যদি চাইনিজ কোম্পানির সঙ্গে ভাঙে সম্পর্ক, তো বিসিসিআই আর মহেন্দ্র সিং ধনির হবে কোটি টাকার লোকসান

লাদাখ স্থিত ভারত-চীন সীমান্তে দুই দেশের সেনার মধ্যে মঙ্গলবার সংঘর্ষের পর থেকেই পুরো ভারতে চিনের বিরুদ্ধে দারুণ ক্ষোভ দেখা যাচ্ছে। এই সংঘর্ষে আমাদের দেশের ২০জন বীর জওয়ান শহিদ হন। সৈনিকদের এইভাবে শহিদ হয়ে যাওয়ার পর থেকে ভারতে দারুণ ক্ষোভ রয়েছে আর পুরো পরিবেশ চিনের বিরুদ্ধে তৈরি হয়ে গিয়েছে।

চিনের কাপুরুষোচিত ব্যবহারের পর থেকে ভারতে চিনের প্রতি বিরোধ

যদি চাইনিজ কোম্পানির সঙ্গে ভাঙে সম্পর্ক, তো বিসিসিআই আর মহেন্দ্র সিং ধনির হবে কোটি টাকার লোকসান 1

দেশবাসী চাইনিজ সেনাদের এই কাপুরুষোচিত ব্যবহারের পর থেকেই রাস্তায় নেমে এসেছেন আর চিনের প্রতি বিরোধ দেখাচ্ছেন। ভারতের মানুষ চিনের সঙ্গে কোনো রকম ব্যবসায়িক সম্পর্ক রাখতে চান না এবং তারা চাইনিজ জিনিসকে ব্যান করার দাবী জানাচ্ছেন। যেখানে একদিকে মানুষের মধ্যে চিনের প্রতি দারুণ ক্ষোভ দেখা যাচ্ছে অন্যদিকে ভারত সরকারও চিনের বিরুদ্ধে বড়ো পদক্ষেপ নেওয়ার ব্যাপারে ভাবছে। কিন্তু চিনের সঙ্গে না শুধু ভারতের বেশকিছু কোম্পানির সম্পর্ক রয়েছে বরং ক্রিকেটেও চিনের সঙ্গে এক বড়ো ব্যবসায়িক সম্পর্ক রয়েছে।

বিসিসিআইয়ের রয়েছে চাইনিজ কোম্পানির সঙ্গে বড়ো চুক্তি

যদি চাইনিজ কোম্পানির সঙ্গে ভাঙে সম্পর্ক, তো বিসিসিআই আর মহেন্দ্র সিং ধনির হবে কোটি টাকার লোকসান 2

ক্রিকেটের সঙ্গে এই ব্যবসায়িক সম্পর্ক সোজাসুজি বিসিসিআইয়ের রয়েছে। বিসিসিআই গত কিছু বছর ধরে চাইনিজ কোম্পানিদের সঙ্গে নিজেদের স্পনসরশিপ করেছে, তো অন্যদিকে ভারতের ক্রিকেটাররাও চাইনিজ কোম্পানিগুলির ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসডর হিসেবে কাজ করছেন। এই অবস্থায় যদি চাইনিজ কোম্পানিগুলিকে ভারতে ব্যান করা হয় তো ভারতীয় ক্রিকেটের বেশ বড়ো লোকসান হবে।

ভিভো কোম্পানির সঙ্গে আইপিএল স্পনসরশিপ রয়েছে ৫ বছরের জনু ২১৯৯ কোটি টাকা

যদি চাইনিজ কোম্পানির সঙ্গে ভাঙে সম্পর্ক, তো বিসিসিআই আর মহেন্দ্র সিং ধনির হবে কোটি টাকার লোকসান 3

যার মধ্যে ক্রিকেট জগতের সবচেয়ে বড়ো টি-২০ লীগ আইপিএলের টাইটেল স্পনসর চাইনিজ কোম্পানি ভিভো মোবাইল। ভিভো মোবাইল কোম্পানি বিসিসিআইয়ের সঞগে আইপিএলের টাইটেল স্পনসরশিপ রাইটস কিনেছে। যার চুক্তি পাঁচ বছরের জন্য ২১৯৯ কোটি টাকার। এছাড়াও বিসিসিআইয়ের চাইনিজ কোম্পানিগুলির সঙ্গে প্রায় ১৫০ কোটি টাকার অতিরিক্ত চুক্তি রয়েছে।

পে-টিএম হলো ভারতের ঘরোয়া সিরিজের স্পনসর তো ড্রিম-১১ এর সঙ্গে যুক্ত ধোনি

যদি চাইনিজ কোম্পানির সঙ্গে ভাঙে সম্পর্ক, তো বিসিসিআই আর মহেন্দ্র সিং ধনির হবে কোটি টাকার লোকসান 4

বিসিসিআইয়ের সঙ্গে গত কিছু সময় ধরে চাইনিজ কোম্পানিগুলি যথেষ্ট ইনভেস্টমেন্ট করেছে। যার মধ্যে পে-টিএম কোম্পানি বিসিসিআইয়ের ঘরোয়া সিরিজের বড়ো স্পনসর। যেখানে প্রতি ম্যাচে পে-টিএম কোম্পানি বিসিসিআইকে ৩.৮ কোটি টাকা দেয়। ড্রিম-১১ কোম্পানির সঙ্গেও বিসিসিআইয়ের অফিসিয়াল স্পনসরশিপ রয়েছে। শুধু তাই নয় ভারতীয় ক্রিকেট দলের প্রাক্তন অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনিও চাইনিজ কোম্পানির সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন। যার মধ্যে ধোনি ড্রিম-১১ এর ব্র্যাণ্ড আম্বাসডর। এই অবস্থায় ভারতের ক্রিকেট ব্যবসা বড়ো স্তরে চাইনিজ কোম্পানিগুলির সঙ্গে যুক্ত রয়েছে। যদি চাইনিজ কোম্পানিগুলির সঙ্গে ব্যবসায়িক সম্পর্ক শেষ হয়ে যায় তো বিসিসিআই বড়ো ধাক্কা খাবে।

বিসিসিআই চাইনিজ কোম্পানির সঙ্গে সম্পর্ক ভাঙতে অস্বীকার

যদি চাইনিজ কোম্পানির সঙ্গে ভাঙে সম্পর্ক, তো বিসিসিআই আর মহেন্দ্র সিং ধনির হবে কোটি টাকার লোকসান 5

দেশে এক স্বরে চাইনিজ কোম্পানিগুলিকে বহিস্কার করার দাবী করা হচ্ছে, অন্যদিকে বিসিসিআই আইপিএলের টাইটেল স্পনসর ভিভো কোম্পানির সঙ্গে বর্তমানে সম্পর্ক ভাঙতে অস্বীকার করে দিয়েছে। তবে তারা এই সংকেত অবশ্যই দিয়েছে যে পরের বার এই বিষয়ে পরিবর্তন করার ব্যাপারে তারা ভাবনা চিন্তা করতে পারে। বিসিসিআই এর পেছনে কারণ জানিয়েছে যে ভারতের চাইনিজ কোম্পানির সঙ্গে অনেক বেশি ফায়দা হচ্ছে।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *