যখন গেইলের ঝোড়ো ইনিংসের জন্য নিজেকে টুইট করা থেকে আটকাতে পারেননি মহেন্দ্র সিং ধোনি

ওয়েস্টইন্ডিজ ক্রিকেট দলের বিস্ফোরক ব্যাটসম্যান ক্রিস গেইল আইপিএলের বড়ো নাম। তিনি আইপিএলের ইতিহাসে সমস্ত বড়ো বড়ো রেকর্ড নিজের নামে করেছেন। ২৩ এপ্রিল অর্থাৎ আজকের দিনেই ২০১৩য় গেইল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্সের হয়ে ব্যাটিং করে ১৭৫ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেছিলেন। গেইলের এই ইনিংসের পর সিএসকে অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি টুইট করেছিলেন যা আজ আবারো সোশ্যাল মিডীয়ায় ট্রেণ্ড হচ্ছে।

ক্রিস গেইলের ঝোড়ো ইনিংসের পর ধোনি করেছিলেন টুইট

যখন গেইলের ঝোড়ো ইনিংসের জন্য নিজেকে টুইট করা থেকে আটকাতে পারেননি মহেন্দ্র সিং ধোনি 1

ওয়েস্টইন্ডিজের বিস্ফোরক ব্যাটসম্যান ক্রিস গেইলের ১৭৫ রানের অপরাজিত ইনিংস দেখে সিএসকের অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি নিজেকে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোষ্ট করা থেকে আটকাতে পারেননি। ধোনি এই টুইটে লিখেছিলেন, “জীবন সঠিক নির্নয় নেওয়ার বিষয়, আজ গেইলের ব্যাট দেখে আমার মনে হচ্ছে যে আমি উইকেটকিপার হওয়ার সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম”।

ক্রিস গেইল গেলেছিলেন অপরাজিত ১৭৫ রানের ইনিংস

যখন গেইলের ঝোড়ো ইনিংসের জন্য নিজেকে টুইট করা থেকে আটকাতে পারেননি মহেন্দ্র সিং ধোনি 2

বিশ্বজুড়ে ইউনিভার্সাল বস নামে নিজের পরিচিতি তৈরি করা ক্রিস গেইল বিশ্ব ক্রিকেটে নিজের বিস্ফোরক ব্যাটিংয়ের নমুনা পেশ করেছেন। গেইল সেই খেলোয়াড়দের মধ্যে একজন যাদের ব্যাটে লাগার পর বলের হাওয়ায় সফর করা প্রায় নিশ্চিতই হয়। ক্রিস গেইল ২০১৩য় রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্সের তরফে পুণে ওয়ারিয়ার্সের বিরুদ্ধে খেলে আইপিএলে ৬৬ বলে অপরাজিত ১৭৫ রানের ঐতিহাসিক ইনিংস খেলেছিলেন। এর মধ্যে গেইলের ব্যাট থেকে ১৭টি বাউন্ডারি আর ১৩টি ছক্কা এসেছিল। গেইলের এই স্কোর আইপিএলের ইতিহাসে কোনো একজন খেলোয়াড় দ্বারা করা সবচেয়ে বড়ো স্কোর। এছাড়াও এর মধ্যে গেইল ৩০ বলে সেঞ্চুরি করে ব্রেন্ডন ম্যাকালামের ১৫৮ রানের টি-২০ ক্রিকেটের রেকর্ডও ভেঙে দিয়েছিলেন।

রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্সের সবচেয়ে বড়ো জয়

যখন গেইলের ঝোড়ো ইনিংসের জন্য নিজেকে টুইট করা থেকে আটকাতে পারেননি মহেন্দ্র সিং ধোনি 3

রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর ক্রিস গেইলকে ২০১১য় দলে শামিল করেছিল। এরপর গেইল এই ফ্রেঞ্চাইজির হয়ে বড়ো বড়ো ইনিংস খেলেন আর এর সঙ্গেই ২০১১ এবং ২০১৬য় ফাইনালে পৌঁছতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন। গেইল ২০১৩য় অপরাজিত ১৭৫ রানের ইনিংস পুণে ওয়ারিয়ার্সের বিরুদ্ধে খেলেছিলেন। এই ম্যাচে ৫ উইকেটে রেকর্ড ২৬৩ রান করে আরসিবি যার পর পুণের দল ৯ উইকেটে মাত্র ১৩৩ রানই করতে পেরেছিল। তখন দলের অধিনায়কত্ব করছিলেন অ্যারণ ফিঞ্চ। তাদের দলের হয়ে সবচেয়ে বেশি ৪১ রান করেছিলেন স্টিভ স্মিথ। আরসিবি এই ম্যাচ ১৩০ রানে জিতেছিল, যা আরসিবির আইপিএলে সবচেয়ে বড়ো জয় প্রমানিত হয়।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *