সুরেশ রায়না অবসর অবসর নেওয়ার একদিন পর বিসিসিআইকে পাঠালেন সূচনা

প্রাক্তন ভারতীয় অধিনায়ক এমএস ধোনির সঙ্গে সঙ্গে সুরেশ রায়নাও ১৫ আগষ্ট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়েছেন। সুরেশ রায়না অবসর ঘোষণার পর বিসিসিআই সোমবার বলেছে যে রায়না সার্বজনিক ঘোষণার একদিন পর বোর্ডকে অবসর নেওয়ার সিদ্ধান্তের সূচনা দিয়েছিলেন। বেশিরভাগ খেলোয়াড় অবসর ঘোষণা করার আগে বিসিসিআইকে জানান। কিন্তু রায়না বিসিসিআইকে একদিন পর এই কথা জানিয়েছেন।

সুরেশ রায়না অবসর নেওয়ার একদিন পর বিসিসিআইকে জানান

সুরেশ রায়না অবসর অবসর নেওয়ার একদিন পর বিসিসিআইকে পাঠালেন সূচনা 1

বিসিসিআই বয়ানে বলেছেন যে বাঁ হাতের আক্রামক ব্যাটসম্যান সুরেশ রায়না আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নেওয়ার নিজের সিদ্ধান্তের ব্যাপারে বিসিসিআইকে রবিবার ঔপচারিকভাবে জানিয়েছেন। বিসিসিআই নিজেদের বয়ানে বলেছেন,

“বাঁ হাতের আক্রামক ব্যাটসম্যান সুরেশ রায়না আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নেওয়ার নিজের সিদ্ধান্তের ব্যাপারে বিসিসিআইকে রবিবার ঔপচারিকভাবে জানিয়েছিলেন। স্বাভাবিকভাবে খেলোয়াড়রা অবসর ঘোষণার আগে বিসিসিআইকে জানান। রায়নার অধিনায়কত্বে ভারত ওয়েস্টইন্ডিজকে ওয়ানডে ম্যাচে ৩-২ হারিয়ে সিরিজ জিতেছিল আর বাংলাদেশকে ২-০ হারিয়েছে সেই সঙ্গে জিম্বাবোয়েতে টি-২০ আন্তর্জাতিক সিরিজ ২-০ ফলাফলে জেতে”।

আপনাদের জানিয়ে দিই যে রায়নার ১৩ বছরের কেরিয়ারে ১৮টি টেস্ট, ২২৬টি ওয়ানোডে আর ৭৮টি টি-২০ ম্যাচ খেলেছেন। তিনি কিছু সময়ের জন্য দলের অধিনায়কত্বও সামলেছিলেন।

সৌরভ গাঙ্গুলী দিয়েছেন রায়নার পরিবারকে শুভকামনা

সুরেশ রায়না অবসর অবসর নেওয়ার একদিন পর বিসিসিআইকে পাঠালেন সূচনা 2

টেস্ট পদার্পণেই সেঞ্চুরি করা রায়না খেলার তিন ফর্ম্যাটে সেঞ্চুরি করা প্রথম ভারতীয়। বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী রায়নার প্রশংসা করে বলেছেন,

“সুরেশ রায়না সীমিত ওভারের ফর্ম্যাটে ভারতের হয়ে গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় থেকেছেন। নীচের দিকে এসে ম্যাচ জেতানো ইনিংস খেলার জন্য যথেষ্ট কৌশল আর প্রতিভার প্রয়োজন হয়। তিনি আর যুবরাজ সিং মিলে একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচে ভারতের হয়ে শক্তিশালী মিডল অর্ডার তৈরি করেছেন। আমি তাকে আর তার পরিবারকে শুভেচ্ছা জানাচ্ছি”।

বিসিসিআই সচিব জয় শাহও রায়নার প্রশংসা করেছেন

সুরেশ রায়না অবসর অবসর নেওয়ার একদিন পর বিসিসিআইকে পাঠালেন সূচনা 3

বিসিসিআই সচিব জয় শাহও সুরেশ রায়নার জমিয়ে প্রশংসা করেছেন। তিনি রায়নাকে টি-২০ ক্রিকেটে দুর্দান্ত ব্যাটসম্যানদের তালিকায় স্থান দিয়েছেন। রায়নার প্রশংসা করে জয় শাহ বলেছেন যে,

“সুরেশ রায়না টি-২০ ক্রিকেটের সর্বশ্রেষ্ঠ ব্যাটসম্যানদের মধ্যে একজন। মাঠে যথেষ্ট জীবন্ত রায়না নিজের পুরো ক্রিকেট কেরিয়ারে বাঁহাতি ব্যাটসম্যান হিসেবে নিজের ক্ষমতা দেখিয়েছেন। বড়ো ম্যাচের খেলোয়াড় রায়নার অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ২০১১ বিশ্বকাপ কোয়ার্টার ফাইনালে দ্রুতগতির ইনিংস তার দুর্দান্ত কেরিয়ারের সাক্ষী। আমি কেরিয়ারের দ্বিতীয় ইনিংসে ওকে শুভকামনা জানাচ্ছি”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *