট্রেডের মাধ্যমে এই দলের অংশ হয়েছেন। তার দিল্লিতে প্রদর্শন সবসময়ই ভালো হয়। অজিঙ্ক রাহানের আইপিএলে অধিনায়ক হিসেবে রেকর্ড ঠিকঠাকই থেকেছে। যে কারণে তিনি টিম ম্যানেজমেন্টের পছন্দের তালিকায় রয়েছেন। তবে তাকে গত মরশুমে রাজস্থান রয়্যালসের নেতৃত্ব থেকে সরানো হয়েছিল। কিন্তু দিল্লি ক্যাপিটালসের হয়ে তিনি এই দায়িত্ব নিতে পারেন। রাহানে আইপিএলে ১৪০টি ম্যাচ খেলেছেন, যেখানে তিনি ৩২.৯৩ গড়ে ৩৮২০ রান করেছেন। যার মধ্যে ২৭টি হাফসেঞ্চুরিও রয়েছে। অন্যদিকে রাহানের স্ট্রাইকরেট থেকেছে ১২১.৯৩। যা তিনি এই মরশুমে আরো উন্নতি করতে চাইবেন। রাহানে এখনো পর্যন্ত দুটি সেঞ্চুরিও করেছেন আইপিএল।

৩. রবিচন্দ্রন অশ্বিন

৪ জন খেলোয়াড়, যারা শ্রেয়স আইয়ারের অনুপস্থিতিতে সামলাতে পারেন দিল্লি ক্যাপিটালসের অধিনায়কত্ব 4

ট্রেডের মাধ্যমে দিল্লি ক্যাপিটালসের দলে শামিল হওয়া রবিচন্দ্রন অশ্বিন নিজের আগের ফ্রেঞ্চাইজি কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের অধিনায়ক ছিলেন। তবে তিনি এখন দিল্লির সদস্য হয়ে গিয়েছেন। তার দিল্লিতে প্রদর্শন যথেষ্ট ভালো। রবিচন্দ্রন অশ্বিনের আইপিএলে অধিনায়ক হিসেবে রেকর্ড ভালোই থেকেছে। যে কারণে তাকেও টিম ম্যানেজমেন্ট দরকার পড়লে অধিনায়ক হিসেবে বাছতে পারে। অশ্বিনকে যখন দলে নেওয়া হয়েছিল তো বলা হচ্ছিল যে তিনি অধিনায়কত্ব সামলাবেন কিন্তু এমনটা হয়নি। কিন্তু এখন তিনি অবশ্যই কাজে আসতে পারেন। অশ্বিন আইপিএলে এখনো পর্যন্ত ১৩৯টি ম্যাচ খেলেছেন, যার মদ্যে তিনি ২৬.৪৭ গড়ে ১২৫টি উইকেট নিয়েছেন। এর মধ্যে তার ইকোনমি রেতে ৬.৭৯ এর থেকেছে। অন্যদিকে তার স্ট্রাইকরেট থেকেছে ২৩.৩৯। ব্যাট হাতেও তিনি দলের হয়ে যোগদান করতে পারেন।

৪. ঋষভ পন্থ

৪ জন খেলোয়াড়, যারা শ্রেয়স আইয়ারের অনুপস্থিতিতে সামলাতে পারেন দিল্লি ক্যাপিটালসের অধিনায়কত্ব 5

যদি টিম ম্যানেজমেন্ট আরো একবার কোনো তরুণ খেলোয়াড়কে বাছতে চায় তো ঋষভ পন্থও দলে মজুত রয়েছেন। এই দলের অংশ এই খেলোয়ায়ড় নিজের আইপিএলে কেরিয়ারের শুরু থেকেই রয়েছেন। যেখানে তার প্রদর্শন ব্যাট আর উইকেটের পেছনে ভীষণই ভালো থেকেছে। ঋষভ পন্থ দীর্ঘ সময় ধরে টিম ম্যানেজমেন্টের সঙ্গে কাজ করে চলেছেন। যে কারণে তার উপর টিম ম্যানেজমেন্টেরও সম্পূর্ণ ভরসা থাকবে। স্বয়ং কোচ রিকি পন্টিংয়ের পছন্দের খেলোয়াড় পন্থ। যে কারণে শ্রেয়স আইয়ারের অনুপস্থিতিতে দিল্লি ক্যাপিটালসের নেতৃত্ব ঋষভ পন্থকেও সামলাতে দেখা যেতে পারে। পন্থ এখনো পর্যন্ত আইপিএলে ৫৪টি ম্যাচ খেলেছেন। যার মধ্যে তিনি ৩৬.১৭ গড়ে ১৭৩৬ রান করেছেন। এর মধ্যে একটি সেঞ্চুরি আর ১১টি হাফসেঞ্চুরি রয়েছে। অন্যদিকে তার স্ট্রাইকরেট থেকেছে ১৬২.২। এর সঙ্গেই তিনি উইকেটের পেছনেও ভীষণই গুরুত্বপূর্ণ প্রমানিত হতে পারেন।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *