আইপিএল ২০১৮: ম্যাচ ১৩, কলকাতা নাইট রাইডার্স বনাম দিল্লি ডেয়ারডেভিলস, স্ট্যাটিস্টিক্যাল হাইলাটস

আইপিএল ২০১৮ মরশুমের ট্রেন্ডে দাঁড়িয়ে গেছে রান তাড়া করে করে দেওয়া। কিন্তু গত শেষে তিনটি ম্যাচ দেখে মনে হচ্ছে এবার হয়ত সেই ট্রেন্ডের বদল ঘটে দেখা যাচ্ছে। গতকাল ঘরের মাঠে প্রথমে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে কলকাতা নাইট রাইডার্স ২০০/৯ রানের বিশাল স্কোর দাঁড় করায়। মূলত নীতিশ রানা এবং অ্যান্দ্রে রাসেলের ব্যাটে ভর করে এই রান করে কেকেআর। সেইসঙ্গে এই নিয়ে পরপর তিন ম্যাচে আগে ব্যাট করা দল ১৯০ রানের বেশি স্কোর বাঁচাতে সক্ষম হল। অন্যদিকে কলকাতার রান নাড়া করতে নেমে শুরুতেই তিন উইকেটে হারিয়ে ফেলে চাপে পড়ে যায় দিল্লি। যদিও মিডল ওভারে ঋষভ পন্থ এবং গ্লেন ম্যাক্সওয়েল কিছুটা চেষ্টা করলেও মূলিত কলকাতার স্পিনারদের কাছেই হার মানেন তারা। শেষে পর্যন্ত ১৩ ওভারে ১২৯ রানে শেষ হয়ে যার দিল্লি। একবার দেখে নেওয়া যাক এই ম্যাচে নথিভূক্ত হওয়া পরিসংখ্যানসংক্রান্ত রেকর্ড।

আইপিএল ২০১৮: ম্যাচ ১৩, কলকাতা নাইট রাইডার্স বনাম দিল্লি ডেয়ারডেভিলস, স্ট্যাটিস্টিক্যাল হাইলাটস 1

এই ম্যাচের পরিসংখ্যানগত রেকর্ড:

১— নাইটদের ইনিংসের প্রথম ওভারে ট্রেন্ট বোল্টের করা মেডেন ওভার এই আইপিএলে একমাত্র মেডেন ওভার। এছাড়াও এই ম্যাচের শেষে ওভারের শেষ পাঁচ বলে ৩ উইকেট হারানোর পাশাপাশি কোনও রানও করতে পারে নি কেকেআর।

৬— এই ম্যাচে মোট ছটি ছয় মারেন অ্যান্দ্রে রাসেল, আর এই ছ’টি ছয়ই তিনি মারেন দিল্লির জোরে বোলার মহম্মদ শামিকে। আইপিএলে রাসেলের একটি মাত্র বোলার মারা ছটি ছয় আইপিএলে মাত্র ৩ বারই হয়েছে। এই মরশুমের প্রথম দিকে সিএসকের বিরুদ্ধে ম্যাচে ডোয়েন ব্র্যাভোকে ছটি ছয় মারেন রাসেল এছাড়া আরসিবি অধিনায়ক বিয়াট কোহলিও গুজরাটের বোলার কে সি চিরায়াপ্পাকে ছটি ছয় মেরেছিলেন ২০১৬ মরশুমে।

আইপিএল ২০১৮: ম্যাচ ১৩, কলকাতা নাইট রাইডার্স বনাম দিল্লি ডেয়ারডেভিলস, স্ট্যাটিস্টিক্যাল হাইলাটস 2

১৫— আইপিএলে এই নিয়ে দ্বিতীয়বার কেকেআর এক আইপিএল ইনিংসে ১৫টি ছক্কা মারে। আইপিএলে এক ইনিংসে তারা সবচেয়ে বেশি ছয় মেরেছিল সিএসকের বিরুদ্ধে ১৭টি। অন্যদিকে এই প্রথমবার ইডেন গার্ডেন্সে কোনও দল এক আইপিএল ইনিংসে ১৫টির বেশ ছয় মারল।

৭১— এই ম্যাচে ৭১ রানে জয় আইপিএলে কলকাতা নাইট রাইডার্সের সবচেয়ে বড় ব্যাবধানের জয় হিসেবে তৃতীয়। প্রথম আইপিএলে ২০০৮ মরশুমের প্রথম ম্যাচেই কেকেআর আরসিবিকে হারায় ১৪০ রানে। এছাড়াও গতবারের মরশুমে তারা এই মাঠেই আরসিবিকে হারিয়েছে ৮২ রানে।

আইপিএল ২০১৮: ম্যাচ ১৩, কলকাতা নাইট রাইডার্স বনাম দিল্লি ডেয়ারডেভিলস, স্ট্যাটিস্টিক্যাল হাইলাটস 3

১০২—প্রথম বিদেশি স্পিনার হিসেবে এই ম্যাচে আইপিএলে ১০০ উইকেট নিলেন কেকেআর স্পিনার সুনীল নারিন। এছাড়াও নারিন আইপিএলের তৃতীয় প্লেয়ার হিসেবে একটি দলের হয়ে খেলেই ১০০টি উইকেট নিলেন। আইপিএলে নারিনের মোট ১০২টি উইকেট তিনি নিয়েছেন কেকেআরের হয়ে খেলে। এর আগে লাসিথ মালিঙ্গা (১৫৮)এবং হরভজন সিং (১২৭) মুম্বাইয়ের হয়ে খেলে আইপিএলে ১০০টি বেশি উইকেট নিয়েছেন।

২০০/৯— এই ম্যাচে কলকাতা নাইট রাইডার্সের করা ২০০/৯ ইডেনে গার্ডেনে করা তাদের যুগ্ম সর্বোচ্চ দলগত রান। ২০১০ তারা কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের বিরুদ্ধে ২০০/ ৩ রান করেছিল, কিন্তু সেই ম্যাচ তারা হেরে যায় ৮ উইকেটে।

আইপিএল ২০১৮: ম্যাচ ১৩, কলকাতা নাইট রাইডার্স বনাম দিল্লি ডেয়ারডেভিলস, স্ট্যাটিস্টিক্যাল হাইলাটস 4

৩৪১.৬৭— এই ম্যাচে ১২ বলে ৪১ রান করার সময় অ্যান্দ্রে রাসেলের স্ট্রাইক রেট ছিল ৩৪১.67 যা এক আইপিএল ইনিংসে কোনও কেকেআর ব্যাটসম্যানের করা সর্বোচ্চ স্ট্রাইক রেট। এছাড়াও রাসেলের এই স্ট্রাইক রেট আইপিএলে কোনও ব্যাটসম্যানের এক ইনিংসে করা চতুর্থ সর্বোচ্চ স্ট্রাইক রেট (মিনিমাম ৪০ রান)।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *