জয়ের পর ধোনি বললেন এই কারণে পরের বার চেন্নাই তাকে করবেনা রিটেন

চেন্নাই সুপার কিংসের দলের জন্য এখনো পর্যন্ত এই আইপিএল ভীষণই ভাল গিয়েছে। চেন্নাইয়ের দল এখনো পর্যন্ত এই আইপিএলে ১৩টি ম্যাচ খেলেছে, যার মধ্যে তারা ৯টি ম্যাচ জয় হাসিল করেছে। চেন্নাই সুপার কিংসের দল আজ নিজেদের ঘরের মাঠে দিল্লি ক্যাপিটালসকে ৮০ রানের ব্যবধানে হারিয়ে দিয়েছে। চেন্নাই সুপার কিংস দল এখন প্লে অফে পৌঁছে গিয়েছে।

দিল্লি ক্যাপিটালস জিতেছিল টস

জয়ের পর ধোনি বললেন এই কারণে পরের বার চেন্নাই তাকে করবেনা রিটেন 1

আইপিএলের ৫০তম ম্যাচে দিল্লি ক্যাপিটালস দল টস জিতে প্রথমে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল। প্রথমে ব্যাটিং করে চেন্নাই সুপার কিংস সুরেশ রায়নার ৫৯ রান, রবীন্দ্র জাদেজার ২৫ রান আর মহেন্দ্র সিং ধোনির শেষের ওভারে খেলা ২২ বলে ৪৪ রানের ইনিংসের সৌজন্যে ২০ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে ১৭৯ রান করে।
লক্ষ্য তাড়া করতে গিয়ে দিল্লির ইনিংস শুরুতেই নড়বড়ে হয়ে যায় আর লাগাতার তারা উইকেট হারাতে থাকে। দিল্লির হয়ে তাদের অধিনায়ক শ্রেয়স আইয়ার ৪৪ রানের ইনিংস খেলেন কিন্তু তা সত্ত্বেও দিল্লির দল এই ম্যাচ ৮০ রানে হেরে যায়।

ধোনি বললেন এই কথা

জয়ের পর ধোনি বললেন এই কারণে পরের বার চেন্নাই তাকে করবেনা রিটেন 2

এই ম্যাচে দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ের জন্য ম্যাচ অফ ম্যাচ নির্বাচিত হওয়া চেন্নাই অধিনায়ক ম্যাচ শেষে বলেন যে,

“আমি বলকে দেখি আর হিট করি। আমার মনে হয় যে ২০তম ওভার পর্যন্ত আপনি প্রায় তৈরি হয়ে যান যে বড়ো শট খেলতে পারেন। এটা কোনো এমন ব্যক্তির জন্য সহজ হয়ে যায় যিনি কম সে কম ১০ বা ১৫ বল খেলেছেন। আমার মনেহয় যে রায়ডুর হিট করা সামান্য মুশকিল কারণ ও কিছু আগে থেকেই ব্যাটিং করছিল”।

তিনি আগে বলেন যে,

“ঋষভ আমাকে সাহায্য করছে, ও নিজের দস্তানা খোলে নি আর এতে আমি সামান্য সাহায্য পেয়েছি বাই রান নিতে। আমরা জানতাম যে মাঠে বেশি শিশির থাকবে না। একবার যখন আমরা বোলিংয়ে নিজেদের ইনিংস শুরু করি তো ভাজ্জি ভাই শুরুতে বেশি টার্ন পাচ্ছিলেন না। কিন্তু যেমন যেমন ওরা উইকেট হারাতে থাকে, এটা সামান্য স্লো হয়ে যায় আর স্পিনাররা অনেক বেশি টার্ন পান। আমি অনুভব করছি যে এটা একটা ভাল উইকেট ছিল, ১৭০-১৮০র স্কোর এই মাঠে ভাল ছিল”।

মাহি করলেন এই বোলারের প্রশংসা

জয়ের পর ধোনি বললেন এই কারণে পরের বার চেন্নাই তাকে করবেনা রিটেন 3

মহেন্দ্র সিং ধোনি আগে নিজের বয়ানে বলেন যে,

“ওকে (তাহির) খুশি পালন করতে দেখা ভীষণই মজাদার। আমরা ওকে এটা স্পষ্ট করে দিয়েছি যে আমি আর ওয়াটসন কখনো অর কাছে যাচ্ছি না কারণ যখন ও উইকেট পায় তো ও উল্টো দিকে দৌড়ন। আমার আর ওয়াটসনের জন্য এটা যথেষ্ট মুশকিল হয় কারণ আমরা ১০০ শতাংশ ফিট নই। এই কারণে আমরা ওকে শুভেচ্ছা জানাই আর নিজের জায়গায় চলে আসি। সবচেয়ে ভাল কথা হল ও নিজেও দ্রুত চলে এসে বোলিং করার জন্য প্রস্তুত হয়ে যান”।

তিনি আগে বলেন যে,

“আমার স্ট্যাম্পিংয়ের স্টাইল টেনিস বল ক্রিকেট থেকে এসেছে কিন্তু আপনাকে এমনিতেও স্ট্যাম্পিং করার সময় মূল নিয়মকে মনে রাখতে হয়। আশা করছি যে চেন্নাই সুপার কিংস আমাকে নিজেদের দলেই রাখবে কারণ আমি অনেক বেশি গোপন কথা বলে ফেলছি (হেসে)। এটা ভীষণই ভাল লাগছে যে এখানে মানুষ আমার নাম নেয় না আর আমাকে ‘থালা’ বলে ডাকেন। সমর্থকরা আমাদের দল আর আমাকে অনেক ভালবাসা দেন যেটা ভীষণই ভাল”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *