টুইটার রিঅ্যাকশন: সামান্য রান তাড়া করতে গিয়ে হায়দ্রাবাদের বিরুদ্ধে হাসির উদ্রেক করল মুম্বাই

বর্তমান আইপিএল চ্যাম্পিয়ন মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স দারুণভাবে এই মরশুমে তাদের পরিকল্পনায় ব্যর্থ হয়েছে। মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে তাদের সাম্প্রতিক ম্যাচে মেন ইন ব্লু সামান্য রান তাড়া করতে গিয়ে হাসির উদ্রেক করেছে। এদিন তাদের সামনে লক্ষ্যমাত্রা ছিল ১১৮ রানের। কিন্তু ব্যাট হাতে ঘরের দল কোনও প্রদর্শনই করতে পারে নি এবং খুব স্বাভাবিকভাবেই তাদের ইনিংসকে ভেঙে পড়তে দেখা যায়। মুম্বাই উনিশতম ওভারে মাত্র ৮৭ রানে অলআউট হয়ে গিয়ে ৩১ রানে জয় তুলে দেয় অতিথি দলের হাতে। এই হার পরাজয় মুম্বাইয়ের কাছে বিশাল ধাক্কা হয়ে দেখা দেয় কারণ এই মরশুমে এটি তাদের ৬টি ম্যাচের মধ্যে পঞ্চম পরাজয়।

টুইটার রিঅ্যাকশন: সামান্য রান তাড়া করতে গিয়ে হায়দ্রাবাদের বিরুদ্ধে হাসির উদ্রেক করল মুম্বাই 1

এখান থেকেই, সবকিছুই তাদের জন্য মুশকিল হয়ে পড়বে যদি তারা এই প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে চায়। এই ম্যাচের শুরুতেই মুম্বাই ইন্ডিয়ান অধিনায়ক টসে জিতে আগে ফিল্ডিং নিতে দ্বিধাবোধ করেন নি। এই ম্যাচের দ্বিতীয় ওভারেই মিচেল ম্যাকলেনাঘনের জোড়া ধাক্কায় শিখর ধবন এবং ঋদ্ধিমান সাহাকে প্যাভিলিয়নে ফিরতে দেখা যায়। মনীশ পান্ডে সাকারত্মক বার্তা দিয়ে শুরু করেন কিন্তু ১৬ তম ওভারে হার্দিক পান্ডিয়ার শিকার হয়ে ফিরে যান। এরপরই সাকিব আল হাসানের দ্রুত রান আউট এই ম্যাচে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদকে সম্পুর্ণ সমস্যায় ফেলে দেয়। সমস্ত আশাই এরপর গিয়ে পড়ে অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনের ঘাড়ে। পান্ডিয়ার দ্বিতীয় শিকার হওয়ার আগে এই অভিজ্ঞ কিউয়ি ব্যাটসম্যান ২১ বলে ২৯ রানের ইনিংস খেলেন।

টুইটার রিঅ্যাকশন: সামান্য রান তাড়া করতে গিয়ে হায়দ্রাবাদের বিরুদ্ধে হাসির উদ্রেক করল মুম্বাই 2

৮.১ ওভারে ৬৩/৫ হয়ে যাওয়ায়, হায়দ্রাবাদ বুঝে যায় তারা ইনিংসে বড় ভন্ডুল করে ফেলেছে। মহম্মদ নবী (১৪) এবং ইউসুফ পাঠানের (২৯) সংক্ষিপ্ত প্রতিরোধ তাদের জন্য আশার বার্তা নিয়ে আসে, কিন্তু সেই প্রতিরোধও শেষ পর্যন্ত ভেঙে পড়ে। একদিক থেকে পড়া ক্রমাগত চালু থাকে এবং অন্যদিকে একা দুর্গ আগলে পোড়ে থাকেন ইউসুফ পাঠান। পাঠানের বৈশিষ্টের বিপরীতে তিনি ৩৩ বলে ২৯ রানের ইনিংস খেলেন, যার দৌলতে হায়দ্রাবাদ ১৮.৪ ওভারে ১১৮ রানের শেষ হয়ে যায়। শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হন ইউসুফ। মুম্বাইয়ের ব্যাটিং উইকেটে ১১৮ রানের লক্ষ্যমাত্রা খুব সহজ দেখায়। কিন্তু ওয়াংখেড়ে পিচ আরও বেশ কিছু বিষ উগড়ে দেয় ম্যাচ যত এগোতে থাকে।৮.১ ওভারে ৬৩/৫ হয়ে যাওয়ায়, হায়দ্রাবাদ বুঝে যায় তারা ইনিংসে বড় ভন্ডুল করে ফেলেছে। মহম্মদ নবী (১৪) এবং ইউসুফ পাঠানের (২৯) সংক্ষিপ্ত প্রতিরোধ তাদের জন্য আশার বার্তা নিয়ে আসে, কিন্তু সেই প্রতিরোধও শেষ পর্যন্ত ভেঙে পড়ে। একদিক থেকে পড়া ক্রমাগত চালু থাকে এবং অন্যদিকে একা দুর্গ আগলে পোড়ে থাকেন ইউসুফ পাঠান। পাঠানের বৈশিষ্টের বিপরীতে তিনি ৩৩ বলে ২৯ রানের ইনিংস খেলেন, যার দৌলতে হায়দ্রাবাদ ১৮.৪ ওভারে ১১৮ রানের শেষ হয়ে যায়। শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হন ইউসুফ। মুম্বাইয়ের ব্যাটিং উইকেটে ১১৮ রানের লক্ষ্যমাত্রা খুব সহজ দেখায়। কিন্তু ওয়াংখেড়ে পিচ আরও বেশ কিছু বিষ উগড়ে দেয় ম্যাচ যত এগোতে থাকে।

টুইটার রিঅ্যাকশন: সামান্য রান তাড়া করতে গিয়ে হায়দ্রাবাদের বিরুদ্ধে হাসির উদ্রেক করল মুম্বাই 3

রান তাড়া করার সময় ম্যাচের তৃতীয় ওভার থেকেই মুম্বাইয়ে উইকেট নিয়মিত অন্তরালে পড়তে থাকে। সূর্যকুমার যাদব এবং ক্রুণাল পান্ডিয়াকে ছেড়ে আর কোনও ব্যাটসম্যানই দুই অঙ্কের রানে পৌঁছতে পারেন নি। ৩৪ বলে ৩৮ রানের ইনিংস খেলে মুম্বাইয়ের জন্য আশা জিইয়ে রাখেন সূর্যকুমার যাদব। কিন্তু তার আউট হওয়ায় মানে দাঁড়ায় যে তাদের অনিবার্য হার আর মাত্র কয়েক ইঞ্চি দূরেই রয়েছে। স্বাভাবিকভাবেই মুম্বাইয়ের ইনিংস ১৯ তম ওভারে ৮৭ রানে শেষ হয়ে যায় এবং হায়দ্রাবাদ এই মরশুমে তাদের চতুর্থ জয় হাসিল করে। মুম্বাইয়ের এই হাস্যকর রান তাড়া দেখে মাইক্রো ব্লগিং সাইট টুইটারে সমস্ত ক্ষোভ উগড়ে দেয় মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের সমর্থকরা। অন্যদিকে মুম্বাইয়ের সমালোচনা করার পাশাপাশি সমর্থকদের সঙ্গে সঙ্গে বহু প্রাক্তন ক্রিকেটার এবং বিশেষজ্ঞই হায়দ্রাবাদের প্রসংশায় পঞ্চমুখ হয়েছেন।

টুইটার রিঅ্যাকশন: সামান্য রান তাড়া করতে গিয়ে হায়দ্রাবাদের বিরুদ্ধে হাসির উদ্রেক করল মুম্বাই 4

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *