ভারতের প্রাক্তন অধিনায়ক সুনীল গাভাস্কার মনে করেন, বিরাট কোহলির মেন ইন ব্লু টিমের দুই তরুণ সদস্য় যুজবেন্দ্র চহল এবং জসপ্রীত বুমরাহ ভারতের জাতীয় দলের সাদা জার্সি গায়ে চাপানোর মতো তৈরি হয়ে গিয়েছেন। গত মঙ্গলবার (সাত নভেম্বর) ত্রিবান্দমে সিরিজ নির্ণায় তৃতীয় টি-২০ ম্য়াচে যেভাবে দু’জনে বল করেন এবং ভারতকে ম্য়াচ জেতান, তাতে গাভাস্কারের মুগ্ধ হয়েছেন। তাঁর মনে হয়েছে, দু’জনেই এখন পরিণত। এরপরেই গাভাস্কার দু’জনকে ভারতীয় টেস্ট দলে অন্তর্ভুক্ত করার কথা বলেন।
সেদিন বৃষ্টি বিঘ্নিত ওই ম্য়াচে বুমরাহ ৯ রান খরচ করে ২টি উইকেট তুলে নেন। চহল বেশ আঁটোসাঁটো বোলিং করে মাত্র আট রান দেন। আট ওভারে ভারতের ৬৭ রান তোলার পর কিউয়িদের ৬১ রানেই বেঁধে রাখতে সাহায্য করেন দুই বোলার। ভারত টি-২০ সিরিজ ২-১ ব্য়বধানে জেতে।
একটি বেসরকারি টিভি চ্য়ানেলকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে সানি বলেন, ”ওরা (চহল ও বুমরাহ) দারুন বল করেছে। আইপিএল খেলে যে অভিজ্ঞতা লাভ করেছে, দু’জনেই তা কাজে লাগাচ্ছে এখন। ওদেরকে এবার টেস্ট ম্য়াচ খেলার জন্য়ও বিবেচনার মধ্য়ে আনা প্রয়োজন।”
এখানে বলে রাখা প্রয়োজন, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ডেথ ওভার স্পেশালিস্ট হয়ে ওঠা আইপিএল ক্রিকেট খেলেই রপ্ত করেছেন ফাস্ট বোলার বুমরাহ। মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে আন্তর্জাতিক মানের তারকাদের সঙ্গে ক্রিকেট খেলা সুবিধা পাওয়ায় অল্প বয়সেই বেশ অভিজ্ঞ বোলার হয়ে উঠেছেন তিনি।
ওদিকে, রিস্ট স্পিনার চহল আবার আরেক রিস্ট স্পিনার কুলদীপ যাদবের সঙ্গে জুটি বেঁধে ধুরন্ধর হয়ে ওঠার পাশাপাশি আইপিএলে বিরাটের টিম রয়্য়াল চ্য়ালেঞ্জার্স ব্য়াঙ্গালোরের হয়ে খেলার সুবিধার্থে অধিনায়ক বিরাট কি চাইছেন বা চান, সেটা অনেক আগে থেকেই বুঝে যান জাতীয় দলের হয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলার সময়। ইদানিং তিন তরুণ স্পিনার চহল, যাদব ও অক্ষর প্য়াটেলের কারণে সীমিত ওভারের ক্রিকেটে ভারতীয় দলে ঢোকার রাস্তা আপাতত বন্ধ হয়ে গিয়েছে দুই অভিজ্ঞ স্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিন ও রবীন্দ্র জাদেজার জন্য়। এখন তাঁদেরকে টেস্ট ক্রিকেট ছাড়া বাকি দুই ফরম্য়াটে বিবেচনায় আনা হচ্ছে না।
আগামী ১৬ নভম্বর থেকে আবার শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে পূর্ণাঙ্গ ক্রিকেট সিরিজে নামবে ভারত। প্রথম দু’টি টেস্টের জন্য় দল ঘোষণা আগেই হয়ে গিয়েছে। প্রথম দু’টি টেস্ট ভারত যদি জিতে নেয়, তাহলে তৃতীয় টেস্টে অনায়াসে চহল ও বুমরাহ’কে লাল বলের আসরে পরখ করে নিতেই পারেন নির্বাচকরা।
যদিও গাভাস্কারের পরামর্শ শোনার পর বিশেষজ্ঞ মহল বলছে, এত তাড়াতাড়ি দু’জনকে টেস্টের আসরে নামিয়ে দিলে দু’জনে কারিকুরী ধরে ফেলবে বিপক্ষ টিম। কারণ, টেস্টের আসর আর সীমিত ওভারের ক্রিকেট এক নয়। ওখানে ধৈর্য্য়ের পরীক্ষার পাশাপাশি বোলিংয়ে নানা বৈচিত্র আনতে হয়। দুই বোলার যদি টেস্টের আসরে ফল্প করেন, তাহলে নৈতিকভাবে যেমন নুইয়ে পড়বেন, আবার এক ইনিংসে ২৫-৩০ ওভার বল করতে করতে ম্য়াড়ম্য়াড়ে হয়ে পড়বেন। ভারত এখন যেহেতু ২০১৯ বিশ্বকাপের দিকে লক্ষ্য় রেখে দল গড়ছে, ওদিকেই প্রাধ্য়ন্য়টা থাকুক। আপাতত দু’জনকে সীমিত ওভারের ক্রিকেটেই ক্রমাগত পরখ করে যাওয়া হোক একটা কোর টিম তৈরির লক্ষ্য়ে। আর বিশেষ করে টেস্ট ও সীমিত ওভারের ক্রিকেট টিম প্রায় ভিন্ন হয়ে গেলে ক্রিকেটারদের ওপর থেকে চাপ ও ধকল অনেক কমে যায়। বর্তমানে এই কারণে ভারতীয় দল এত আক্রমণাত্মক ক্রিকেট খেলতে পারছে।

  • SHARE
    A sports enthusiast and a critic. Journalism is all about being unbiased to create positive influence from negative angle.

    আরও পড়ুন

    বিরাটের কাছেই স্পিন খেলা শিখেছি: স্টিভ স্মিথ

    বিরাটের কাছেই স্পিন খেলা শিখেছি: স্টিভ স্মিথ
    বিশ্ব ক্রিকেটে এই মুহুর্তে তাদের মধ্যে চলছে শ্রেষ্ঠত্বের লড়াই। তা সত্ত্বেও এই দুজনের মধ্যে একে অপরকে সম্মান...

    তৃতীয় টি২০তে এই তারকার খেলা নিয়ে সন্দেহ

    পিটিআইয়ের একটি রিপোর্টের মোতাবিক তৃতীয় এবং ফাইনাল ওয়ান ডেতে জসপ্রীত বুমরাহের অংশ নেওয়া এখনও সন্দেহজন অবস্থায় রয়েছে।...

    বিশ্বকাপে ভারতীয় স্পিন বিভাগে কারা খেলবেন মুখ খুলনে নির্বাচক প্রধান

    বিশ্বকাপে ভারতীয় স্পিন বিভাগে কারা খেলবেন মুখ খুলনে নির্বাচক প্রধান
    ২০১৯ বিশ্বকাপের বাকি আর মাত্র দেড় বছর। তার আগে গত ২ বছর ধরেই দুরন্ত ফর্মে রয়েছে ভারতীয়...

    অনুষ্কাকে যাবতীয় কৃতিত্ব দিয়ে অবসর নিয়ে মুখ খুললেন কোহলি

    অনুষ্কাকে যাবতীয় কৃতিত্ব দিয়ে অবসর নিয়ে মুখ খুললেন কোহলি
    তার ব্যাটিং প্রতিভা নিয়ে সন্দেহ নেই কারও। সকলেই একবাক্যে স্বীকার করে নিয়েছেন যে তিনি ব্যাটিংয়ের জিনিয়াস। তামাম...

    প্রোটিয়াদের বিরুদ্ধে সদ্য সমাপ্ত একদিনের সিরিজে যে যে রেকর্ড গড়লেন ভারত অধিনায়ক বিরাট

    তার শ্রেষ্ঠত্ব মেনে নিয়েছে ক্রিকেট বিশ্বের সকলেই। বিশ্বের সর্বকালের সেরা একদিনের ক্রিকেটার হিসেবে তাকে মেনেও নিয়েছেন সকলে।...