আইপিএল ২০১৮ : গম্ভীরকে বাদ দেওয়ার সিদ্ধান্ত কার, প্রকাশ করলেন দিল্লির নতুন অধিনায়ক

প্রাক্তন নাইট তথা দিল্লির অধিনায়ক গৌতম গম্ভীর চলতি আইপিএলকে দ্রুত ভুলে যেতে চাইবেন। নাইট রাইডার্সকে দু’বার খেতাব জেতানো এই অধিনায়ক তার পুরোনো দলে ফিরে এসেছিলেন বহু আশা নিয়ে যাতে তিনি তার পুরোনো দলের হয়ে খেলেই এই প্রতিযোগিতা থেকে মাথা উঁচু করে চলে যেতে পারেন। কিন্তু তার ভাগ্য বোধহয় অন্য কিছুই ভেবে রেখেছিল তার জন্য। গম্ভীরের আশা দুর্ভাগ্যে বদলাতে খুব বেশি দেরী লাগে নি। ৬টি ম্যাচের মধ্যে ৫টি তেই হেরে যার তার অধিনায়কত্বে দিল্লির ডেয়ারডেভিলস। এমনকী গম্ভীর নিজেও ব্যর্থ হন সামনে থেকে দলকে নেতৃত্ব দিতে। এই মরশুমে প্রথম ম্যাচে ৫৫ রান বাদ দিলে তার পর থেকে গম্ভীরের ব্যাট নিস্প্রভই থেকেছে। এখনও পর্যন্ত ৬টি ম্যাচে তিনি করেছেন মাত্র ৮৫ রান। এর পরই সকলে চমকে দিয়ে নেতৃত্ব থেকে সরে দাঁড়ান তিনি। এমনকী কলকাতার বিরুদ্ধেও তাকে প্রথম একাদশে রাখা হয় নি। আইপিএলে ধারাবিকভাবে ১২২টি ম্যাচ খেলার পর গত আট বছরে এই প্রথমবার তিনি বাদ পড়লেন প্রথম একাদশ থেকে।
আইপিএল ২০১৮ : গম্ভীরকে বাদ দেওয়ার সিদ্ধান্ত কার, প্রকাশ করলেন দিল্লির নতুন অধিনায়ক 1
এমন গুজব ছিল যে টিম ম্যানেজমেন্ট এই সিনিয়র প্লেয়ারকে বাদও দিতে পারেন। যদিও নতুন অধিনায়ক শ্রেয়স আইয়ার জোর দিয়ে বলেছেন যে এটা গম্ভীরেরই সিদ্ধান্ত ছিল প্রথম একাদশের বাইরে বসার। এ প্রসঙ্গে শ্রেয়স জানিয়েছেন, “ সত্যি বলতে কি আমি কোনও সিদ্ধান্তই নিই নি। এটা আমার সিদ্ধান্ত ছিল না তাকে বসানোর। তিনি স্বয়ংই সিদ্ধান্ত নেন বাইরে বসার, যা আগের ম্যাচে অধিনায়ক থাকা সত্ত্বেও সাহসী সিদ্ধান্ত। তার জন্য আমার সম্মান আরও বেড়ে গেল। এটা দেখা সত্যিই দারুণ যখন একজন অধিনায়ক , যদি যে ভাল খেলতে না পারে, তিনি সরে দাঁড়ান। কলিন (মুনরো) দলে আসে এবং আমাদের কাঙ্খিত শুরুয়াত দেয়”।
আইপিএল ২০১৮ : গম্ভীরকে বাদ দেওয়ার সিদ্ধান্ত কার, প্রকাশ করলেন দিল্লির নতুন অধিনায়ক 2
গম্ভীরের বাদ পড়া দাম দেয় এবং তার পরিবর্ত মুনরো দিল্লিকে একটি দারুণ শুরুয়াত দেন। এই ভিতের উপর দাঁড়িয়েই পৃথ্বী শ এবং শ্রেয়স আইয়ার ইনিংস গড়ার কাজ শুরু করেন, চার উইকেটে ২১৯ রানের পাহাড় প্রমান রান দাঁড় করান। পৃথ্বী ৬২ রান করেন এবং শ্রেয়স ৪০ বলে ৯৩ রান করে অপরাজিত থেকে যান। জবাবে কলকাতা ৯ উইকেটে ১৬৪ রানেই আটকে যায়। শ্রেয়সকে আরও প্রশ্ন করা হয় যে দুদলের মধ্যে তফাত কি ছিল। জবাবে তিনি বলেন, “ এটা ছিল শুধু মাত্র আমাদের ভাল শুরুয়াত। সকলেই সতর্ক ছিল যে তাদের কি করতে হবে এবং তারা সত্যি ভাল যোগদান দিয়েছে। এটা সম্পূর্ণ দলগত প্রয়াস। এটা কারও ব্যক্তিগত ম্যাচ ছিল না। প্রত্যেকেই সামনে এগিয়ে এসেছে এবং দায়িত্ব নিতে নিতে শুরু করে”। এই জয় দিল্লির সাত ম্যাচে দ্বিতীয় জয়। এখান থেকে তাদের আর নীচে নামার উপায় ছিল না অন্যথায় তাদের এই প্রতিযোগিতা থেকেই বাইরে চলে যেতে হত।
আইপিএল ২০১৮ : গম্ভীরকে বাদ দেওয়ার সিদ্ধান্ত কার, প্রকাশ করলেন দিল্লির নতুন অধিনায়ক 3

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *