স্মিথকে ধাক্কা, নির্বাসনের মুখে রাবাডা

স্মিথকে ধাক্কা, নির্বাসনের মুখে রাবাডা 1

দক্ষিণ আফ্রিকা অস্ট্রেলিয়ার মধ্যে চলতি টেস্ট লড়াইতে ধুন্ধুমার লেগেই চলেছে। কিছুতেই যেনো থামানো যাচ্ছে না একের পর এক বিতর্কের আগুন। এর আগে নাথন লিয়োঁ, ডেভিড ওয়ার্নার, কুইন্টন ডি’ককের পর এবার সেই বিতর্কে জড়িয়ে পড়লেন দক্ষিণ আফ্রিকার জোরে বোলার কাগিসো রাবাডা। মাত্র ৬ দিনের অন্তরালে বিতর্কে জড়ালেন চার চারজন ক্রিকেটার। এখনও পর্যন্ত এই দু’দেশের মধ্যে চলতি সিরিজে খেলা হয়েছে আট দিন। আর দুদলের আগ্রাসনের আগুনে তিন তিনবার বিতর্কে জড়ালেন দু’দলের ক্রিকেটাররা। সাম্প্রতিক ঘটনা অনুযায়ী গত শুক্রবার পোর্ট এলিজাবেথে অনুষ্ঠিত টেস্টের দ্বিতীয় দিন জল আরও গড়ায়। দক্ষন আফ্রিকার জোরে বোলার রাবাডা অস্ট্রেলীয় অধিনায়ক স্টিভ স্মিথকে আউট করার পরই ধাক্কা দেন তার কাঁধে।

স্মিথকে ধাক্কা, নির্বাসনের মুখে রাবাডা 2

আর এই ধাক্কা মারার কারণেই আইসিসির কোড অফ কন্ডাক্টের লেভেল ২ এর অধীনে অভিযুক্ত হন এই তরুণ প্রোটিয়া পেসার। ফলে এই মুহুরতে আইসিসির শাস্তির মুখে দাঁড়িয়ে রয়েছেন এই জোরে বোলার। যদি আইসিসির কাছে নিজেকে নির্দোষ প্রমানিত করতে না পারেন রাবাদা তাহলে এই সিরিজের বাকী ম্যাচে তারঁ খেলার সম্ভবনা ভীষণই ক্ষীণ হয়ে দাঁড়াবে।

স্মিথকে ধাক্কা, নির্বাসনের মুখে রাবাডা 3

প্রসঙ্গত এই সিরিজে আগ্রাসনের কারণেই এখনও পর্যন্ত তিন তিনজন ক্রিকেটার শাস্তির মুখে পড়েছেন। অস্ট্রেলিয়ার স্পিনার নাথান লিয়োঁর ম্যাচ ফি’র ১৫ শতাংশ , ডেভিড ওয়ার্নারের ৭৫ শতাংশ এবং দক্ষিণ আফ্রিকার উইকেট রক্ষক কুইন্টন ডি’কককে ম্যাচ ফির ২৫ শতাংশ জরিমানার সম্মুখীন হতে হয়েছে। তবে স্মিথকে ধাক্কা মেরে উপরোক্ত তিন ক্রিকেটারের চেয়েও অনেক বড়ো অপরাধ করে ফেলেছেন রাবাডা। ফলে তার শাস্তির পরিমান আরও করা হতে আরে। অন্যদিকে শনিবার রাতে এই জোরে বোলারকে আত্মপক্ষ সমর্থনের জন্য ডেকে পাঠান ম্যাচ রেফারি জেফ ক্রো।

স্মিথকে ধাক্কা, নির্বাসনের মুখে রাবাডা 4

যদিও এখনও সেই ঘটনার রায় প্রকাশ করা হয় নি। যদি রাবাডা ম্যাচ রেফারিকে বোঝাতে সক্ষম হন যে তিনি ইচ্চাকৃতভাবে স্মিথকে ধাক্কা দেন নি তাহলে হয়ত তার শাস্তি এড়াতে পারেন অন্যথায় তাকে আইসিসির নিয়ম অনুযায়ী কমপক্ষে দুটি ম্যাচের নির্বাসনের শাস্তির মুখে পড়তে হতে পারে।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *