৫টি কারণ, কেনো UAE তে হতে পারে আইপিএল ২০২০র আয়োজন

আইপিএল ২০২০র আয়োজন ইউএইতে হতে পারে। আসলে ইউএই ক্রিকেট বোর্ড এর অনুমোদন করেছে যে যদি ভারত এই বছর করোণা ভাইরাসের মহামারীর কারণে আইপিএল বিদেশে করার সিদ্ধান্ত নেয়, তো তারা এর আয়োজনের ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন। এখন বিসিসিআইও ইউএই ক্রিকেট বোর্ডের এই অফারের গভীরভাবে ভাবনা চিন্তা করছে। আজ আমরা আপনাদের এই বিশেষ প্রতিবেদনে সেই ৫টি কারণ জানাব, যে কারণে বলা যেতে পারে যে আইপিএল ২০২০র আয়োজন ইউএইতে হওয়া একটা ভালো বিকল্প হবে।

ভারতের তুলনায় ইউএইতে করোনা ভাইরাসের কেস কম

৫টি কারণ, কেনো UAE তে হতে পারে আইপিএল ২০২০র আয়োজন 1

ইউএইতে করোনা ভাইরাসের কেস বর্তমানে অন্য দেশের তুলনায় কম। সেখানে এখনো পর্যন্ত ৫০০০০এর কাছাকাছি করোনা আক্রান্তের কেস রয়েছে, যার মধ্যে ৩৯০০০জন মানুষ সুস্থও হয়ে গিয়েছে। স্রেফ ৩১৮জন মানুষই সেখানে করোনায় মরেছেন। ভারতের তুলনায় ইউএইতে অনেক কম করোনার কেস। ভারতে এখনো পর্যন্ত ৬ লাখ ৫০ হাজারের কাছাকাছি মানুষ করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। ১৮ হাজারের বেশি মানুষ করোনায় মারা গিয়েছেন। এই অবস্থায় ইউএইতেই আইপিএল ২০২০র আয়োজন করা বিসিসিআইয়ের জন্য একটা সঠিক বিকল্প মনে হয়।

২০১৪তেও করা হয়েছিল সফল আয়োজন

৫টি কারণ, কেনো UAE তে হতে পারে আইপিএল ২০২০র আয়োজন 2

আইপিএল ২০১৪ অর্ধেক আইপিএল ইউএইতেই খেলা হয়েছিল। আসলে শুরুর লীগে আইপিএল লোকসভা আয়োজনের কারণে ইউএইতে খেলা হয়েছিল। ইউএইতে খেলা হওয়া আইপিএল ২০১৪ যথেষ্ট ভাল ছিল। ইউএই ক্রিকেট বোর্ড যথেষ্ট ভালো ব্যবস্থা সেই সময় আইপিএলের জন্য করেছিল। যাতে বিসিসিআই আর ইউএই ক্রিকেট বোর্ড যথেষ্ট খুশিও হয়েছিল।

খুব কম দূরত্বে বিশ্বের ২টি দুর্দান্ত আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম

৫টি কারণ, কেনো UAE তে হতে পারে আইপিএল ২০২০র আয়োজন 3

ইউএইতে ২টি এমন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডীয়াম রয়েছে যা যথেষ্ট ফেমাস। একটি স্টেডিয়ামের নাম দুবাই স্পোর্টস সিটি ক্রিকেট স্টেডিয়াম, যাকে দুবাই ক্রিকেট স্টেডিয়ামও বলা হয়ে থাকে। অন্যদিকে দ্বিতীয় স্টেডিয়ামের নাম দুবাই শেখ জায়েদ ক্রিকেট স্টেডিয়াম। এই দুটি স্টেডিয়ামের দূরত্ব যথেষ্ট কম। এই অবস্থায় এই দুটিই স্টেডিয়ামে পুরো আইপিএলের আয়োজন করানো হতে পারে। এতে বিসিসিআইয়েরও করোনা ভাইরাসের এই পরিস্থিতিতে খেলোয়াড়দের বেশি সফর করাতে হবে না।

ইউএইতে কোনো আন্তর্জাতিক সফর নেই

৫টি কারণ, কেনো UAE তে হতে পারে আইপিএল ২০২০র আয়োজন 4

টি-২০ বিশ্বকাপের কারণে অক্টোবর-নভেম্বরে ক্রিকেটের শেডিউল নেই, সেখানে কোনো আন্তর্জাতিক সফর করা হবে না। এই অবস্থায় ওই স্টেডিয়ামগুলি অক্টোবর-নভেম্বরের মাসে সম্পূর্ণভাবে খালি পাওয়া যেতে পারে। কোনো আন্তর্জাতিক সফর না থাকার কারণে বিসিসিআইয়ের কাছে একটি ভালো বিকল্প রয়েছে যে আইপিএল ২০২০র আয়োজন ইউএইতে শিফট করে দেওয়ার। এই অবস্থায় বিসিসিআইয়ের স্টেডীয়ামেরও অভাব হবে না আর তারা আইপিএলের সফল আয়োজন করাতে সফল হতে পারে।

ইউএই দিতে পারে ট্যাক্সে ছাড়ের সঙ্গে বর্তমান সময়ের খেলোয়াড়দের সুরক্ষা

৫টি কারণ, কেনো UAE তে হতে পারে আইপিএল ২০২০র আয়োজন 5

এখন যে কোনো সরকারের জন্য খেলোয়াড়দের সুরক্ষা দেওয়া একটা বড়ো বিষয়। তবে ইউএই সরকার এই বিষয়ে যথেষ্ট এগিয়ে। তারা বর্তমান সময়ে খেলোয়াড়দের সুরক্ষা দিতে পারে। সেই সঙ্গে ইউএই সরকার ট্যাক্সেও ছাড় দিতে পারে, যাতে বিসিসিআইয়ের যথেষ্ট ফায়দা হতে পারে, এর ফলে এই দুই কারণেও ইউএইতে আইপিএল করানো বিসিসিআইয়ের জন্য যথেষ্ট ফায়দার প্রমাণ হতে পারে।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *