ভিডিয়ো: ম্যাচ চলাকালীন ভারতের বিরুদ্ধে একি নোংরা বয়ান দিলেন পাকিস্তানের ওপেনার শাহজাদ, উস্কালেন মানুষকে

ভারত সরকার এই মাসের শুরুতেই জম্মু-কাশ্মীর থেকে আর্টিকেল ৩৭০কে সরিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল। এই আর্টিকেল সরিয়ে নেওয়ার পাকিস্তান লাগাতার বিরোধ করছে। আর্টিকেল ৩৭০ সরিয়ে নেওয়ার কারণে কাশ্মীরে মোবাইল আর ইন্টারেন্ট সেবাকে বন্ধ করা হয়েছিল। পাকিস্তানের খেলোয়াড়রাও এর লাগাতার বিরোধ করছেন।

আহমেদ শাহজাদ দিলেন বয়ান

ভিডিয়ো: ম্যাচ চলাকালীন ভারতের বিরুদ্ধে একি নোংরা বয়ান দিলেন পাকিস্তানের ওপেনার শাহজাদ, উস্কালেন মানুষকে 1

পাকিস্তান দল থেকে বাদ পড়া ওপেনিং ব্যাটসম্যান আহমেদ শাহজাদ এই বিষয়ে নিজের প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন। একটি ম্যাচ চলাকালীন খেলোয়াড়দের আত্মবিশ্বাস করতে পৌঁছনো আহমেদ শাহজাদ কাশ্মীরের বিষয়টি উত্থাপন করেছেন। তিনি বলেন,

“আমাদের কাশ্মীরি ভাইরা এই সময় যথেষ্ট কষ্টে রয়েছে। ৮০ লাখ কাশ্মীরি লক ডাউন রয়েছে আর ৯ লাখ পুলিশ তাদের উপর অত্যাচার করছে। আমাদের ভোলা উচিৎ নয় এটা যে কারও সঙ্গেই হতে পারে। মানবাধিকার কমিশনের কাজ যে ভুলের বিরুদ্ধে অ্যাকশন নেওয়া কিন্তু তারা নিশ্চুপ রয়েছে। স্রেফ এই কারণে যে সম্ভবত কাশ্মীরে মুসলমান রয়েছে যারা এই অত্যাচার সহ্য করছে”।

ইমরান খানের পাশে দাঁড়ান

ভিডিয়ো: ম্যাচ চলাকালীন ভারতের বিরুদ্ধে একি নোংরা বয়ান দিলেন পাকিস্তানের ওপেনার শাহজাদ, উস্কালেন মানুষকে 2

আহমেদ শাহজাদ বিশ্বের মুসলিম নেতাদের কাছে অ্যাপিল করেছেন যে তারা ইমরান খানকে সঙ্গ দিন। এর সঙ্গেই তিনি বলেছেন যে পাকিস্তানের সমস্ত স্পোর্টসম্যান কাশ্মীরের পাশে রয়েছে। তিনি আগে বলেন,

“আমরা সবাইকে জানিয়ে দিতে চাই যে এই দেশের বাচ্চা, বুড়ো আর সমস্ত স্পোর্টসম্যান সকলেই ওদের সঙ্গে রয়েছে, আমরা সকলেই নিজেদের সেনার সঙ্গে রয়েছি আর ইমরান খানের সঙ্গে রয়েছি। দুনিয়ার সমস্ত মুসলিম লিডার ইমরান খানের মত স্ট্যান্ড নিন আর ইমরান খানের পাশে দাঁড়ান”।

আফ্রিদিও দিয়েছিলেন বয়ান

ভিডিয়ো: ম্যাচ চলাকালীন ভারতের বিরুদ্ধে একি নোংরা বয়ান দিলেন পাকিস্তানের ওপেনার শাহজাদ, উস্কালেন মানুষকে 3

পাকিস্তানের প্রাক্তন অধিনায়ক শাহিদ আফ্রিদিও বেশ কয়েকবার সোশ্যাল মিডিয়ায় টুইটারে কাশ্মীরের পাশে দাঁড়ানোর কথা বলেছেন। এই বিষয়ে বেশ কয়েকবার গৌতম গম্ভীরের সঙ্গে তার তর্কাতর্কিও হয়েছে।

এখানে দেখুন শাহজাদের ভিডিয়ো:

 

ভক্তদের প্রতিক্রিয়া 

Leave a comment

Your email address will not be published.