ভারতীয় খেলোয়াড়দের উপর হল বর্ণবিদ্বেষী টিপ্পনি, ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া নিল কড়া পদক্ষেপ

ভারত আর অস্ট্রেলিয়ার মধ্যে চলা টেস্ট সিরিজে দুই দলের মধ্যে জোরদার প্রতিদ্বন্ধীতা দেখতে পাওয়া যাচ্ছে। এই ম্যাচে খেলোয়াড়দের মধ্যেও জমিয়ে স্লেজিং দেখতে পাওয়া যাচ্ছে। এখন অস্ট্রেলিয়ান দর্শকরা এমন কিছু করল যে কারণে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া হুঁশিয়ারি দিয়েছে। জানিয়ে দিই অস্ট্রেলিয়ান দর্শকদের ভারতীয় খেলোয়াড়দের নিয়ে বর্ণভেদের টিপ্পনি করতে দেখা যায়।

জনপ্রিয় বে-১৩তে বসা দর্শকদের ভারতীয় খেলোয়াড়দের বিরুদ্ধে স্লোগান দিতে দেখা যায়
ভারতীয় খেলোয়াড়দের উপর হল বর্ণবিদ্বেষী টিপ্পনি, ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া নিল কড়া পদক্ষেপ 1
প্রসঙ্গত যে ভারত আর অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে তৃতীয় টেস্ট ম্যাচ ২৬ ডিসেম্বর থেকে মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে শুরু হয়েছে আর এই অবস্থায় প্রথম দুদিন এমসিজির জনপ্রিয় বে-১৩য় স্ট্যান্ডে বসা দর্শকদের ভারতীয় খেলোয়াড়দের বিরুদ্ধে স্লোগান দিতে দেখা যায়। তারা সকলেই ‘শো আস ইয়োর ভিসা’ বলে চিৎকার করতে দেখা গিয়েছিল। এই ফুটেজ ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়াকে দেওয়া হয়েছে।

এরপর এই ফুটেজ সিএ, ভিক্টোরিয়া পুলিশ আর স্টেডিয়াম ম্যানেজমেন্টকে দেওয়া হয়েছে
ভারতীয় খেলোয়াড়দের উপর হল বর্ণবিদ্বেষী টিপ্পনি, ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া নিল কড়া পদক্ষেপ 2
এরপর এই ফুটেজ ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া, ভিক্টোরিয়া পুলিশ আর স্টেডিয়াম ম্যানেজমেন্টের হাতে তুলে দিয়েছে। সিএ-র প্রবক্তা বলেছেন যে ভিক্টোরিয়া পুলিশ আর স্টেডিয়াম ম্যানেজমেন্টদর্শকদের ব্যবহারের বিচার করছে। তারা দর্শকদের সঙ্গে এই ব্যাবহারের সম্বন্ধে কথাবার্তাও বলেছেন আর তাদের সঠিক ব্যবহারের ব্যাপারেও বুঝিয়েছেন।

সিএর মুখপাত্র বলেছেন এই কথা

সিএ মুখপাত্রের তরফে বলা হয়েছে,

“ভিক্টোরিয়া পুলিশ আর স্টেডিয়ামের সুরক্ষা বিভাগ স্টেডিয়ামের এই অংশের দর্শকদের ব্যবহারের দিকে কড়া নজর রাখছেন আর তাদের দর্শকদের সঙ্গে বেশ কয়েকবার কথাবার্তাও হয়েছে তথা তাদের এই ম্যাচের জায়গার নিয়মাবলি আর শর্তও মনে করানো হয়েছে যা উচিৎ ব্যবহারের সম্বন্ধিত”।

বিরাট কোহলি আর অস্ট্রেলিয়ান অলরাউন্ডার মিচেল মার্শকেও ছাড়া হয়নি
ভারতীয় খেলোয়াড়দের উপর হল বর্ণবিদ্বেষী টিপ্পনি, ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া নিল কড়া পদক্ষেপ 3
প্রথম ইনিংসে ৮২ রান করা ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলিকেও হুটিং করা হয়েছে। এমনকী অস্ট্রেলিয়ান অলরাউন্ডার মিচেল মার্শকেও ছাড়া হয়নি। যাকে তৃতীয় টেস্টের জন্য স্থানীয় খেলোয়াড় পিটার হ্যাণ্ডসকম্বের জায়গায় দলে নেওয়া হয়েছে।

Leave a comment

Your email address will not be published.