বিদেশ থেকে রাজকীয় অভ্যর্থনা পেতে চলেছেন বিরাট কোহলি

বিদেশ থেকে রাজকীয় অভ্যর্থনা পেতে চলেছেন বিরাট কোহলি 1

এই মুহুর্তে বিশ্ব ক্রিকেটের সবচেয়ে বড়ও ব্রান্ড তিনি। ক্রিকেট পণয় হিসেবে তার দাম আকাশ ছোঁয়া। আর শুধু ক্রীড়া জগত নয় তার বাইরেও রয়েছে তার চাহিদা। তিনি ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। দেশের সীমানা ছাড়িয়ে বিদেশে তো বটেই এমনকী পাশের দেশেও ছড়িয়ে পড়েছে তার ক্যারিশমা। সম্প্রতি শ্রীলঙ্কার ক্রীড়ামন্ত্রী দয়াসিরি জয়শেখরা বিরাট-অনুষ্কাকে এই দীপরাষ্ট্রপুঞ্জে যাওয়ার জন্য আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। তবে বিরাট-অনুষ্কাকে তিনি আমন্ত্রণ জানিয়েছেন ক্রিকেট খেলতে বা সিনেমায় অভিনয়ের জন্য নয়। কেবল ছুটি কাটানোর জন্যই এই দুই সেলিব্রিটি কাপলকে নিমন্ত্রণ পাঠিয়েছেন শ্রীলঙ্কার ক্রীড়ামন্ত্রী। গত জানুয়ারী মাসেই বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন এই দুই সুপারস্টার। ইতালিতে বিয়ে সারার পর ভারতের এই এক নম্বর দম্পতির মধুচন্দ্রিমা হয়েছে ফিনল্যান্ড এবং দক্ষিণ আফ্রিকায়।

বিদেশ থেকে রাজকীয় অভ্যর্থনা পেতে চলেছেন বিরাট কোহলি 2

এই দুই তারকার মধুচন্দ্রিমার জায়গাগুলি নিয়ে আগ্রহ রয়েছে প্রায় সারা বিশ্বেরই। তবে ওয়াকিবহাল মহলের ধারণা শ্রীলঙ্কায় পর্যটনকে জনপ্রিয় করতেই বিরুষ্কাকে একসঙ্গে সে দেশে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন ক্রীড়ামন্ত্রী। অবশ্য শ্রীলঙ্কার ক্রীড়ামন্ত্রীর তরফে জানানো হয়েছে যে এই দুই সেলিব্রিটি কাপল বিয়ের পর একবারও শ্রীলঙ্কায় আসেন নি। এবং শ্রীলঙ্কার মানুষও এই দুই নবদম্পতিকে একসঙ্গে দেখার জন্য মুখীয়ে রয়েছেন। তাই তিনি এমন আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। শ্রীলঙ্কার স্বাধীনতার ৭০ বছর উপলক্ষে অনুষ্ঠিত নিদাহাস ট্রফিতে মুখোমুখী হয়েছে ভারত বাংলাদেশ এবং শ্রীলঙ্কা। কিন্তু ভারতীয় বোর্ড দলের সিনিয়র ক্রিকেটারদের বিশ্রামে পাঠিয়ে প্রায় দ্বিতীয় সারির দল পাঠিয়েছিল শ্রীলঙ্কায়। ধোনি, হার্দিক পান্ডিয়া, বুমরাহ এবং অধিনায়ক কোহলিকে বিশ্রামে পাঠিয়েছিলেন তারা। ফলে বিয়ের পর বিরাট যেতে পারেন নি শ্রীলঙ্কায়। এই মুহুর্তে যেহেতু ছুটিতে রয়েছেন বিরাট ফলে এটাই সঠিক সময়। বিরাট অনুষ্কাকে চাক্ষুষ দেখতে তাই সেদেশের ক্রীড়ামন্ত্রী তাদের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন।

বিদেশ থেকে রাজকীয় অভ্যর্থনা পেতে চলেছেন বিরাট কোহলি 3

এমনিতেই শ্রীলঙ্কার প্রাকৃতিক সৌন্দর্য বিশ্ব প্রসিদ্ধ। ফলে সেই প্রাকৃতিক সৌন্দর্যকে আরও আকর্ষণীয় করতে এই তারকা দম্পতিকে রাজকীয় অভ্যর্থনারও বন্দোবোস্ত করেছেন শ্রীলঙ্কার ক্রীড়ামন্ত্রী। বিদেশের কোনও রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব ভারতীয় ক্রিকেটারদের গুনমুগ্ধ হওয়ার ঘটনা এটাই প্রথমবার নয়। একসময় প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনির বিরাট ভক্ত ছিলেন পাকিস্থানী প্রেসিডেন্ট পারভেজ মুশারফ। মুশারফ জনসমক্ষেই সে কথা স্বীকার করেছিলেন। এবার আরও এক পড়শি দেশের রাষ্ট্র নায়ক বিরাটের গুনমুগ্ধ। একেই কি বলে ইতিহাসের আশ্চর্য সমাপাতন!

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *