প্রায় এক যুগ আগে ভারতীয় দলের খেলোয়াড়রা তাদের ফিটনেসের জন্য খুব একটা পরিচিত ছিলেন না। এবং নিউজিল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া এবং দক্ষিণ আফ্রিকার থেকে তারা অনেকটাই পিছিয়ে ছিল। তবে বর্তমান ভারতীয় দলের অনেক খেলোয়াড়রাই এখন আর সেই ক্যাটাগরিতে পড়েন না। বিশ্বসেরাদের সঙ্গে তুলনায় তাদের ফিটনেস লেবেল এখন অনেকটাই উঁচুতে। ভারতীয় ড্রেসিং রুমের এই বদলের ক্ষেত্রে অনেকটাই কৃতিত্ব প্রাপ্য ভারতীয় দলের স্টাফদের। ভারতীয় দলের কন্ডিশনিং কোচ শঙ্কর বসু দলের ফিটনেসের ধারা বজায় রাখতে দলের সকলের জন্যই এই ফিটনেস টেস্ট বাধ্যতামূলক করেছেন। ভারতীয় দলের কোচ এবং নির্বাচক প্রধান এমএসকে প্রসাদ আলরেডি তাদের ভাবনা পরিস্কার করে দিয়েছেন যে ভারতীয় দলের প্রত্যেক খেলোয়াড়কেই শারীরিকভাবে ফিট হতে হবে। দলের প্রতিটা অনুশীলনেই দলের প্রত্যেক প্লেয়ারকেই তাদের স্কিল সেশনের পর কঠোর ফিটনেস সিডিউলের মধ্যে দিয়ে যেতে হয়। ভারতীয় ক্রিকেটারদের এখন ডিএনএ ফিটনেস টেস্টের মধ্যে দিয়ে যেতে হবে যা দলের প্রতিটা খেলোয়াড়ের জেনেটিক ফিটনেস প্রকাশ করবে। এই ফিটনেস টেস্টের মাধ্যমে প্লেয়ারদের স্পীড, ফ্যাট বার্নিং, এনডিওরেন্স রিকভারি টাইমের এবং মাসল বিল্ডিংয়ে প্রভূত উন্নতি ঘটানো সম্ভব হবে। এরপর সমস্ত রকম অ্যানালিসিসের জন্য প্রতিটা প্লেয়ারের ডিএনএ ডাটা মেলানো হবে তাদের এনভায়ারমেন্টাল ডাটা যেমন তাদের বডি ওয়েট এবং ডায়েটের সঙ্গে।
বিসিসিআইয়ের এক অফিসিয়াল জানিয়েছেন, “ হ্যাঁ, এখন কিছু সময়ের জন্য আমরা ভারতীয় দলের খেলোয়াড়দের জন্য ডিএনএ টেস্ট শুরু করতে চলেছি। এটা বেসিক্যালি টিমম্যানেজমেন্ট সেট করেছে ফিটনেসের প্যারামিটার হিসেবে। এই ডিএনএ টেস্ট প্রথম শুরু হয় আমেরিকার এনবিএ (বাস্কেটবল), এবং এনএফএল দলের জন্য। এই আইডিয়াটা নিয়ে শঙ্কর বসু আলোচনা করেন এবং প্রমান হয় এটা যথেষ্ট কার্যকরি। আর প্রত্যেকটা প্লেয়ারের জন্য এই টেস্ট করতে বিসিসিআইয়ের খরচ পড়বে কমপক্ষে ২৫০০০ থেকে ৩০০০০ হাজার টাকা”।

এই টেস্ট খেলোয়াড়দের শরীর থেকে ফ্যাট পারসেন্টেজ কমাতে শুরু করা হচ্ছে। ভারতীয় দলের একজন খেলোয়াড়ের ফ্যাট পারসেন্টেজ লিমিট রাখা হয়েছে ২৩। যা সাধারনত প্রায় প্রতিটা আন্তর্জাতিক ক্রিকেট টিমের ক্ষেত্রেই একটা স্ট্যান্ডার্ট। আগে ভারতীয় দলের ক্ষেত্রে স্কীট ফোল্ড টেস্ট করা হত, পরে তা বদলে ডিইএক্সএ টেস্ট করা শুরু হয়। ওই অফিসিয়ালের কথায়, “ আগে প্রাথমিক ভাবে দীর্ঘ সময়ের জন্য স্কিনফোল্ড টেস্ট করা হত। কিন্তু পরে জানা যায় শরীরের ফ্যাটের পরিমানের পারসেন্টেজ জানতে এই টেস্টের ফলাফল অ্যাকুরেট হয় না। পরে শরীরের ফ্যাট পারসেন্টেজ ক্যালকুলেট করতে ডিইএক্সএ পরীক্ষার সাহায্য নেওয়া হয়। এখন ডিএনএ টেস্ট করা হচ্ছে কারণ পার্টিকুলার ফ্যাট পারসেন্টেজ মেনটেন করতে শরীরের কি কি প্রয়োজনীয়তা তা জানার জন্য”।

  • SHARE
    সাংবাদিক, আদ্যন্ত ক্রীড়াপ্রেমী। দ্বিতীয় ডিভিসনে দীর্ঘদিন ক্রিকেট খেলার দরুণ ক্রিকেটের অন্ধ ভক্ত। ব্রায়ান লারা সচিনের অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের বাইরে ব্রাজিলের সমর্থক এবং নেইমার ও মেসির অন্ধ ভক্ত।

    আরও পড়ুন

    আইপিএলে দল না পেয়ে বিধ্বংসী মার্টিন গাপ্তিল, সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোলড কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের মালকিন

    আইপিএলে দল না পেয়ে বিধ্বংসী মার্টিন গাপ্তিল, সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোলড কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের মালকিন
    আসন্ন আইপিএল ২০১৮র নিলামে দল পাননি তিনি। নিলামে অবিক্রীতই থেকে গেছিলেন নিউজিল্যান্ডের মার্টিন গাপ্তিল। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে দুরন্ত...

    আইপিএল২০১৮: সম্পূর্ণ সূচী, ম্যাচের সময়, স্থান, এবং অন্যান্য বিবরণ

    মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে আগামি ৭ এপ্রিল থেকে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স এবং এই আইপিএলে নির্বাসন কাটিয়ে ফিরে...

    সারা তেন্ডুলকরের ফেক আইডি বানিয়ে এনসিপি প্রধানকে উত্যক্ত করার অপরাধে গ্রেপ্তার এক ব্যক্তি

    সারা তেন্ডুলকরের ফেক আইডি বানিয়ে এনসিপি প্রধানকে উত্যক্ত করার অপরাধে গ্রেপ্তার এক ব্যক্তি
    কিছুদিন আগেই ভারতের কিংবদন্তী ক্রিকেটের শচীন তেন্ডুলকরের মেয়ে সারা তেন্ডুলকরের মেয়েকে উত্যক্ত করার অপরাধে গ্রেপ্তার হয়েছিলেন পশ্চিম...

    সোশ্যাল মিডিয়ায় ভারত অধিনায়ক বিরাটকে অপমান করলেন কপিল শর্মা

    সোশ্যাল মিডিয়ায় ভারত অধিনায়ক বিরাটকে অপমান করলেন কপিল শর্মা
    ফের বিতর্কে কমেডিয়ান কপিল শর্মা। এবার তিনি সরাসরি অপমান করলেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে। যার ফলে রাগে...

    ভারত দক্ষিণ আফ্রিকা একদিনের সিরিজ: চতুর্থ ওয়ান ডে চলাকালীন বর্ণবিদ্বেষের শিকার দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেটার

    ভারত দক্ষিণ আফ্রিকা একদিনের সিরিজ: চতুর্থ ওয়ান ডে চলাকালীন বর্ণবিদ্বেষের শিকার দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেটার
    ভারত দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যে ওয়ান ডে সিরিজ চলাকালীনই ঘটে গেল এক অপ্রীতিকর ঘটনা। জোহানেসবার্গের চতুর্থ ওয়ান ডে...