সমকামিত্বে আর বাধা নেই, ট্য়ুইটারে বিয়ের ঘোষণা এই মহিলা ক্রিকেটারের! 1

সমকামিত্বে আর বাধা নেই, ট্য়ুইটারে বিয়ের ঘোষণা এই মহিলা ক্রিকেটারের! 2

অস্ট্রেলিয়ায় সমকামীদের বিবাহে বৈধতা পেতে চলেছে। আর তার জেরে বেজায় খুশি অস্ট্রেলিয়ার এক মহিলা তারকা ক্রিকেটার। এবার তিনি তাঁর বান্ধবীকে বিয়ে করতে পারবেন নিশ্চিন্তে। সরকারি কোনও বাধা-নিষেধ রইল না আর। বুধবার (১৫ নভেম্বর) দেশের বাষট্টি শতাংশ নিবন্ধিভুক্ত ভোটার সমকামী বিবাহে রায় দিয়েছে। ফলে অস্ট্রেলিয়ার পার্লামেন্টকে এনিয়ে আইন আনতে হচ্ছে শীঘ্রই। অস্ট্রেলিয়ার সংরক্ষণশীলবাদী সরকার পক্ষ জনগণের রায় মেনে নিয়ে জানিয়েছে, আগামী ৭ ডিসেম্বরের মধ্য়েই সমকামীদের বিবাহকে, সাধারণ বিবাহ আইনের সমতূল্য় হিসেবে বিবেচনা করে পার্লামেন্টে বিল আনা হবে পাশ করানোর জন্য। আগামী দুই সপ্তাহ এনিয়েই ব্য়স্ত থাকবেন অজি পার্লামেন্টের সাংসদরা।

সমকামিত্বে আর বাধা নেই, ট্য়ুইটারে বিয়ের ঘোষণা এই মহিলা ক্রিকেটারের! 3

যাইহোক ফিরে আসা যাক ক্রিকেটে। অস্ট্রেলিয়ার মহিলা টিমের স্টার ক্রিকেটার মেগান শ্য়ুত সমকামী। তিনি নিজেও অনলাইন ভোটে অংশ নিয়েছিলেন এবং সমকামী বিবাহের পক্ষে ভোট দেন। শুধু তাই নয়, গত দশ নভেম্বর সমকামী বিবাহের দাবিতে রাস্তায় নেমে মিছিলে পা মিলিয়েও ছিলেন মেগান।

তারপর মেগান ট্য়ুইট করেন, হাজার হাজার ব্য়ক্তি আমার মতোই একই ভাবা-ধারায় বিশ্বাসী। তাদের সঙ্গে মিছিলে পা মিলিয়ে নিজেকে আরও সাহসী মনে হয়। ইতিহাসের পাতায় সঠিক দিকে থাকো, যেটা ঠিক সেটা করো। ভোটে দিয়ে সম্মতি জানান, যাতে আমি আমার মনের মানুষকে বিয়ে করতে পারি।

অনলাইন ভোটের রায় বেরনোর পর খুব খুশি অস্ট্রেলিয়ার মহিলা তারকা ক্রিকেটার। তাঁর বান্ধবী জেস হোলিওয়াকের সঙ্গে চুম্বনরত একটি ছবিও পোস্ট করেছেন মেগান। সমকামী বিবাহকে স্বীকৃতি দেওয়ার পক্ষে জনগণের রায়কে স্বাগত জানিয়ে ট্য়ুইটে তিনি লিখেছেন, হ্য়াঁ, এবার আমি বিয়ে নিয়ে ভাবব। পরিকল্পনা করব। আমার জীবনের প্রেয়সীকে বিয়ে করার জন্য় আর অপেক্ষা করে থাকতে হবে না আমায়। প্রেম জিতেছে। বিয়েতে সমানতা এসেছে।

সমকামিত্বে আর বাধা নেই, ট্য়ুইটারে বিয়ের ঘোষণা এই মহিলা ক্রিকেটারের! 4 সমকামিত্বে আর বাধা নেই, ট্য়ুইটারে বিয়ের ঘোষণা এই মহিলা ক্রিকেটারের! 5

উল্লেখ্য়, মেগান অস্ট্রেলিয়ার মহিলা ক্রিকেট টিমে ২০১২ সাল থেকে নিয়মিত খেলে আসছেন। মহিলা টিমে তিনি একজন তারকা ক্রিকেটার। সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়ান টিমের এই মহিলা ফাস্ট বোলার দুর্দান্ত সাফল্য়ের মধ্য়ে আছেন।

Leave a comment

Your email address will not be published.