কলকাতার অধিনায়ক হয়ে খুশি নন দীনেশ কার্তিক

কলকাতার অধিনায়ক হয়ে খুশি নন দীনেশ কার্তিক 1

এই প্রথমবার গৌতম গম্ভীরের ছেড়ে যাওয়া চেয়ারে বসছেন নতুন নাইট নেতা দীনেশ কার্তিক। নাইট সংসারেও এটাই তার প্রথমবার। ফলে তাকে নিয়েই নতুন করে স্বপ্ন দেখছেন কেকেআর ভক্তরা। আর সেই চ্যালেঞ্জ নিতে তিনিও যে প্রস্তুত হাবেভাবেই তা বুঝিয়ে দিয়েছেন তিনি। নাইট সংসারে তিনি প্রায় রাজার মর্যাদা পাচ্ছেন। কিন্তু এত কিছু সত্ত্বেও খুশি নন ভারতীয় ক্রিকেটের নতুন মিয়াঁদদ। ভেতরে ভেতরে মন খারাপ তাকে কুরে কুরে খাছে। এত কিছু পেয়েও খুশি নন কেন ভারতীয় ক্রিকেটের এই নতুন তারকা? আসলে দীনেশের স্বপ্ন ছিল কেকেআর নয় চেন্নাই সুপার কিংসের হয়ে খেলা। কিন্তু যেহেতু এ বছর তাকে নিলামে কিনেছে কেকেআর, ফলে স্বপ্ন ভঙ্গের হতাশা চেপে রাখতে পারেন নি এই উইকেটকীপার ব্যাটসম্যান। হতাশা এতটাই যে একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে কার্যত সেই হতাশার কথা বলেই দিয়েছে তিনি।

কলকাতার অধিনায়ক হয়ে খুশি নন দীনেশ কার্তিক 2

ওই সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে নতুন নাইট নেতা বলেছেন, “ আমার চেন্নাইয়ের হয়ে খেলার ইচ্ছে ছিল প্রথম আইপিএল থেকেই। দশ বছর এই প্রতিযোগিতায় খেললেও এখনও পর্যন্ত একবারও চেন্নাইয়ের জার্সি পরে খেলা হয় নি”। প্রথম আইপিএল থেকে এ পর্যন্ত গত দশটি আইপিএলে প্রায় ৬টি ফ্রেঞ্চাইজির হয়ে খেলে ফেলেছেন তিনি কিন্তু এখনও নিজের ঘরের দলের জার্সিই গায়ে চাপাতে পারেন নি। তার সেই হতাশাই ঝরে পড়েছে ওই সাক্ষাৎকারে। তীব্র আক্ষেপে তিনি বলেছেন, “ আমি গত দশটি মরশুমে আলাদা আলাদা ছটি দলের হয়ে খেললেও চেন্নাইয়ের হয়ে একবারও খেলা হয় নি। আমি নিজে চেন্নাইয়ের ছেলে তাই সবচেয়ে বেশি চেন্নাইকেই ভালবাসি ”।

কলকাতার অধিনায়ক হয়ে খুশি নন দীনেশ কার্তিক 3

চেন্নাইয়ের প্রতি তার আবেগ থাকলেও কেকেআরে তার বর্তমান দায়িত্ব নিয়ে তিনি সম্পূর্ণ সচেতন। এ নিয়ে ওই সংবাদমাধ্যমে তিনি বলেছেন, “ এবারের আইপিএলে অন্যতম জনপ্রিয় দলের অধিনায়ক হওয়ার সুযোগ পেয়েছি আমি। এটা আমার কাছে ভীষণ সৌভাগ্যের। আমাকে এই আইপিএলে নিজেকে প্রমান করতে হবে। চেন্নাই, কলকাতা, ব্যাঙ্গালোর এবং মুম্বাইয়ের নিজেদের আইপিএলে প্রচুর লোকাল ফ্যানবেস রয়েছে। আর এটাই আইপিএলে ক্রিকেটের সৌন্দর্য”। নিজের অধিনায়ক হওয়া নিয়ে কার্তিক আরও বলেন, “ এটাই আমার প্রথম অধিনায়কত্ব আইপিএলে। আমি তাই এটাকে উপভোগ করতে চাই সেই সঙ্গে সামনের দিকেও তাকাতে চাই আমি”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *