DCvsSRH: ডেভিড ওয়ার্নার উইলিয়ামসন বা রশিদ খানকে নয় বরং একে দিলেন জয়ের শ্রেয়

আইপিএল ২০২০-র এগারোতম ম্যাচ দিল্লি ক্যাপিটালস আর সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের মধ্যে খেলা হয়েছে। এই ম্যাচে দিল্লি টসে জিতে প্রথমে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান নেয় আর সানরাইজার্স হায়দ্রবাদ প্রথমে ব্যাট করে ১৬৩ রানের লক্ষ্য দেয়। যা দিল্লি হাসিল করতে পারেনি আর ১৫ রানে ম্যাচ হেরে যায়। এই ম্যাচের সানরাইজার্সের সমস্ত খেলোয়াড় ভালো প্রদর্শন করেন, কিন্তু অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নার সবচেয়ে বেশি তরুণ অভিষেক শর্মার প্রদর্শনে খুশি ছিলেন। তিনি এই স্পিন অলরাউন্ডারের জমিয়ে প্রশংসা করেন।

অভিষেক শর্মা আমাদের জন্য ভালো বোলিং করছেন

DCvsSRH: ডেভিড ওয়ার্নার উইলিয়ামসন বা রশিদ খানকে নয় বরং একে দিলেন জয়ের শ্রেয় 1

সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নার নিজের পোষ্ট ম্যাচ প্রেজেন্টেশনে বলেন, “যতই আজ আমরা টসে হেরে যাই কিন্তু ম্যাচ জিতে গিয়েছি, এই কারণে ভালো অনুভব হচ্ছে। দুর্ভাগ্যবশত আমাদের প্রথম ম্যাচে মিচেল মার্শ আহত হয়ে গিয়েছিলেন, আর আমাদের এটা জানার ছিল যে ওর ওভারগুলি কীভাবে করানো যায়। কিন্তু তরুণ অভিষেক শর্মা আসেন আর ও দুর্দান্ত বোলিং করে আর এখন ও দুর্দান্ত বোলিং করছে। এখন ওর রূপে আমাদের কাছে একজন ভালো বোলার রয়েছে”।

আজ আমরা নতুন এবং ডেথ ওভারের বোলিং দুটিতেই দুর্দান্ত ছিলাম

DCvsSRH: ডেভিড ওয়ার্নার উইলিয়ামসন বা রশিদ খানকে নয় বরং একে দিলেন জয়ের শ্রেয় 2

নিজের বোলারদের জয়ের শ্রেয় দিয়ে ডেভিড ওয়ার্নার বলেন, “আমরা নিজেদের বোলিংয়ে বাস্তবে কড়া মেহনত করছি আর আজ আমরা নতুন এবং ডেথ ওভারের বোলিংয়ে দুর্দান্ত ছিলাম”।
দিল্লি ক্যাপিটালসের দল টসে জিতে প্রথমে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেয়,। যেখানে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে সানরাইজার্সের দল ১৬২ রান করে দিল্লির দলকে ১৬৩ রানের লক্ষ্য দেয়। রান তাড়া করতে নেমে দিল্লির দল নিয়মিত ব্যবধানে উইকেট হারিয়ে মাত্র ১৪৭ রানই করতে পারে।

আমাদের ব্যাট হাতে সামান্য ভাগ্যের প্রয়োজন

DCvsSRH: ডেভিড ওয়ার্নার উইলিয়ামসন বা রশিদ খানকে নয় বরং একে দিলেন জয়ের শ্রেয় 3

ডেভিড ওয়ার্নার দলের ব্যাটিং নিয়ে বলেন, “আমাদের ব্যাট হাতে সামান্য ভাগ্যের প্রয়োজন। আমরা উইকেটের মধ্যে দৌড়নো নিয়ে গর্ব করি, কিন্তু এই গরমে উইকেটের মধ্যে ভালো দৌড়নোও নিজে থেকেই একটা বড়ো চ্যালেঞ্জ। আজ আমি কিছু ভালো শট মারি, এই কারণে আমি নিজের প্রদর্শনেও খুশি”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *