ভারতীয় দলে কামব্য়াক করার আগে ধোনিকে নিয়ে মজার কথা শোনালেন ধওয়ন 1

অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে আগামী শনিবার সাত অক্টোবর থেকে শুরু হতে চলা টি-২০ সিরিজে দলে কামব্য়াক করছেন স্পেশালিস্ট ওপেনার শিখর ধওয়ন। সিরিজে অজিদের বিরুদ্ধে তিনটি ম্য়াচ খেলবে ভারত। একত্রিশ বছরের এই জাট ক্রিকেটার শ্রীলঙ্কা সফরে তিনটি টেস্ট ও চারটি একদিনের ম্য়াচ খেলার পরই দেশে ফেরার বিমান ধরেছিলেন। তাঁর মা অসুস্থ ছিলেন সেই সময়। এরপর অস্ট্রেলিয়া সিরিজ শুরুর আগে বোর্ডের কাছ থেকে ছুটি চান স্ত্রীর শারীরিক অসুস্থতার কারণে। এদিকে, ভারতীয় দলে কামব্য়াক করার আগে একটি বেসরকারি টিভি চ্য়ানেলকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে সতীর্থদের নিয়ে বেশ খোলামেলা আলোচনা করলেন ধওয়ন।
ম্য়াচ চলাকালীন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি কিপিং করার সময় ধারাভাষ্য়কাররাও চুপ করে যান। স্টাম্প মাইকে ধোনি বোলরদের কি বলছেন, তা শোনার ও শোনানোর জন্য। মাহি এমন এক-একটি মন্তব্য় করেন যে টিভির এপারে বসে তা শোনার পর, হাসতে হাসতে পেটে খিল ধরে যাওয়ার জোগাড় হয়। অত্য়াধিক ঠান্ডা মাথার ধোনি অনেক সময় সাংবাদিক সম্মেলনে এসেও সমালোচকদের জবাব দিতে নানান মজাদার মন্তব্য় করে দেন, তা শোনার পর সবাই ঠান্ডা হয়ে যান। সে সম্পর্কে ধওয়ন বলেন, ”ফিল্ডিং করার সময় ধোনি কখনও যদি হেঁচে ফেলে তখন বলে, ‘ভগবান আমাকে তুলে নিও না, একে তুলে নাও।’ স্লিপে ফিল্ডিং করার সময় এরকম অনেক মজাদার কমেন্ট আমি শুনে থাকি ধোনির মুখে।”
অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে টি-২০ সিরিজে কামব্য়াক করছেন আটত্রিশ বছরের পেস বোলার আশিস নেহরা। জাতীয় দলে এতো বেশি বয়সে কামব্য়াক করায় বেশ অবাক ক্রিকেট দুনিয়া। চোট পেয়ে ছিটকে যাওয়ার আগে চলতি বছরের গোড়ার দিকে ইংল্য়ান্ডের বিরুদ্ধে টি-২০ সিরিজে খেলেছিলেন নেহরা। অবাক করে দেওয়ার মতো ব্য়াপার হলো তাঁর চেয়ে কম বয়সী যুবরাজ সিং ও সুরেশ রায়না ফিটনেস নিয়ে হোঁচট খেয়ে চলেছেন। ফিটনেস টেস্টের সর্বোচ্চ স্তর ইয়ো-ইয়ো এনডুরেন্স টেস্টে উতরাতে পারছেন না দু’জনে। সেখানে নেহরা শুধু ভালোভাবে পাশ করেননি, তুলনায় বয়সে অনেক ছোটো ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে প্রায় ছুঁয়েই ফেলেছিলেন ১৭-১৮ স্কোর করে। নেহরার এই অভাবনীয় পাশ মার্কস সম্পর্কে শিখর বলেন, ”স্থিরসংকল্প, ক্রিকেটের প্রতি ভালোবাসা এবং কঠোর পরিশ্রম।”
ভারতীয় দলে শিখর ধওয়ানের উত্থান, দাপুটে ক্রিকেট খেলে। এরপর হঠাৎই নিস্তেজ হয়ে যায় তাঁর ব্য়াট। দল থেকে বাদ পড়েও গিয়েছিলেন গতবছর। এবছর বাংলাদেশ ও অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজেও দলে ছিলেন না তিনি। কিন্তু, ঘরোয়া ক্রিকেটে ফের ব্য়াট হাতে দাপট দেখানোর পর আইপিএলে দুর্দান্ত ফর্ম আবার শিখরকে জাতীয় দলে ফিরিয়ে এনেছে। দলে ফেরার পর থেকে ফর্মের মধ্য়ে তিনি। চ্য়াম্পিয়ন্স ট্রফি থেকে নিজেকে যেন অন্য় ধাঁচে গড়ে ফেলেছেন। এর পেছনে কারণটা কি? ধওয়ন বলছেন, ”তখন সময় একেবারেই আমার সঙ্গ দিচ্ছিল না। নিজের সেরাটা দেওয়ার পরও কিছুই পরিকল্পনা মতো হচ্ছিল না। কিন্তু, আমি হাল ছেড়ে দিইনি। ট্রেনিং আরও বাড়িয়ে দিয়েছি, দক্ষতা বাড়ানোর চেষ্টা করে চলেছি। আর সবচেয়ে বড় কথা নিজেকে ফিট রাখার দিকে সবসময় খেয়াল রাখছি। দল থেকে বাদ পড়ার পর নিজেকে সবসময় খুশি রাখার চেষ্টা করছিলাম। রঞ্জি ট্রফিতে দিল্লির হয়ে খেলাটাকে উপভোগ করার জন্য় তৈরি করছিলাম। ভগবানকে ধন্য়বাদ দেবো, ঠিক ওই সময়েই আমি আবার ভারতীয় দলে ডাক পাই চ্য়াম্পিয়ন্স ট্রফিতে খেলার সুযোগ চলে আমার সামনে।”

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *