CSKvsMI: এমএস ধোনি এর উপর দিলেন প্লে অফে পাওয়া বড় হারের দায়

আইপিএলে আজ প্রথম প্লে অফের ম্যাচ খেলা হয়েছে। এই ম্যাচে চেন্নাই সুপার কিংসের মুখোমুখি হয়েছিল মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। প্রথমে ব্যাট করে চেন্নাই সুপার কিংসের দল ২০ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে ১৩১ রান করে। তাদের কোনো ব্যাটসম্যানই আজ বড় ইনিংস খেলতে পারেননি। ধোনি শেষের ওভারগুলিতে কিছু বড়ো শট খেলেন। কিন্তু শেষ ওভারে বুমরাহ দুর্দান্ত বোলিং করেন।
এই লক্ষ্য তাড়া করতে নামা মুম্বাই দল শুরুতেই ধাক্কা খায়। কিন্তু সূর্যকুমার যাদব ব্যাট হাতে দুর্দান্ত প্রদর্শন করে এই ম্যাচ এক তরফা করে দেন আর এই ম্যাচে মুম্বাইকে জয় এনে দেন। সূর্যকুমার যাদব ৭১ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন।

এদের করলেন হারের দায়ী

CSKvsMI: এমএস ধোনি এর উপর দিলেন প্লে অফে পাওয়া বড় হারের দায় 1

“কাউকে ম্যাচ হারতে হত, জিনিসগুলো বাস্তবে আমাদের রাস্তায় যায়নি, বিশেষ করে ব্যাটিং। ঘরের মাঠে আমাদের দ্রুত পরিস্থিতি মাপতে হত, আমরা এই পিচে ৬ থেকে ৭টি ম্যাচ খেলেছি আর পিচকে ভালভাবে পড়া উচিৎ ছিল, এটাই ঘরের মাঠে খেলার ফায়দা হতে পারে।
আমাদের এটা জানার প্রয়োজন রয়েছে যে পিচ কেমন ব্যবহার করে, এটা কি ট্যাকল হবে? বল আসছে কিনা, এই সবকিছুই আমরা ভাল করিনি। আমার মনে হয় ব্যাটসম্যানদের উন্নত হওয়ার প্রয়োজন রয়েছে”।

ব্যাটসম্যানদের এমন শট খেলা উচিৎ ছিল না

CSKvsMI: এমএস ধোনি এর উপর দিলেন প্লে অফে পাওয়া বড় হারের দায় 2

“এরাই সবচেয়ে ভাল ব্যাটসম্যান যা আমাদের ছিল, এমন মনে হচ্ছে যে আমরা ভাল ব্যাটিং করতে পারি, কিন্তু বেশ কয়েকবার আদালা দালা খেলায় ওরা এমন শটস খেলেন যা খেলা উচিৎ ছিল না”।

আমাদের আশা রয়েছে আমরা পরের ম্যাচে ভাল প্রদর্শন করব

CSKvsMI: এমএস ধোনি এর উপর দিলেন প্লে অফে পাওয়া বড় হারের দায় 3

“এরা এমন খেলোয়াড় যাদের উপর আমরা ভরসা করেছি, ওদের কাছে অভিজ্ঞতা আছে, আর ওদের ভালভাবে পরিস্থিতির পরিমাপ করা উচিৎ। আশা রয়েছে যে আমরা পরের ম্যাচে ভাল প্রদর্শন করব। আমার মনে হয় যে আমরা বেশ কয়েকবার সামান্য আনলাকি ছিলাম (বোলারদের ব্যাপারে কথা বলতে গিয়ে), কিছু বল মাঝে পড়েছে, কিছু ক্যাচ ধরা যায়নি।
আমাদের সম্ভবত ব্যাটসম্যানদের থেকে সামান্য সরে বোলিং করতে করতে, গতিকে স্লো করতে পারতাম আরো বেশি বৈচিত্রের সঙ্গে বোলিং করতে পারতাম”।

১৩০ রান ডিফেন্ড করার মত টোটাল ছিল না

CSKvsMI: এমএস ধোনি এর উপর দিলেন প্লে অফে পাওয়া বড় হারের দায় 4

“কিন্তু আমাদের কাছে বোর্ডে রান ছিল না। এই কারনে ১৩০ ডিফেণ্ড করার সীমা খারাপ ছিল। এই সময়ে ম্যাচ হারা ভাল নয়, কিন্তু এটা ভাল যে আমরা শীর্ষ দুইয়ে শেষ করতে পেরেছি,এর মানে যে সফরে লম্বা সময় লাগে। কিন্তু সৌভাগ্যবশত আমরা শীর্ষ দুইতে সমাপ্ত করতে পেরেছি এই কারণে আমরা দ্বিতীয় সুযোগ পেয়েছি”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *