যুবরাজ সিংয়ের খোলসা, ২০০৭ টি-২০ বিশ্বকাপে ছক্কার বন্যার পর অস্ট্রেলিয়ান দল করেছিল ব্যাট চেকিং

ভারতীয় দলের প্রাক্তন অলরাউন্ডার খেলোয়াড় যুবরাজ সিং ভারতীয় দলের ম্যাচ উইনার খেলোয়াড় থেকেছেন। তিনি ২০০৭ টি-২০ বিশ্বকাপ আর ২০১১ বিশ্বকাপে বিস্ফোরক প্রদর্শন করে টিম ইন্ডিয়াকে খেতাব জেতাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন। এখন যখন সমস্ত খেলোয়াড়রাই করোনা ভাইরাসের কারণে বাড়িতে বন্দী, এর মধ্যেই যুবরাজ সিং স্পোর্টস তককে দেওয়া একটি ইন্টারভিউতে ২০০৭ টি-২০ বিশ্বকাপে বড়ো বড়ো শট মারার একটি ঘটনার ব্যাপারে জানিয়েছেন।

অস্ট্রেলিয়ার কোচ এবং রেফারি করেছিলেন ব্যাটের চেকিং

যুবরাজ সিংয়ের খোলসা, ২০০৭ টি-২০ বিশ্বকাপে ছক্কার বন্যার পর অস্ট্রেলিয়ান দল করেছিল ব্যাট চেকিং 1

ভারতীয় দলের অলরাউন্ডার যুবরাজ সিং ২০০৭ টি-২০ বিশ্বকাপে এমন ব্যাটিং করেছিলেন যে সকলেই অবাক হয়ে গিয়েছিলেন। প্রথমে তিনি ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে স্টুয়ার্ট ব্রডকে এক ওভারে পরপর ৬বলে ৬টি ছক্কা মেরে বিশ্বরেকর্ড গড়েন। এরপর যুবি অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ব্যাটিং করে ১২ বলে হাফসেঞ্চুরি করে ফেলেন, তো ওই ম্যাচে তিনি ৩০ বলে ৭০ রানের বিস্ফোরক ইনিংস খেলেন। এখন স্পোর্টস তককে দেওয়া একটি ইন্টারভিউতে যুবরাজ ২০০৭ বিশ্বকাপে নিজের বিস্ফোরক ইনিংসের ব্যাপারে কথা বলতে গিয়ে জানান,

“যখন আমি এই ইনিংস খেলি সেই সময় অস্ট্রেলিয়া দলের কোচ অ্যাডাম গিলক্রিস্ট আমার কাছে এসেছিলেন আর প্রশ্ন করেছিলেন যে আমার ব্যাটে কি স্প্রিং রয়েছে আর প্রশ্ন করেন যে এটা কী লিগ্যাল? ম্যাচ রেফারি কী এটা চেক করেছে? তো আমি তাকে বলি যে এটা পরীক্ষা করিয়ে নিন। এমনকী গিলক্রিস্ট আমাকে প্রশ্ন করেন যে আমাদের ব্যাট কে তৈরি করে?”

ম্যাচ রেফারিও ব্যাট করেছিলেন চেক

টি-২০আইতে ৫বার যখন এক ওভারে হয়েছে সবচেয়ে বেশি রান, এই ব্যাটসম্যানের নাম রয়েছে দু-বার

অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের বিরুদ্ধে যুবরাজ ৩০ বলে ৭০ রানের ইনিংস খেলে অস্ট্রেলিয়াকে উড়িয়ে দিয়েছিলেন। এরপর যখন অ্যাডাম গিলক্রিস্ট মজা করে যুবরাজের ব্যাটে ফাইবার লাগানোর ব্যাপারে প্রশ্ন করেন তো এরপর ম্যাচ রেফারি যুবরাজের ব্যাট চেক করেন। যুবরাজ যা নিয়ে বলেছেন,

“গিলক্রিস্টের বলার পর ম্যাচ রেফারিও আমার ব্যাটিংয়ের চেকিং করেছিল। কিন্তু আমি সতভাবে যদি বলি তো আমার এই ব্যাট আমার জন্য ভীষণই স্পেশাল ছিল। আমি কখনো এই ধরনের ব্যাটে খেলিনি। এই একটা ব্যাট আর ২০১১ বিশ্বকাপের ব্যাট আমার জন্য স্পেশাল ছিল”।

২০১১য় পেয়েছিলেন প্লেয়ার অফ দ্যা সিরিজের খেতাব

যুবরাজ সিংয়ের খোলসা, ২০০৭ টি-২০ বিশ্বকাপে ছক্কার বন্যার পর অস্ট্রেলিয়ান দল করেছিল ব্যাট চেকিং 2

ভারতীয় ক্রিকেট দলের বিস্ফোরক প্লেয়ার যুবরাজ সিং টি-২০ বিশ্বকাপ ২০০৭এ বিস্ফোরক প্রদর্শনের পর ২০১১ বিশ্বকাপেও নিজের দুর্দান্ত প্রদর্শনের সাহায্যে ভারতকে খেতাব জিততে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। আপনাদের জানিয়ে দিই যে বিশ্বকাপ ২০১১য় যুবরাজ ব্যাটসম্যান হিসেবে ৩৫০ রান আর বোলার হিসেবে ১৫টি উইকেট নেওয়ার বিশ্বরেকর্ড গড়েছিলেন। পুরো টুর্নামেন্ট চলাকালীন দুর্দান্ত প্রদর্শনের জন্য যুবরাজকে প্লেয়ার অফ দ্য সিরিজের খেতাবও দেওয়া হয়েছিল।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *