অ্যান্দ্রে রাসেল নীতিশ রানার ব্যাটে ভর করে ২০০ রান কলকাতার, বিপদে দিল্লি 1

কলকাতায় অনুষ্ঠিত আইপিএলের ত্রয়োদশ তম ম্যাচে মুখোমুখি কলকাতা নাইট রাইডার্স। ইডেনে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের সামনে ২০১ রানের লক্ষ্যমাত্রা রাখ কলকাতা নাইট রাইডার্স। সৌজন্য মিডল অর্ডারে নীতিশ রানা এবং অ্যান্দ্রে রাসেলের ধুঁয়াধার ব্যাটিং। এই ম্যাচে প্রথমে টসে জেতেন দিল্লিডেয়ার ডেভিলসের অধিনায়ক গৌতম গম্ভীর। সেই সঙ্গে কলকাতাকে প্রথমে ব্যাট করতে আমন্ত্রণ জানান তিনি। প্রসঙ্গত গত সাত বছর কলকাতা নাইট রাইডার্সের অধিনায়ক ছিলেন গম্ভীর। তবে এই ম্যাচে ফের কলকাতা সুনীল নারিনকে ওপেন করতে পাঠায়। কিন্তু শুরুতেই মাত্র এক রান করে আউট হয়ে যান তিনি। এরপর তিন নম্বরে এসেই চালিয়ে ব্যাট করতে শুরু করেন রবীন উথাপ্পা (৩৫)। তাকে যোগ্য সঙ্গত দেন আরেক ওপেনার ক্রিস লিন (৩১)।

অ্যান্দ্রে রাসেল নীতিশ রানার ব্যাটে ভর করে ২০০ রান কলকাতার, বিপদে দিল্লি 2

এই দুজনে আউট হতেই ব্যাট করতে নামেন নীতিশ রানা এবং অধিনায়ক দীনেশ কার্তিক। তবে দীনেশ কার্তিক শুরুটা ভালো করলেও অহেতুক চালিয়ে খেলতে গিয়ে আউট হয়ে যান ব্যক্তিগত ১৯ রানের মাঠায়। এরপরই ক্রিজে এসে বিধ্বংসী মেজাজেত ব্যাট করতে শুরু করেন অলরাউন্ডার অ্যান্দ্রে রাসেল। মাত্র ১২ বলে ছটি ছয় মেরে ৪১ রানের বিস্ফোরক ইনিংস খেলেন ফর্মে থাকা রাসেল। অন্যদিকে দিল্লির বোলারদের যথেচ্ছ শাসন করতে শুরু করেন নীতিশ রানাও। অলরাউন্ডার নীতিশ রানাও ৩৫ বলে পাঁচটা চার এবং চারটি ছয় মেরে ৫৯ রানের ইনিংস খেলেন। অন্যদিকে দিল্লির বোলারদের মধ্যে ভারতীয় দলের জোরে বোলার মহম্মদ শামী নির্ধারিত চার ওভার বোলিং করে ৫৩ রান দিয়েছেন তবে দিল্লির সফল বোলার হিসেবে শেষ ওভারে কলকাতাকে আটকে দেন রাহুল তেওটিয়া। শেষ ওভারে মাত্র এক রান দিয়ে কলকাতার ৩ ব্যাটসম্যানকে আউট করেন তিনি। ফলে ২০০ রানেই শেষ হয়ে যায় কলকাতার ইনিংস। অন্যদিকে পর্যন্ত রান তাড়া করতে নেমে ১৩ ওভারে দিল্লির রান ১২৯ রানে শেষ হয়ে যায় দেইল্লির ইনিংস। এখনও পর্যন্ত ৩ উইকেট নেন সুনীল নারিন।

অ্যান্দ্রে রাসেল নীতিশ রানার ব্যাটে ভর করে ২০০ রান কলকাতার, বিপদে দিল্লি 3

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *