আকাশ চোপড়া জানালেন কে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের লজ্জাজনক প্রদর্শনের জন্য দায়ী 1

আইপিএল ২০২০তে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের দলের কাছে যথেষ্ট আশা ছিল, কিন্তু তারা আশানুরূপ প্রদর্শন করতে পারেনি আর ষষ্ঠস্থানে নিজেদের আইপিএল অভিযান শেষ করেছিল। এর মধ্যে ভারতীয় দলের প্রাক্তন ক্রিকেটার আকাশ চোপড়া পাঞ্জাবের লজ্জাজনক প্রদর্শনের কারণ জানিয়েছেন।

আইডিয়াল প্রথম একাদশ না পাওয়ার দায় রাহুলের

আকাশ চোপড়া জানালেন কে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের লজ্জাজনক প্রদর্শনের জন্য দায়ী 2

আকাশ চোপড়া নিজের একটি বয়ানে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব দলের রিভিউ করতে গিয়ে বলেন, “কেএল রাহুলের অধিনায়কত্ব নিয়েআমি ৫০-৫০ থাকব। কিংস ইলেভন পাঞ্জাবের দল নিজেদের প্রথম একাদশ সন্ধান করতে পারেনি তো এর কমবেশি দায় তো কে রাহুলেরও থাকে। তবে এই সিদ্ধান্ত টিম ম্যানেজমেন্ট নেয় কিন্তু আপনিও নিজের ভূমিকা তাতে পালন করেন, এই কারণে এটা একটা বিষয়, কারণ ব্যাপারগ্যলো বোঝার জন্য সামান্য সময় তো অবশ্যই লাগে”।

কেএল রাহুলের অধিনায়কত্ব আরও ভালো হয়ে উঠেছিল

আকাশ চোপড়া জানালেন কে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের লজ্জাজনক প্রদর্শনের জন্য দায়ী 3

আকাশ চোপড়া আগে নিজের বয়ানে বলেন, “কেএল রাহুল বোলারদের তো যথেষ্ট ভালোভাবে রোটেট করেছেন আর তাদের ম্যানেজ করেছেন। রবি বিষ্ণোই আর মুরুগন অশ্বিনের প্রয়োগ তিনি যথেষ্ট ভালোভাবে করেছেন। যেমন যেমন টুর্নামেন্ট এগিয়ে গিয়েছে তেমন তেমন কেএল রাহুলের অধিনায়কত্ব আরও ভালো হয়ে চলেছে”।

আইপিএল ২০২০তে ষষ্ঠ স্থানে থেকেছে পাঞ্জাবের দল

আকাশ চোপড়া জানালেন কে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের লজ্জাজনক প্রদর্শনের জন্য দায়ী 4

আইপিএল ২০২০তে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের দল ষষ্ঠ স্থানে ছিল। পাঞ্জাব আইপিএলে মোট ১৪টি ম্যাচ খেলেছিল, যার মধ্যে তারা ৬টি ম্যাচ জেতে অন্যদিকে ৮টি ম্যাচে তাদের হারের মুখে পড়তে হয়েছিল। কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব এই মরশুমের পরপর ৫টি ম্যাচে জয়লাভ করার এক দুর্দান্ত রেকর্ডও গড়েছেন। তবে এই দুর্দান্ত রেকর্ড সত্ত্বেও তাদের দলকে প্লে অফে যাওয়া থেকে বঞ্চিত হতে হয়েছিল। পাঞ্জাবের দল এই মরশুমে কেএল রাহুলকে নিজেদের অধিনায়ক করেছিল। অন্যদিকে কোচ অনিল কুম্বলেকে করেছিল। তবে এই জুটিও পাঞ্জাবের নৌকো পাড়ে নিয়ে যেতে পারেননি।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *