বিজয় মালিয়ার ছেলে সিদ্ধার্থ মালিয়ার সঙ্গে আইপিএল চলাকালীন হয়েছিল ডেভিড ওয়ার্নারের ঝামেলা

ভারতের প্রাক্তন ক্রিকেটার এবং জনপ্রিয় কমেন্টেটর সঞ্জয় মঞ্জরেকর প্রায়শই নিজের বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য শিরোনামে থাকেন। কিন্তু এখন বিসিসিআই কড়া অ্যাকশন নিয়ে মঞ্জরেকরকে কমেন্ট্রি প্যানেল থেকে বাদ দিয়েছে। এর মধ্যেই এখন বিদেশী খেলোয়াড়দের সম্পর্কিত কিছু অন্য ঘটনা প্রকাশ্যে এসেছে, যার উপর আগে কারো নজর যায়নি। এর মধ্যে অস্ট্রেলিয়ার প্রাক্তন সহঅধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নারের নাম সামনে এসেছে।

মাঠে ডেভিড ওয়ার্নারের ব্যবহার থেকেছে সন্দেহজনক

বিজয় মালিয়ার ছেলে সিদ্ধার্থ মালিয়ার সঙ্গে আইপিএল চলাকালীন হয়েছিল ডেভিড ওয়ার্নারের ঝামেলা 1

২০১৮য় দক্ষিণ আফ্রিকায় খেলা হওয়া টেস্ট ম্যাচে বল ট্যাম্পারিং বিতর্কের পর অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের প্রাক্তন সহঅধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নারকে যথেষ্ট সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছিল। বল ট্যাম্পারিং কাণ্ডে শামিল হওয়ার কারণে তাকে ১২ মাসের ব্যানও করা হয়। তবে এর আগেও ওয়ার্নার “ব্যাড বয়” হিসেবেই পরিচিত ছিলেন। ডেভিড ওয়ার্নারের ব্যাবহার সবসময়ই সন্দেহের ঘেরাটোপে ছিল, আর ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগেও এই পরিস্থিতি ছিল। যদি মুম্বাই মিররের একটি রিপোর্টের কথা মানা হয় তো ডেভিড ওয়ার্নারকে আইপিএলেও ঝামেলায় জড়িয়ে পড়েছিলেন।

সিদ্ধার্থ মালিয়ার সঙ্গে হয়েছিল ওয়ার্নারের ঝামেলা

বিজয় মালিয়ার ছেলে সিদ্ধার্থ মালিয়ার সঙ্গে আইপিএল চলাকালীন হয়েছিল ডেভিড ওয়ার্নারের ঝামেলা 2

ডেভিড ওয়ার্নার আইপিএলে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের হয়ে খেলেন। ২০১৮ পর্যন্ত ওয়ার্নার এই ফ্রেঞ্চাইজির নেতৃত্ব সামলান। এর মধ্যে ২০১৬য় ওয়ার্নার নিজের নেতৃত্বে এই ফ্রেঞ্চাইজিকে তাদের প্রথম এবং একমাত্র খেতাব জিতিয়েছিলেন। কিন্তু ওয়ার্নার আইপিএল চলাকালীন রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের মালিক বিজয় মালিয়ার ছেলে সিদ্ধার্থ মালিয়ার সঙ্গে অনেক বড়ো ঝামেলায় জড়িয়ে পড়েন। তথ্য অনুযায়ী মালিয়া এই ফ্রেঞ্চাজির সঙ্গে যুক্ত ছিলেন অর্থাৎ এটা স্পষ্ট যে এই ঘটনা প্রায় ২০১২-১৩ সালের। এছাড়াও এটাও প্রশ্ন ওঠে যে এই ঘটনা কীভাবে ঘটল আর বিসিসিআই এই ক্রিকেটারের বিরুদ্ধে কেনো অ্যাকশন নিল না। প্রসঙ্গত আইপিএলে ডেভিড ওয়ার্নার এখনো পর্যন্ত ২০১৫, ২০১৭ এবং ২০১৯ এ মোট তিনবার আইপিএল অরেঞ্জ ক্যাপ জিতেছেন।

সঞ্জয় মঞ্জরেকরকে দেওয়া হয়েছে কমেন্ট্রি প্যানেল থেকে বাদ

বিজয় মালিয়ার ছেলে সিদ্ধার্থ মালিয়ার সঙ্গে আইপিএল চলাকালীন হয়েছিল ডেভিড ওয়ার্নারের ঝামেলা 3

সঞ্জয় মঞ্জরেকর ১৯৯৬ সালে নিজের ক্রিকেট কেরিয়ারকে বিদায় জানিয়েছিলেন। এরপর থেকে গত তিনটি বিশ্বকাপ আর আইসিসির সমস্ত বড়ো টুর্নামেন্টে তিনি কমেন্ট্রি প্যানেলের অংশ ছিলেন। এখন তাকে বিসিসিআই দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে একদিনের সিরিজের কমেন্ট্রি প্যানেলে রাখেনি। যতই এখনো পর্যন্ত বিসিসিআই এবং মঞ্জরেকরের তরফে তাকে কমেন্ট্রি প্যানেল থেকে বাদ দেওয়ার কথা নিশ্চিত হয়নি কিন্তু খবরের কথা মানা হলে এখন তিনি বিসিসিআইয়ের কমেন্ট্রি প্যানেলের অংশ নন। সেই সঙ্গে এটাও মনে করা হচ্ছে যে বিসিসিআই মঞ্জরেকরকে আপিএলের কমেন্ট্রি প্যানেলেও না রাখার পরিকল্পনা করছে।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *