টেস্ট ক্রিকেটে ঘরের মাঠের সুবিধা উঠিয়ে দেওয়ার জন্য এই অভিনব পন্থা আনলেন ভিভিএস লক্ষ্মণ 1

ভারত ও ইংল্যান্ডের মধ্যে খেলা টেস্ট সিরিজের সময় ঘরের সুবিধা নিয়ে অনেক আলোচনা হয়েছিল। ইংল্যান্ডের একাধিক প্রাক্তন ক্রিকেটার অভিযোগ করেছিলেন যে টিম ইন্ডিয়া স্পিন বোলারদের জন্য পিচ উপযুক্ত করে ঘরের অবস্থার পুরোপুরি সুযোগ নিয়েছে। এদিকে, ভারতের সাবেক ক্রিকেটার ভিভিএস লক্ষ্মণ টেস্ট ক্রিকেটে ঘরের সুবিধা হ্রাস করার জন্য একটি অনন্য পরামর্শ নিয়ে এসেছেন। লক্ষ্মণ বলেছিলেন, টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচে বিদেশি অধিনায়ককে টস ছাড়াই ব্যাটিং বা বোলিংয়ের বাছাই করার অধিকার দেওয়া উচিত।

Liam Cromar: Is it worth considering dropping the toss in Test cricket?

স্পোর্টস স্টারের সাথে আলাপকালে লক্ষ্মণ বলেছিলেন, “আমরা গত কয়েক বছরে অসাধারণ টেস্ট ক্রিকেট দেখেছি, সুতরাং ফরম্যাটে কোনও পরিবর্তনের দরকার আছে বলে আমি মনে করি না। হোম দল যেমন সর্বদা হোম কন্ডিশনের সুবিধা পায়, সম্ভবত, সিরিজের প্রথম টেস্ট ম্যাচে, বিদেশি অধিনায়ককে জিজ্ঞাসা করা উচিত যে তিনি প্রথমে কী করতে চান?” লক্ষ্মণের পরামর্শ অনুসারে, প্রথম টেস্টে টস না করে বিদেশি অধিনায়কের আগে ব্যাট করতে বা বল করতে বলা উচিত। লক্ষ্মণ বিশ্বাস করেন যে হোম দল সর্বদা হোম কন্ডিশনের সুবিধা পায়, তাই কেন কমপক্ষে প্রথম ম্যাচে ট্যুরিং দলকে কিছুটা সুবিধা দেওয়া হবে না।

The numbers that damage toss theory | cricket.com.au

প্রাক্তন ভারতীয় ব্যাটসম্যান আরও বলেছিলেন, “প্রথম টেস্টের জন্য অবশ্যই বিদেশি দলকে ব্যাট করতে বা বল করতে দেওয়া উচিত। আমি সবসময় বিদেশের মাটিতে খেলা উপভোগ করেছি। তারা আমাকে এবং আমার সতীর্থদের সবসময় সন্তুষ্ট করেছিলেন, তবে সিরিজের প্রথম টেস্টে ভাল করা সবসময়ই চ্যালেঞ্জের ছিল। আপনাকে শর্তগুলির সাথে সামঞ্জস্য করতে হবে। ঘরের সুবিধাটি সেই পিচ আকারে পাওয়া যায় যার উপরে ম্যাচটি খেলা হয়, তাই যে কোনও দল টস জিতলে অবশ্যই লাভটি পায়। সুতরাং ঘরের সুবিধাটি বাইরে রেখে বিদেশী দলকে কমপক্ষে প্রথম টেস্টে আরও ভাল করার সুযোগ দেবে। আপনি লড়াইয়ের জন্য সামনের দলকে সেরা সুযোগ দেবেন।”

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *